Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৭ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৬ মার্চ, ২০১৭ ২৩:৪৯
ট্রাম্পের নতুন ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা
ট্রাম্পের নতুন ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দেশটিতে ভ্রমণসংক্রান্ত নতুন একটি নির্বাহী আদেশে গতকাল স্বাক্ষর করেছেন। পূর্ববর্তী আদেশে যে সাতটি মুসলিম-সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল এর মধ্যে নতুন আদেশে কেবল ইরাককে বাদ দেওয়া হয়েছে।

নতুন আদেশে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার আওতাভুক্ত দেশগুলো হলো ইরান, সিরিয়া, লিবিয়া, সুদান, ইয়েমেন ও সোমালিয়া। যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণসংক্রান্ত বাতিল হওয়া প্রথম নির্বাহী আদেশ জারির প্রায় ছয় সপ্তাহ পর নতুন আদেশটি এলো। পরিবর্তিত নতুন আদেশটি যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্র দেশগুলোর নিরাপত্তা জোরদার করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন। নতুন নির্বাহী আদেশে যেসব পরিবর্তন এসেছে : নিষেধাজ্ঞার আওতাভুক্ত দেশগুলোর যেসব নাগরিক ইতিমধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা পেয়েছেন তাদের দেশটিতে ভ্রমণের ক্ষেত্রে কোনো বাধা নেই। অথচ পূর্ববর্তী আদেশে ভিসাধারীদেরও দেশটিতে প্রবেশে বাধা দেওয়া হয়েছিল। সিরীয় শরণার্থীদের গ্রহণের ওপর অনির্দিষ্টকালের নিষেধাজ্ঞা তুলে দিয়ে তা এখন ১২০ দিন করা হয়েছে। সেইসঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের গ্রিনকার্ডধারীরাও যে এর আওতামুক্ত তা স্পষ্ট করা হয়েছে। চলমান লড়াইয়ের বড় অংশীদার ইরাকের ওপর মার্কিন ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা একটা বোঝা।

ট্রাম্পের অভিযোগ নাকচ : যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থার (এফবিআই) পরিচালক জেমস কমি প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ফোনে সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার আড়ি পাতার অভিযোগ নাকচ করেছেন। শনিবার ট্রাম্প এ অভিযোগ করেন। কমি মার্কিন বিচার বিভাগের প্রতি ওবামার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ট্রাম্পের এমন অভিযোগের সমর্থনে কোনো প্রমাণ মেলেনি। বিচার বিভাগ কমির এ নির্দেশ নিয়ে তাত্ক্ষণিক কোনো বিবৃতি দেয়নি। ট্রাম্পের অভিযোগের পর এটি তদন্ত করে দেখতে রবিবার কংগ্রেসের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে হোয়াইট হাউস। এএফপি

এই পাতার আরো খবর
up-arrow