Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : শুক্রবার, ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:১৫
হোমওয়ার্কে ব্যস্ত নতুন কমিশন টার্গেট শক্তিশালী ইসি
পৌর নির্বাচন দিয়েই শুভ যাত্রার টার্গেট
গোলাম রাব্বানী
হোমওয়ার্কে ব্যস্ত নতুন কমিশন টার্গেট শক্তিশালী ইসি

নিয়োগ পাওয়ার পর থেকে হোমওয়ার্কে ব্যস্ত নতুন নির্বাচন কমিশনাররা। নির্বাচন কমিশনার হিসেবে সাংবিধানিক দায়িত্ব নেওয়ার আগেই প্রয়োজনীয় আইন-কানুন পর্যালোচনাসহ বিভিন্ন বিষয়ে খোঁজ খবর নিচ্ছেন তারা।

এ ছাড়া তারা সদ্য বিদায়ী নির্বাচন কমিশনারদের কাছেও সহযোগিতা চেয়েছেন। অনেকে বিদায়ী নির্বাচন কমিশনারদের সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে যোগাযোগও করেছেন।

গত সোমবার রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ পাঁচ সদস্যের নির্বাচন কমিশন গঠন করেন। প্রধান নির্বাচন কমিশনার নিযুক্ত হয়েছেন সাবেক সচিব কে এম নুরুল হুদা। তার  নেতৃত্বে পাঁচজনের এই কমিশন নিয়োগ পাওয়ার পরে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথাও বলেছেন। দায়িত্ব পালনে সবার সহযোগিতা কামনা করেছেন তারা। ইসির সচিবালয়ের কর্মকর্তারা বলেছেন, নতুন ইসি দায়িত্ব নেওয়ার দুদিন পরে রয়েছে একটি পৌরসভা নির্বাচন। তাই দায়িত্ব নেওয়ার দুই দিনের মাথায় একটি সুন্দর নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য তাদের আগেভাগে প্রস্তুতি নিতে হচ্ছে। ইতিমধ্যে ইসির সচিবালয়ের সঙ্গে নতুন সিইসিসহ অন্য নির্বাচন কমিশনারদের নিয়মিত যোগাযোগ হচ্ছে। নতুন কমিশনারদের নামের গেজেটও প্রকাশ করেছে ইসি সচিবালয়। এ ছাড়া নতুন সিইসির সঙ্গেও নতুন নির্বাচন কমিশনারদের নিয়মিত যোগাযোগ হচ্ছে।  

এদিকে নতুন নির্বাচন কমিশনকে সব ধরনের সহযোগিতা দিতে সদ্য বিদায়ী কমিশন সব সময় প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়েছেন সাবেক নির্বাচন কমিশনাররা। এ বিষয়ে বিদায় নেওয়ার একদিন আগে সদ্য সাবেক নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) জাবেদ আলী বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেছেন, আমরা মনে করি সবার সহযোগিতায় ইসি সম্মান অর্জন করতে পারে। যদি নতুন ইসি আগের কমিশনের অভিজ্ঞতা চান তা দেওয়ার জন্য আমরা প্রস্তুত।

একজন নতুন নির্বাচন কমিশনার বলেন, দায়িত্ব নেওয়ার আগে বিভিন্ন আইন-কানুন দেখে নিচ্ছি। অপর একজন নতুন নির্বাচন কমিশনার জানান, নতুন সিইসির উত্তরার বাসায় গিয়ে ‘চা পান’ করে কথোপকথন সেরেছেন। আর একজন কমিশনার জানান, ফোনে নতুন সিইসির সঙ্গে যোগাযোগ হয়েছে। আপাতত গণমাধ্যমের সঙ্গেও বেশি কথা বলব না।

আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি নতুন সিইসি ও চার নির্বাচন কমিশনার শপথ গ্রহণ করবেন। ১৮ ফেব্রুয়ারি রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি পৌরসভা নির্বাচন। তাই দায়িত্ব নেওয়ার পরে এই নির্বাচনকে গুরুত্বের সঙ্গেই দেখছে নতুন ইসি।

ইসি সচিবালয় জানিয়েছে, সিইসি কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ ও তিন নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ আবদুল মোবারক, আবু হাফিজ, জাবেদ আলী বিদায় নিয়েছেন। অপর নির্বাচন কমিশনার মো. শাহনেওয়াজ ১৪ ফেব্রুয়ারি মেয়াদ পূর্ণ করবেন।

জানতে চাইলে ইসি সচিব মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ বলেন, এক সপ্তাহ ধরে এক সদস্যের কমিশন থাকবে। খুব গুরুত্বপূর্ণ নীতি নির্ধারণী বিষয় থাকলে তিনি একাই সিদ্ধান্ত নেবেন। সিইসির অনুপস্থিতিতে ওই নির্বাচন কমিশনারই ভারপ্রাপ্ত সিইসির দায়িত্ব পালন করবেন। গত বুধবার সন্ধ্যায় ইসির সচিবালয়ের বিদায় আনুষ্ঠানে যোগ দেন সিইসি কাজী রকিবউদ্দীনসহ অন্য কমিশনাররা। তবে ওই রাতে কাজী রকিব ও জাবেদ আলী ইসির গাড়ি ছেড়ে দেন। আর গতকাল দুপুর ১২টার মধ্যে ইসি সচিবালয় থেকে নেমপ্লেট নামানো হয় জাবেদ আলীর। ইসির কর্মকর্তারা জানান, জাবেদ আলী বেলা ১২টার মধ্যে তার নেমপ্লেট নামিয়ে ফেলার নির্দেশ দেন। আর আবদুল মোবারক তার নেমপ্লেট বিকাল পাঁচটায় নামানোর নির্দেশ দিয়ে যান।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow