Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : বুধবার, ১৫ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১৪ মার্চ, ২০১৭ ২৩:০৮
খান একাডেমির সালমান খান
নিজস্ব প্রতিবেদক
খান একাডেমির সালমান খান

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মার্কিন শিক্ষা গবেষক, উদ্যোক্তা এবং ‘খান একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা সালমান আমিন খান। খান একাডেমি সবার কাছে অত্যন্ত প্রিয় একটি উন্মুক্ত অনলাইনভিত্তিক ও অলাভজনক প্রতিষ্ঠান হিসেবে পরিচিত।

তিনি ছোট একটি অফিস থেকে এর যাত্রা শুরু করেন। একাডেমি নিজের ওয়েবসাইট ও ইউটিউবের মাধ্যমে গণিত ও বিজ্ঞানসহ ৩ হাজার ১০০-এর বেশি বিষয়ের ওপর ৬ হাজার ৫০০-এর বেশি ভিডিও তৈরি করেছেন। ২০১৬ সালের ২৭ জানুয়ারি পর্যন্ত ইউটিউবে খান একাডেমির চ্যানেলটি ২ কোটি ৪১৫ লাখ ৪০৬-এর বেশি গ্রাহককে আকৃষ্ট করেছে। ভিডিওগুলো দেখা হয় ৬৯৬ মিলিয়নের বেশিবার। ২০১২ সালে মার্কিন পত্রিকা টাইমের জরিপে বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী ১০০ ব্যক্তির বার্ষিক তালিকা তৈরি করে। সেখানে একটি উল্লেখযোগ্য নাম খান একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা সালমান আমিন খান। অসাধারণ সব পরিকল্পনা উপস্থাপনের জন্য গুগল ঘোষণা করে ‘প্রজেক্ট টেন টু দ্য হানড্রেড’ নামে ১০ মিলিয়ন ডলারের একটি পুরস্কার। প্রতিষ্ঠানটির দশম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ২০০৮ সালে এ ঘোষণা দেওয়া হয়। একাডেমিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য ২০ লাখ ডলার পুরস্কার দিয়েছে গুগল। ২০১২ সালের ৮ জুন অনুষ্ঠিত ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির ১৪৬তম সমাবর্তনে সমাবর্তন বক্তা হিসেবে বক্তব্য দেন সালমান আমিন খান। ৩৫ বছর বয়সী সালমান আমিন খানই এমআইটির ইতিহাসে কনিষ্ঠতম সমাবর্তন বক্তা। ২০১২ সালের মে মাসে রাইস ইউনিভার্সিটিতেও সমাবর্তন বক্তা ছিলেন সালমান। ২০১০ সালে সালমান মাইক্রোসফট টেক অ্যাওয়ার্ড লাভ করেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow