Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : সোমবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:২৭
ভোট নিয়ে উত্তাপ
সিলেটে উপজেলা নির্বাচনে সংঘর্ষে প্রাণ গেল কিশোরের
নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট

দলীয় ভিত্তিক উপজেলা নির্বাচন ঘিরে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে সিলেটের ওসমানী নগর। ওসমানী নগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী ও বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে এক কিশোর নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ২৫ জন। আগামী ৬ মার্চ ওসমানী নগরসহ ১৮ উপজেলায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। গতকাল সকালে ওসমানী নগর উপজেলার সাদীপুর ইউনিয়নের উত্তর কালনীচর গ্রামে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী আতাউর রহমান ও বিদ্রোহী প্রার্থী আকতারুজ্জামান চৌধুরী জগলুর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সাইফুল ইসলাম (১৬) পার্শ্ববর্তী জগন্নাথপুর উপজেলার উত্তর কালনীচর গ্রামের শরফ উদ্দিনের ছেলে। স্থানীয়রা জানান, শনিবার বিকালে ওসমানী নগর উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী জগলু চৌধুরীকে নিয়ে সাদীপুর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান কবির উদ্দিন, সাবেক ইউপি সদস্য আরজু মিয়া মেম্বার, তার ভাই বাহার মিয়াসহ বেশ কিছু সমর্থক সাদীপুর ইউনিয়নের বাংলাবাজারে গণসংযোগে যান। এ সময় পার্শ্ববর্তী জগন্নাথপুর উপজেলার উত্তর কালনীচর গ্রামের কয়েকজন যুবককে তাদের পক্ষে কাজ করার জন্য বললে তারা অপারগতা প্রকাশ করেন। এ নিয়ে তাদের মধ্যে বাগিবতণ্ডা হয়। এ ঘটনার জেরে গতকাল সকাল ১০টার দিকে সংঘর্ষে জড়ায় দুই পক্ষ। প্রায় দুই ঘণ্টার সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই নিহত হন সাইফুল ইসলাম।

আহত হন আরও অন্তত ২৫ জন। আহতদের কয়েকজনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও জগন্নাথপুর উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। প্রতিবাদে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীরা তাজপুর বাজারে বেলা সাড়ে ১১টা থেকে ২টা পর্যন্ত তিন ঘণ্টা সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের এক প্রবাসী নেতা এলাকার পরিবেশ অস্থিতিশীল করতে চাইছেন বলেও অভিযোগ করেন দলীয় নেতা-কর্মীরা। ওসমানী নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল আউয়াল চৌধুরী জানান, দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

স্বাক্ষর জাল করে মনোনয়ন প্রত্যাহার : নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল জানান, ৬ মার্চ অনুষ্ঠেয় বরিশালের বানারীপাড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে। এ নির্বাচনে জাসদ (আম্বিয়া-প্রধান) মনোনীত প্রার্থী টিপু সুলতান তার প্রার্থিতা ফিরে পেতে এবং অভিযুক্ত রিটার্নিং কর্মকর্তার বিচারের দাবিতে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কার্যালয়ে অভিযোগ দিয়েছেন। গতকাল দুপুরে জাসদের কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে নিয়ে চেয়ারম্যান প্রার্থী টিপু সুলতান প্রধান নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ে এ অভিযোগ করেন। অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, তিনি নিজে প্রার্থিতা প্রত্যাহার না করলেও জেলা রিটার্নিং অফিসার তার স্বাক্ষর জাল করে মনোনয়ন প্রত্যাহার দেখিয়েছেন। সিইসি কার্যালয় অভিযোগপত্র গ্রহণ করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন জাসদ প্রার্থী টিপু সুলতান। তিনি জানান, গতকাল দুপুরে জাসদের কেন্দ্রীয় নেতাদের নিয়ে সিইসির সঙ্গে তিনি দেখা করতে যান। তবে সিইসির সাক্ষাৎ না পেলেও তাদের অভিযোগের বিষয়টি দ্রুত সমাধান করা হবে বলে সিইসি কার্যালয় থেকে তাদের জানানো হয়েছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow