Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২০ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:২৯
শেষ বিতর্কেও হারলেন ট্রাম্প
পরাজিত হলে রায় না মানার ঘোষণা
প্রতিদিন ডেস্ক
শেষ বিতর্কেও হারলেন ট্রাম্প

মার্কিন নির্বাচনের আর বাকি ১৮ দিন। এর মধ্যে গতকাল বাংলাদেশ সময় সকালে হয়ে গেল দুই প্রধান প্রেসিডেন্ট প্রার্থী রিপাবলিকান দলের ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ডেমোক্রেট দলের হিলারি ক্লিনটনের তৃতীয় ও শেষ মুখোমুখি বিতর্ক।

সেই বিতর্কে রিপাবলিকান প্রার্থী ট্রাম্পকে প্রশ্ন করা হয়েছিল নির্বাচনের ফলাফল হিলারি ক্লিনটনের পক্ষে গেলে তিনি ফলাফল মেনে নেবেন কি না। জবাবে ট্রাম্পের প্রতিক্রিয়া ছিল, সেটি নির্বাচনের ফল দেখেই সিদ্ধান্ত নেবেন। তিনি ইশারায় এটাই বোঝাতে চেয়েছেন তিনি সেই ফলাফল মানবেন না। কারণ আগেই মন্তব্য করেছেন নির্বাচনে হিলারির পক্ষে কারচুপি হবে। অবশ্য বিতর্কের সঞ্চালক দ্বিতীয়বার প্রশ্নটি করলে ট্রাম্প বলেন, এবার কিছুটা রহস্য রেখে বলেন, এখনই সব বলে দিতে চান না।

নিউইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে এই মন্তব্যের ব্যাপারে বলা হয়েছে, ট্রাম্পের এ মন্তব্যে মার্কিন গণতন্ত্রের ওপর সন্দেহের ছায়া নেমে এসেছে। সিএনএন বলেছে, ট্রাম্পের এই মন্তব্য মার্কিন গণতন্ত্রের মৌলিক এক আদর্শ থেকে নজিরবিহীন প্রস্থান। আর এ মন্তব্যকে ‘ভয়ঙ্কর’ আখ্যা দিয়েছেন হিলারি ক্লিনটন। এদিকে গতকালের বিতর্কের পর ফলাফলে যথারিত ধরাশায়ী হয়েছেন ট্রাম্প। জনপ্রিয়তার পাল্লা হিলারির পক্ষেই বেশি। বিতর্কের পর সিএনএন/ওআরসির তাত্ক্ষণিক জরিপে দর্শকদের মধ্যে ৫২ শতাংশ মনে করেন বিতর্কে বিজয়ী হয়েছেন হিলারি। পক্ষান্তরে ৩৯ শতাংশ মনে করেন ট্রাম্প জিতেছেন বিতর্কে। গতকালের বিতর্কে প্রথম থেকেই উত্তাপ ছিল। বিতর্কের শুরুতেও প্রথা মাফিক দুই প্রার্থী পরস্পরের সঙ্গে হাত মেলাননি। তবে শুরু থেকে ট্রাম্প ছিলেন অনেকটা খ্যাপাটে। তিনি তো এক সময় হিলারিকে ‘বাজে মহিলা’ গালি দেন। এর আগে অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ, গর্ভপাত, রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এবং অবৈধ অভিবাসন নিয়ে তুমুল বাদানুবাদ হয় দুই প্রার্থীর মধ্যে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালে ওইসব ইস্যুতে হিলারি ক্লিনটন কি উদ্যোগ নিয়েছিলেন, বারবারই সে প্রশ্ন সামনে নিয়ে আসেন ট্রাম্প। যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাসের ইউনিভার্সিটি অব নেভোদায় ফক্স নিউজের সাংবাদিক ক্রিস ওয়ালেসের সঞ্চালনায়, প্রায় ৯০ মিনিটের এ বিতর্কে উভয় প্রার্থী প্রায় ৪০ মিনিট করে সময় পান।

‘নারীদের সম্মান করি’ ট্রাম্পের মন্তব্যে হেসে উঠলেন দর্শকরা : যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা ঘোষণা করার পর থেকে একের পর বিতর্ক জন্ম দিয়ে যাচ্ছেন রিপাবলিকান প্রার্থী ট্রাম্প। সম্প্রতি নারীদের নিয়ে তার বিভিন্ন বিতর্কিত বক্তব্য ও যৌন কেলেঙ্কারি ফাঁস হওয়ার পর আরও চাপে পড়েন তিনি। ট্রাম্প অবশ্য এসব অভিযোগ অস্বীকার করে নিজেকে ‘নোংরা রাজনীতির শিকার’ বলে দাবি করে আসছেন। গতকালের বিতর্কের এক পর্যায়ে ট্রাম্পের বিভিন্ন যৌন কেলেঙ্কারির প্রসঙ্গ সামনে চলে আসে। সিএনএন, এএফপি, বিবিসি

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

এই পাতার আরো খবর
up-arrow