Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ২১ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, সোমবার, ২১ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : বুধবার, ১ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:২৯
ব্যাপক দুর্ভোগ, পুলিশের গাড়িতে আগুন সংঘর্ষ
হঠাৎ দেশব্যাপী পরিবহন শ্রমিক ধর্মঘট
নিজস্ব প্রতিবেদক
ব্যাপক দুর্ভোগ, পুলিশের গাড়িতে আগুন সংঘর্ষ
গাবতলীতে গতকাল সংঘর্ষের সময় পুলিশের গাড়ি পুড়িয়ে দেয় পরিবহন শ্রমিকরা —বাংলাদেশ প্রতিদিন

বাসচালকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশের প্রতিবাদে সড়ক পরিবহন শ্রমিকদের দেশব্যাপী হঠাৎ ধর্মঘটে সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে সাধারণ মানুষকে। রাত ৮টার দিকে গাবতলী বাস টার্মিনালে পরিবহন শ্রমিকরা পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন।

তারা পুলিশের একটি র্যাকার ভ্যান ও বক্সে আগুন ধরিয়ে দেন। রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত দফায় দফায় চলে সংঘর্ষ। শ্রমিকরা অভিযোগ করেন, এ ঘটনায় অন্তত ১০ শ্রমিক ও ৩ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে রাত ১২টার দিকে ওই এলাকায় যৌথ অভিযান চালায় র‌্যাব-পুলিশ। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শ্রমিকদের বিক্ষোভ চলাকালে পুলিশ বাধা দিলে সংঘর্ষ শুরু হয়। এ সময় শ্রমিকরা পুলিশের ওপর ইটপাটকেল ছুড়তে থাকেন। পুলিশও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে রাবার বুলেট ও টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে। সংঘর্ষ চলাকালে পুলিশের র‌্যাকার ভ্যানে আগুন দেন শ্রমিকরা। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আগুন নেভাতে এলে তাদের গাড়ি ঢুকতে দেননি তারা। এর কিছুক্ষণ পরই পুরো গাবতলী শ্রমিকদের নিয়ন্ত্রণে চলে যায়। গাবতলী টার্মিনালের পশ্চিম দিক থেকে পুলিশ শ্রমিকদের লক্ষ্য করে টিয়ার শেল ও রাবার বুলেট ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। তবে এ সংঘর্ষে কাউকে আটক করা হয়নি। ফায়ার সার্ভিসের পরিদর্শক মাহমুদুল হক বলেন, ওই আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে মিরপুরের ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট পাঠানো হয়েছিল। গতকাল সকাল থেকে দেশের বেশির ভাগ সড়ক-মহাসড়কে অভ্যন্তরীণ ও দূরপাল্লার যান চলাচল বন্ধ ছিল। ফলে সারা দেশে যাত্রী চলাচল ও পণ্য পরিবহন বন্ধ হয়ে যায়। সকালে রাস্তায় বেরিয়ে স্টেশনে, টার্মিনালে যানবাহন না পেয়ে হেঁটে বা বিকল্প উপায়ে স্বল্প দূরত্বের গন্তব্যে পৌঁছান যাত্রীরা। দূরপাল্লার যাত্রীরা তাদের যাত্রা বাতিল করেন। এদিকে যাত্রীদুর্ভোগ কমাতে বাংলাদেশ রেলওয়ে তাদের সব রুটে ট্রেনের কোচ বাড়িয়েছে। অযৌক্তিক ধর্মঘট ডেকে জনজীবনে দুর্ভোগ সৃষ্টির প্রতিবাদ জানিয়েছে বিভিন্ন সংগঠন। ধর্মঘট আহ্বানের ব্যাপারে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের নেতাদের পক্ষ থেকে গত রাত পর্যন্ত আনুষ্ঠানিক কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

 

 

জেলা পর্যায়ের শ্রমিক নেতারা জানান, সোমবার রাতে কেন্দ্রীয় নেতারা ফোন করে ধর্মঘট শুরু করার ঘোষণা দেন। এর পর থেকে নেতাদের অনেকের ফোন বন্ধ। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সহসভাপতি আবদুল ওদুদ নয়ন বলেন, ‘এ কর্মবিরতি শ্রমিকদের। এতে নেতাদের সংশ্লিষ্টতা নেই। তারা আমাদের সঙ্গে আলাপ করে কর্মবিরতি দেননি। ’ সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সচিব এম এ এন সিদ্দিক একটি বার্তা সংস্থাকে বলেন, ‘শ্রমিকরা যেহেতু আদালতের একটি রায়ের বিপক্ষে গিয়ে ধর্মঘট করছেন সেখানে আমাদের কিছুই করার নেই। আমরা এ নিয়ে কারও সঙ্গে কোনো কথাও বলব না। কোনো ধরনের যোগাযোগ করছি না। ’ সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের আদালতের রায়ের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে শ্রমিকদের আহ্বান জানিয়েছেন। আইনমন্ত্রী আনিসুল হকও গতকাল বলেন, শ্রমিকদের অসন্তোষ থাকলে তারা আদালতে যেতে পারেন, কিন্তু জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করা ঠিক নয় বলে অভিমত ব্যক্ত করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ ধর্মঘটী শ্রমিকদের কঠোরভাবে দমন করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। মানিকগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় চলচ্চিত্রকার তারেক মাসুদ, সাংবাদিক মিশুক মুনীরসহ পাঁচজন নিহত হওয়ার ঘটনায় বাসচালক জমির হোসেনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেওয়ার প্রতিবাদে রবিবার থেকে সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত খুলনা বিভাগের ১০ জেলায় পরিবহন ধর্মঘট পালন করেন শ্রমিকরা। যাত্রীদের দুই দিনের দুর্ভোগের পর যান চলাচল যখন স্বাভাবিক হওয়ার পথে, তখন গতকাল সকালে পরিবহন শ্রমিকরা আবার নতুন কর্মসূচি শুরু করেছেন। ঢাকার সাভারে ট্রাক চাপা দিয়ে এক নারীকে হত্যার দায়ে সোমবার এক চালকের মৃত্যুদণ্ডাদেশ দেয় আদালত। এরই প্রতিবাদে এ কর্মসূচি বলে জানান পরিবহন শ্রমিকরা। ঢাকা ও ঢাকার বাইরে থেকে পাঠানো আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের খবর : বরিশালের চরমোনাই পীরের মাহফিল শেষে ষাটোর্ধ্ব আবদুল কাইয়ুমকে বহনকারী ঢাকাগামী বাস গতকাল বেলা আড়াইটায় মহাখালী বাসস্ট্যান্ডে নামিয়ে দেয়। তার বাড়ি টাঙ্গাইলে। কিন্তু পরিবহন শ্রমিকদের ডাকা ধর্মঘটের কারণে তিনি টাঙ্গাইলগামী কোনো বাস না পেয়ে মহাখালী থেকে তার ভারী ব্যাগসহ বাড়ির উদ্দেশে হাঁটতে শুরু করেন। কুর্মিটোলা গলফ ক্লাবের সামনে তিনি বলেন, ‘দুই ঘণ্টা ধইরা খালি হাঁটতেই আছি। কোনো গাড়ি পাই না। উপায় না পাইয়া আমি ও আমার সাথের লোকেরা হাঁটা শুরু করছি। ’ শুধু আবদুল কাইয়ুমই নন, তারই মতো পরিবহন ধর্মঘটে পড়ে রাজধানীর ঢাকার হাজার হাজার মানুষ তীব্র ভোগান্তির শিকার হন। এর মধ্যে বয়স্ক মানুষ, স্কুল ও কলেজগামী শিশু-কিশোর এবং রোগীদের দুর্ভোগ ছিল সবচেয়ে বেশি। চট্টগ্রাম : পরিবহন ধর্মঘটে চট্টগ্রামে যান চলাচল পুরোপুরি বন্ধ হয়ে গেছে। এতে নগর ও জেলায় যাত্রীরা চরম ভোগান্তি, হয়রানি, নাজেহাল ও দুর্ভোগে পড়েছেন। ধর্মঘট চলাকালে প্রতিটি স্পটে পরিবহন শ্রমিকরা বাস থামিয়ে যাত্রীদের নেমে যেতেও বাধ্য করেছেন। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে নগরীর বহদ্দারহাটে উত্তেজিত শ্রমিকরা একটি সিটিবাস ভাঙচুর করেছেন। বাস নিয়ে রাস্তায় নামার কারণে এক চালককে শ্রমিকরা মারধর করেছেন। চান্দগাঁও থানার ওসি সাইফুল ইসলাম বলেন, বহদ্দারহাট থেকে রাহাত্তারপুল হয়ে শাহ আমানত সেতু পর্যন্ত এলাকায় পরিবহন শ্রমিকরা বাস থামিয়ে যাত্রীদের নেমে যেতে বাধ্য করেছেন। এ সময় পুলিশ বাধা দিলে কয়েক দফা উত্তেজনার ঘটনাও ঘটে। বরিশাল : বরিশালেও শ্রমিকরা সকাল ৬টায় অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি শুরু করেছেন। ফলে বরিশাল নগরীর নথুল্লাবাদ কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল ও রূপাতলী বাস টার্মিনাল থেকে অভ্যন্তরীণ এবং দূরপাল্লার রুটের বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। বন্ধ রয়েছে মালবাহী ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান ও জ্বালানিবাহী ট্যাঙ্ক-লরি। রাজশাহী : রাজশাহীর বাসস্ট্যান্ডে সব পরিবহন চলাচল বন্ধ করে দেওয়ায় যাত্রীরা সীমাহীন দুর্ভোগে পড়েন। ধর্মঘটে পণ্য পরিবহনও বন্ধ রয়েছে। চুয়াডাঙ্গা : চুয়াডাঙ্গায় টানা ষষ্ঠ দিনের মতো চলছে পরিবহন ধর্মঘট। বিভিন্ন গণমাধ্যমে খুলনা বিভাগের বাস ধর্মঘট প্রত্যাহারের খবর প্রচারিত হলেও চুয়াডাঙ্গার শ্রমিকরা তা প্রত্যাখ্যান করেছেন। সাতক্ষীরা : পরিবহন শ্রমিকদের কর্মবিরতির কারণে ভোমরা স্থলবন্দর তৃতীয় দিনের মতো অচল হয়ে পড়েছে। সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দরের আমদানির কাঁচামালভর্তি শতাধিক ট্রাকসহ পাঁচ শতাধিক পণ্যবাহী যান এখনো আটকা পড়ে আছে। এতে বন্দরের কোটি কোটি টাকার আমদানি পণ্য নষ্ট হওয়ার উপক্রম। ঠাকুরগাঁও : হঠাৎ ঠাকুরগাঁওয়ে পরিবহন ধর্মঘটে সকাল থেকে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে বিপাকে পড়েছেন সাধারণ যাত্রীরা। উপায় না পেয়ে অনেকে মহাসড়কে থ্রি হুইলার, নসিমন ও ভটভটিযোগে বেশি ভাড়া দিয়ে গন্তব্যে গেছেন। জেলা মোটর মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেন ও ট্রাক-ট্যাঙ্ক-লরি শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ভুট্টোসহ নেতারা বলেন, ‘কেন্দ্রীয় নেতারা মধ্যরাতে পরিবহন ধর্মঘট শুরুর নির্দেশ দিলে আমরা জেলায় অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন চলাচল বন্ধ করে দিই। ’ টাঙ্গাইল : ধর্মঘটে টাঙ্গাইল বাস টার্মিনালের শ্রমিকরা বাস, কোচ ও মিনিবাস চলাচল বন্ধ করে দেন। ফলে টাঙ্গাইলের সঙ্গে ঢাকা ও ময়মনসিংহের বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রীরা। কুমিল্লা : সকাল থেকে কুমিল্লার সহস্রাধিক বাস শ্রমিক টার্মিনাল অবরোধ করে পরিবহন ধর্মঘট শুরু করেন। ধর্মঘটের কারণে জেলার ২০টি সড়ক ও মহাসড়কের দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে যাত্রীরা চরম দুর্ভোগে পড়েছেন। ময়মনসিংহ : সকাল থেকেই মাসকান্দা কেন্দ্রীয় ও পাটগুদাম আন্তজেলা বাস টার্মিনাল এবং টাঙ্গাইল বাসস্ট্যান্ড থেকে ঢাকাসহ সারা দেশের উদ্দেশে কোনো বাস ছেড়ে যায়নি এবং ঢাকা থেকেও কোনো বাস ময়মনসিংহে আসেনি। খুলনা : বাস টার্মিনালগুলো থেকে দূরপাল্লার কোনো বাস ছেড়ে যায়নি। পাইকারি কাঁচাবাজারগুলোয় পণ্য বেচাকেনা বন্ধ হয়ে গেছে। পচন ধরছে পিয়াজ, টমেটো ও শীতকালীন সবজিতে। ধর্মঘটের কারণে খুলনার খালিশপুরে পদ্মা, মেঘনা, যমুনা পাম্প থেকে জ্বালানি তেল উত্তোলন ও সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। তেলের সংকটে প্রভাব পড়তে শুরু করেছে চলতি বোরো-ইরি আবাদের সেচকাজেও।

মুন্সীগঞ্জ : মুন্সীগঞ্জের ঢাকা-মাওয়া রুটের সব গণপরিবহন বন্ধ রয়েছে। সকাল ১০টা থেকে মাওয়া মহাসড়কে চালকরা সব গণপরিবহন বন্ধ করে দেন। এতে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন দূরপাল্লার যাত্রীরা। ভাঙ্গা : ভাঙ্গা বিশ্বরোড মোড় চৌরাস্তায় শ্রমিকদের অবরোধের কারণে গতকাল দ্বিতীয় দিনের মতো বাস না চলায় যাত্রী ভোগান্তি চরমে পৌঁছেছে। ঢাকার সঙ্গে ২১ জেলার যোগাযোগ অনেকটা বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

বগুড়া : সকালে বগুড়ায় অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট শুরু হয়েছে। ধর্মঘটের কারণে এ অঞ্চলে বাস, কোচ, ট্রাক-ট্যাঙ্ক-লরি, কার, মাইক্রোবাস, সিএনজি অটোরিকশাসহ সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। সড়ক ও মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে শ্রমিকরা গাড়ি চলাচলে বাধা দিচ্ছেন।

ঝিনাইদহ : জেলা থেকে দূরপাল্লার বাস, ট্রাকসহ সব যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন শ্রমিকরা।

সিদ্ধিরগঞ্জ : ঢাকা-শিমরাইল-আদমজী-কাঁচপুর ও শিমরাইল-নারায়ণগঞ্জ সড়কে সকাল থেকেই বন্ধ ছিল গণপরিবহন। এতে চরম ভোগান্তির শিকার হন যাত্রীরা। সকাল থেকেই কাঁচপুর ও শিমরাইল মোড়সহ বিভিন্ন বাস কাউন্টারে ছিল যাত্রীর উপচে পড়া ভিড়। গণপরিবহন বন্ধ থাকায় এসব যাত্রী অটোরিকশাসহ বিকল্প পন্থায় গন্তব্যে যান।

কুষ্টিয়া : টানা পরিবহন ধর্মঘটে ভোগান্তি আর দুর্ভোগের শেষ নেই যাত্রীদের। ধর্মঘটে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তর চালের মোকাম খাজানগর থেকে চাল সরবরাহ বন্ধ হয়ে গেছে। খুলনা বিভাগের ১০ জেলায় শুরু হওয়া পরিবহন ধর্মঘটে ব্যবসায়ীরা বিপদে পড়েছেন। ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ায় পণ্য আনা-নেওয়াসহ চাল পরিবহন বন্ধ হয়ে গেছে।

যশোর : গত রাতে যশোরে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের কুশপুতুল পুড়িয়েছেন শ্রমিকরা। রাত ৮টার দিকে শহরের মণিহার প্রেক্ষাগৃহের সামনে কয়েক শ শ্রমিক জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করেন ও কুশপুতুল পোড়ান। শ্রমিকনেতা মিন্টু জানান, রাজধানীর গাবতলীতে ধর্মঘটী শ্রমিকদের ওপর ‘পুলিশি হামলা’র প্রতিবাদে রাতে শ্রমিকরা রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করেন। জাপা চেয়ারম্যান এরশাদ বাসচালক জমির হোসেনের সাজা বহাল রাখা এবং শ্রমিক ধর্মঘটের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিয়ে বক্তব্য দেওয়ায় শ্রমিকরা এরশাদের কুশপুতুল পোড়ান।

up-arrow