Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : শুক্রবার, ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:১৬
আদালতে যাননি খালেদা, শুনানি পেছাল
নিজস্ব প্রতিবেদক

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আদালতে হাজির না হওয়ায় দুই মামলায় তার আত্মপক্ষ সমর্থনের শুনানি এক সপ্তাহ পিছিয়ে গেছে। শারীরিক অসুস্থতার কারণে গতকাল আদালতে হাজির হননি বিএনপি প্রধান।

পরে ঢাকার ৩ নম্বর বিশেষ জজ আবু আহমেদ জমাদার জিয়া দাতব্য ট্রাস্ট ও জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় শুনানির জন্য ১৬ ফেব্রুয়ারি নতুন তারিখ ঠিক করে দিয়েছেন। এই বিচারকের প্রতি অনাস্থা জানিয়ে ইতিমধ্যে হাই কোর্টে আদালত পরিবর্তনের আবেদন করেছেন খালেদা জিয়া।

এদিকে খালেদা জিয়া আদালতে যাচ্ছেন এমন তথ্যে স্বেচ্ছাসেবক দল, ছাত্রদল, যুবদলসহ অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা বিশেষ আদালতের দিকে রওনা দেন। স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা-কর্মীরা সকাল ১১টায় কাকরাইল-মত্স্য ভবন এলাকায় জড়ো হলে পুলিশি বাধার মুখে পড়ে। একপর্যায়ে পুলিশ লাঠি চার্জ করে। এতে অর্ধ শত নেতা-কর্মী আহত হন বলে স্বেচ্ছাসেবক দলের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়। লালবাগ থানা স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা রাজু, পল্টন থানার রাসেলসহ ১২ জনকে পুলিশ আটক করে বলেও স্বেচ্ছাসেবক দলের পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়। খালেদা জিয়ার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া বলেন, ‘আমরা হাই কোর্টে আবেদন করেছি, বিষয়টি শুনানির অপেক্ষায়। আজকের মতো এই আদালতে শুনানি মুলতবি করা হোক। বিচারক আবেদনে সাড়া দিয়ে আত্মপক্ষ সমর্থন ও সাফাই সাক্ষ্যগ্রহণের পর্যায়ে থাকা মামলা দুটিতে নতুন তারিখ দেন। ’ জিয়া দাতব্য ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় গত ১ ডিসেম্বর আত্মপক্ষ সমর্থনে নিজের বক্তব্য উপস্থাপন শুরু করেন খালেদা জিয়া। ওই ট্রাস্টের ৩ কোটি ১৫ লাখ টাকা আত্মসাতের এ মামলায় নিজেকে নির্দোষ দাবি করে আদালতের কাছে সুবিচার চান তিনি। পরে খালেদার আবেদনে এ মামলার ৩২তম ও শেষ সাক্ষী হিসেবে মামলাটির প্রথম অনুসন্ধান কর্মকর্তা দুদকের তখনকার সহকারী পরিচালক নূর উদ্দিন আহমেদকে নতুন করে জেরা করেন আসামি পক্ষের আইনজীবীরা। এরপর গত ২৬ জানুয়ারি আদালত খালেদার আত্মপক্ষ সমর্থনের অসমাপ্ত বক্তব্য শোনার জন্য ২ ফেব্রুয়ারি দিন রাখেন।

ওই দিন খালেদা জিয়া আত্মপক্ষ সমর্থনে কিছু না বলে বিচারকের প্রতি অনাস্থা জানানোর পর এ মামলায় সাফাই সাক্ষ্যের জন্য ৯ ফেব্রুয়ারি দিন ঠিক করে দিয়েছিলেন এই বিচারক। আর জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় গত ৩০ জানুয়ারি বিএনপি প্রধানের আত্মপক্ষ সমর্থনের দিন নির্ধারিত থাকলেও তার আইনজীবীরা সেদিন মামলাটি পুনঃতদন্তের আবেদন করেন। এ নিয়ে দিনভর আইনজীবীদের বাকবিতণ্ডা চলে। পরে খালেদার আইনজীবীদের সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে ঢাকার তৃতীয় বিশেষ জজ আবু আহমেদ জমাদার প্রধান আসামি খালেদা জিয়ার আত্মপক্ষ সমর্থন ও পুনঃতদন্তের আবেদন নিয়ে শুনানির জন্য ৯ ফেব্রুয়ারি তারিখ দেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow