Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : শনিবার, ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:২৫
ফের সংঘর্ষে আওয়ামী লীগ
কুষ্টিয়ায় ব্যাপক গোলাগুলি নিহত ১, আহত ১০
কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়ায় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ইদ্রিস আলী (৪৫) নামে একজন নিহত হয়েছেন। গতকাল সকালে সদর উপজেলার মঠপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। নিহত ইদ্রিস আলী মৃত গফুর মেম্বারের ছেলে।  

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে জিয়ারখী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি আফজাল হোসেনের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছিল। এর জের ধরে জমি ভাগবাটোয়ারা নিয়ে এদিন আবদুল কাদের সমর্থক শাহজাহান ইসলাম ও আফজাল হোসেন সমর্থক ইসমাইলের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে উভয়পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় আফজাল হোসেন পক্ষের সমর্থক ইদ্রিস আলী ধারালো অস্ত্রের আঘাতে ঘটনাস্থলেই মারা যান। পুলিশ গিয়ে পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। কুষ্টিয়া মডেল থানার ওসি (তদন্ত) রবিউল ইসলাম জানান, লাশ উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। পরিস্থিতি শান্ত রাখতে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এদিকে সংঘর্ষে আহতদের কুষ্টিয়া ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতাল ও স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এদের মধ্যে আবুল কাশেমের (৫০) অবস্থা গুরুতর। রাতে থানা সূত্রে জানা গেছে, এ ঘটনায় ২ জনকে পুলিশ আটক করেছে।

জিয়ারখী ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আফজাল হোসেন দাবি করেছেন, তার সমর্থক ইসমাইলের জমি জোর করে দখল করে আছেন কাদেরের সমর্থকরা। ইসমাইল এর প্রতিবাদ করায় কাদেরের লোকজন তার (আফজাল) সমর্থকদের ওপর অতর্কিতে হামলা চালায়। এতে তার সমর্থক ইদ্রিস আলী নিহত হন। তিনি ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও শাস্তির দাবি করেন।

অন্যদিকে জিয়ারখী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আফজালের লোকদের হাতেই ইদ্রিস নিহত হয়েছেন। তিনি দাবি করেন, তার কোনো লোক এ ঘটনায় জড়িত নয়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow