Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২১ অক্টোবর, ২০১৬ ০২:১০
বিশ্বব্যাংকের প্রতিবেদন প্রকাশ
টিআর কাবিখা ভিজিএফে দুর্নীতির কড়া সমালোচনা
নিজস্ব প্রতিবেদক

দরিদ্রদের জন্য নেওয়া সরকারের টিআর, কাবিখাসহ বিভিন্ন কর্মসূচির অনিয়ম ও দুর্নীতি নিয়ে কড়া সমালোচনা করেছে বিশ্বব্যাংক। সংস্থাটি বলছে, দুর্বল প্রশাসনিক ব্যবস্থা ও পদ্ধতিগত ত্রুটির কারণে প্রতিনিয়তই সামাজিক নিরাপত্তা খাতে অনিয়ম ও দুর্নীতি বাড়ছে।

বিশেষ করে খাদ্যসংক্রান্ত কর্মসূচিতে এসব অনিয়মের ঘটনা বেশি। ফলে দরিদ্ররা এসব কর্মসূচি থেকে আশানুরূপ সুফল পাচ্ছে না।

বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম  বাংলাদেশ সফরে এসে দারিদ্র্যজয়ের ব্যাপক প্রশংসা করে বিদায় নেওয়ার এক দিন পর গতকাল সংস্থাটির প্রকাশিত প্রতিবেদনে এসব কথা বলা হয়েছে। ‘বাংলাদেশ সোশ্যাল প্রটেকশন অ্যান্ড লেবার রিভিউ টুয়ার্ডস স্মার্ট সোশ্যাল প্রটেকশন অ্যান্ড জব ফর দ্য পুওর’ শিরোনামের এ প্রতিবেদন রাজধানীর শেরেবাংলানগরে বিশ্বব্যাংকের ঢাকা কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ করা হয়েছে। সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় নেওয়া কর্মসূচি নিয়ে এত বছর সরকারের নীতিনির্ধারক থেকে শুরু করে বিভিন্ন মহলে সমালোচনা থাকলেও এই প্রথম বহুজাতিক সংস্থা বিশ্বব্যাংক এ নিয়ে বিস্তারিত একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করল। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশে যেসব সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি চলমান রয়েছে সেগুলোয় সঠিক ব্যক্তিকে বাছাই করা হয়নি। কর্মসূচিতে ঢুকে পড়েছেন ধনী ব্যক্তিরা। এমন অনেক কর্মসূচি আছে যেগুলো অস্বচ্ছ ও দুবার নেওয়া প্রকল্প। আর দুর্বল টার্গেটিং হওয়ার মূল কারণ, ব্যক্তি বাছাইয়ের সময় বৈজ্ঞানিক কোনো পদ্ধতি গ্রহণ করা হয়নি। এ ছাড়া বাস্তবায়নের অদক্ষতা তো রয়েছেই।

প্রতিবেদনে বিশ্বব্যাংক বলেছে, দারিদ্র্য কমাতে বাংলাদেশ অসাধারণ সাফল্য দেখালেও এ দেশে এখনো ২ কোটি ৮০ লাখ মানুষ দারিদ্র্যসীমার নিচে বসবাস করছে। এদের দারিদ্র্যসীমা থেকে উঠিয়ে আনতে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করার তাগিদ দিয়েছে সংস্থাটি।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow