Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, সোমবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:৩৮
আজই রাষ্ট্রপতিকে নাম দেবে সার্চ কমিটি
কাজ করেছি নিরপেক্ষভাবে প্রধানমন্ত্রীকে বিদায়ী সিইসি
গোলাম রাব্বানী ও রফিকুল ইসলাম রনি

নতুন নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনে আজ রাষ্ট্রপতির কাছে ‘১০ জনের নাম সুপারিশ’ করবে সার্চ কমিটি। এ জন্য সার্চ কমিটির সদস্যদের আজ বিকাল ৫টায় সুপ্রিম কোর্টের জাজেস লাউঞ্জে বৈঠকে বসার কথা রয়েছে।

এ বৈঠকে নতুন নির্বাচন কমিশনের জন্য ‘১০ জনের নাম তালিকা’ চূড়ান্ত করা হবে। এরপর বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাৎ করে আজই সেই তালিকা হস্তান্তর করবে সার্চ কমিটি। এ ক্ষেত্রে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও অন্যান্য নির্বাচন কমিশনারের জন্য ১০ জনের নাম সুপারিশ করা হবে। এ ছাড়া রাষ্ট্রপতির কাছে সার্চ কমিটি তুলে দেবে বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সারসংক্ষেপ।

এর আগে রাজনৈতিক দলের প্রস্তাবিত ১২৫ জনের নাম তালিকা থেকে সার্চ কমিটি ২০ জনের সংক্ষিপ্ত তালিকা তৈরি করেছে। যদিও এই ২০ জনের বাইরেও নতুন নাম যুক্ত করার আভাস দিয়েছেন সার্চ কমিটির একাধিক সদস্য। সব মিলিয়ে সংক্ষিপ্ত তালিকার বাইরেও প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) ও নির্বাচন কমিশনার হিসেবে অনেকের নাম আলোচনায় উঠে এসেছে।

রাষ্ট্রপতির কাছে আজ নাম দেবে সার্চ কমিটি : সার্চ কমিটির একজন সদস্য জানিয়েছেন, আজ বৈঠকে নাম চূড়ান্ত হবে। এরপর রাষ্ট্রপতির কাছে হস্তান্তর করা হবে সেই তালিকা।

এ ছাড়া রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মো. জয়নাল আবেদীন সাংবাদিকদের বলেন, সোমবার সন্ধ্যায় রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সার্চ কমিটির ছয় সদসে?্যর সাক্ষাৎ সূচি রয়েছে। আশা করা যায়, এ সময় সার্চ কমিটি সিইসি ও নির্বাচন কমিশনারদের নাম সুপারিশ করবে। এ বিষয়ে সার্চ কমিটির একজন সদস্য বলেন, ‘সোমবারের বৈঠকে আমরা প্রস্তাবিত ১০ জনের নাম চূড়ান্ত করার চেষ্টা করব। প্রতিটি শূন্য পদের বিপরীতে দুইজন করে ১০ জনের নাম সুপারিশ করব। নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনে রাষ্ট্রপতির কাছে সুপারিশের জন্য ১০ জনের নাম চূড়ান্ত করতে আজ সোমবার বিকালে বৈঠকে বসবে সার্চ কমিটি। ’ বৃহস্পতিবার বিকালে সুপ্রিম কোর্টের জাজেস লাউঞ্জে সার্চ কমিটির বৈঠকের পর মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন ও বিধি) আবদুল ওয়াদুদ জানান, বিশিষ্ট ব্যক্তিরা যে মতামত দিয়েছেন বা কমিশন গঠনের বিষয়ে সংবিধানে যে কথাগুলো বলা আছে, সবকিছুর আলোকে সব ক্রাইটেরিয়া বিবেচনা করে সর্বোত্তম ব্যক্তিদের নাম সুপারিশ করার প্রয়াস চলছে। আবদুল ওয়াদুদ সাংবাদিকদের জানান, রাজনৈতিক দলগুলোর কাছ থেকে পাওয়া নাম থেকে বাছাই করে ২০ জনের যে সংক্ষিপ্ত তালিকা করা হয়েছিল, সেগুলো আরও পর্যালোচনা করেছে সার্চ কমিটি। এ তালিকা থেকে ১০ জনের নামের চূড়ান্ত তালিকা হবে। এ জন?্য তাদের বিষয়ে আরও খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে। সংগ্রহ করা হচ্ছে তথ?্য-উপাত্ত। আবদুল ওয়াদুদ বলেন, দুই দফায় ১৬ জন বিশিষ্ট নাগরিকের সঙ্গে বৈঠকে যেসব মতামত এসেছে, নির্বাচন কমিশন গঠনের বিষয়ে যেসব মানদণ্ড নিয়ে তারা সুপারিশ করেছেন, সেসব সুপারিশের একটি খসড়া সংকলন তৈরি করা হয়েছে। আরও পর্যালোচনা করে ওই খসড়া চূড়ান্ত করার পর ১০ জনের তালিকা রাষ্ট্রপতির কাছে দেওয়া হবে। সার্চ কমিটির বৈঠকে ২০ জনের সংক্ষিপ্ত তালিকায় নতুন কোনো নাম অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে কি না, জানতে চাইলে অতিরিক্ত সচিব বলেন, নতুন কোনো নাম আসেনি। তবে সার্চ কমিটি চাইলে নিজেরা নাম সংযোজন করতে পারে।

জোর আলোচনায় সিইসি হিসেবে তিন নাম : সবারই আগ্রহ সিইসির নাম ঘিরে। রাজনৈতিক দলগুলো সিইসি হিসেবে অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতির নাম প্রস্তাব করলেও সাবেক মুখ্য সচিব, মন্ত্রিপরিষদ সচিব ও স্বরাষ্ট্র সচিবদের নাম ‘নতুন সিইসি’ হিসেবে বেশি আলোচনায় রয়েছে। এর মধ্যে সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা এবং সাবেক সচিব শেখ ওহেদুজ্জামান ও এম এ করিমের নাম জোর আলোচনায় রয়েছে। এ ছাড়া নতুন সিইসি হতে পারেন এমন তালিকায় রয়েছে—সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব আবু সোলায়মান চৌধুরী এবং সাবেক সচিব আবুল কাশেম, ড. মোহাম্মদ তারেক, হাবিবুল আউয়াল ও সাবেক সিএজি আতাউল হাকিমের নামও। জানা গেছে, সার্চ কমিটির সুপারিশের মধ্যে থেকে একজন প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ অনধিক পাঁচ সদস্যের নতুন নির্বাচন কমিশন নিয়োগ দেবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ নেতৃত্বাধীন বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষে দায়িত্ব নেবে নতুন কমিশন। তাদের অধীনেই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে। উল্লেখ্য, রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ২৫ জানুয়ারি সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে ছয় সদস্যের সার্চ কমিটি গঠন করেন। কমিটির অপর সদস্যরা হলেন হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান, সরকারি কর্মকমিশনের (পিএসসি) চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাদিক, মহাহিসাবনিরীক্ষক (সিএজি) মাসুদ আহমেদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য শিরীন আখতার।

৭ ফেব্রুয়ারি বিদায়ী ইসির সাক্ষাৎ : বিদায়ের আগে ৭ ফেব্রুয়ারি সকালে সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবে বিদায়ী ইসি। ওই দিন বিকালে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করবেন তারা। ৮ ফেব্রুয়ারি সিইসি কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ ও তিন নির্বাচন কমিশনারের মেয়াদ পাঁচ বছর পূর্ণ হচ্ছে, আরেকজন নির্বাচন কমিশনারের মেয়াদ পূর্ণ হবে ১৪ ফেব্রুয়ারি।

নিরপেক্ষভাবে কাজ করেছি  : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে গতকাল সন্ধ্যায় দেখা করেছেন বিদায়ী প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ এবং দুই নির্বাচন কমিশনার আবদুল মোবারক ও আবু হাফিজ। এটি ছিল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এ নির্বাচন কমিশনের শেষ আনুষ্ঠানিক সাক্ষাৎ। সৌজন্য সাক্ষাতে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, ‘আমরা যে শপথ নিয়েছিলাম, আমরা সে শপথ রক্ষায় নিরপেক্ষভাবে কাজ করেছি। ’ প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের বলেন, বিদায়ী সিইসি প্রধানমন্ত্রীকে জানান, নির্বাচন বর্জনকারী দলগুলোর তীব্র সহিংসতা সত্ত্বেও তারা ‘দৃঢ়তার সঙ্গে’ দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন সম্পন্ন করেন। জাতীয় ওই ভোটগুলোর কথা উল্লেখ করে কাজী রকিব বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীকে বলেন, ওই নির্বাচনগুলোতে জয়লাভের পর বিএনপি তাদের ধন্যবাদও জানিয়েছিল। কাল রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাৎ : প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও অপর কমিশনাররা আগামীকাল বিকাল সাড়ে ৩টায় দেখা করবেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সঙ্গে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নির্বাচন কমিশন সচিব মোহাম্মদ আবদুল্লাহ। আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি শেষ হবে এই নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ। ওই রাতেই সিইসি ও অপর কমিশনারদের বিদায় সংবর্ধনা জানাবে ইসি সচিবালয়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow