Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : শনিবার, ১১ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১০ মার্চ, ২০১৭ ২৩:২৫
এখন থেকেই লেভেল প্লেইং ফিল্ড দরকার
নিজস্ব প্রতিবেদক
এখন থেকেই লেভেল প্লেইং ফিল্ড দরকার

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, নির্বাচনের তিন মাস আগে নয়, সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য এখন থেকেই সবার জন্য সমান সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে। এখন থেকেই সব দলের জন্য লেভেল প্লেইং ফিল্ড তৈরির জন্য সরকারকে পদক্ষেপ নিতে হবে।

গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। ডেমোক্রেটিক কাউন্সিলের সভাপতি এম এ হালিমের সভাপতিত্বে ‘মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে করণীয়’ শিরোনামে আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন— গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মজিবুর রহমান সারোয়ার, আইন বিষয়ক সম্পাদক সানাউল্লাহ মিয়া, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ এবং নিপুন রায় চৌধুরী প্রমুখ।

মওদুদ বলেন, লেভেল প্লেইং ফিল্ড যেটা আমরা বলছি, অনেকে মনে করে  নির্বাচনের ওই তিন মাস আগে যদি একটু ভালো অবস্থা থাকে বা নির্বাচনের আগে এক মাস যদি লেভেল প্লেইং ফিল্ড থাকে। সেটা যথেষ্ট নয়। যদি সুষ্ঠু, অবাধ নির্বাচনের একটা পথ উন্মুক্ত করতে চাই, তাহলে এখন থেকে, এই আজ থেকেই লেভেল প্লেইং ফিল্ড সৃষ্টি করতে হবে।

তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনে তারা আজকে বলে দিক, সরকারকে বলুক, যে কোনো বাধানিষেধ থাকবে না। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বা ২০ দলীয় জোটের কোনো জনসভা আয়োজন করার জন্য কোনো বাধা-নিষেধ থাকতে পারবে না। বিএনপি সংলাপ-সমঝোতার মাধ্যমে রাজনৈতিক সংকটের সমাধান চায়। সমঝোতা হলে প্রয়োজনে সংবিধান সংশোধন করতে হবে।

বিএনপি নেতা বলেন, আজকে যদি বেগম খালেদা জিয়া একটি জনসভা করার সুযোগ পান, তাহলে প্রমাণ করে দেব বাংলাদেশের জনগণ কাদের পক্ষে আছে। সেই ভয়ে তারা আমাদের জনসভা করতে দেয় না। সরকারকে বলব, সমঝোতার পথে আসুন। আমরা সংলাপ চাই, রাজনৈতিক সমঝোতার মাধ্যমেই তা করতে চাই। আর যদি সমঝোতা না হয়, আন্দোলনের বিকল্প থাকবে না।

মওদুদ বলেন, যে রাজনৈতিক পরিবেশ সরকার সৃষ্টি করেছে, এটা মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সম্পূর্ণ পরিপন্থী এবং এই চেতনাকে এই সরকারই আজকে ধ্বংস করে দিয়েছে। আমি বলতে চাই, মুক্তিযুদ্ধের এই চেতনাকে ধ্বংস করা যাবে না এবং এই চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে বাংলাদেশে গণতন্ত্র আবার ফিরে আসবে। রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া অরফানেজ ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা পরিচালিত হচ্ছে। আদালত নিরপেক্ষ থাকলে খালাস পাবেন বিএনপি চেয়ারপারসন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow