Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৭ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১৬ মার্চ, ২০১৭ ২৩:০১
জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জনমত গড়ে তুলুন : প্রধানমন্ত্রী
নিজস্ব প্রতিবেদক

জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাস এবং মাদকাসক্তির বিরুদ্ধে জনমত সৃষ্টি করতে সমাজের সব মানুষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, আজকে বিশ্বব্যাপী নতুন একটা উপসর্গ দেখা দিয়েছে।

সেটা হচ্ছে জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাস এবং মাদকাসক্তি। এর বিরুদ্ধে সবাইকে জনমত সৃষ্টি করতে হবে।

গতকাল রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়, গবেষণা প্রতিষ্ঠান ও বিভিন্ন সংস্থার বিজ্ঞানী, গবেষক ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মধ্যে বঙ্গবন্ধু ফেলোশিপ, জাতীয় বিজ্ঞান-প্রযুক্তি (এনএসটি) ফেলোশিপ এবং বিশেষ অনুদান প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

এ বছর এক হাজার ৭০২ জন শিক্ষার্থীকে বঙ্গবন্ধু ফেলোশিপ, এনএসটি ফেলোশিপ ও গবেষণা অনুদান প্রদান করা হয়। শেখ হাসিনা দৃঢ়তার সঙ্গে বলেন, যেখানেই হোক, বাংলাদেশে এই ধরনের সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের জায়গা হবে না। তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি বলেন, আমাদের ছেলেমেয়েরা অত্যন্ত মেধাবী। কেবল দেশে না, বিদেশেও যারা পড়ালেখা করে তারা মেধার দৃষ্টান্ত রেখে যাচ্ছে। এরা (শিক্ষার্থীরা) যেন কেউ বিপথে না যায়, এ ধরনের জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাসে যেন সম্পৃক্ত না থাকে, বিশেষভাবে নজর দেওয়ার জন্য শিক্ষক, অভিভাবক থেকে শুরু করে আমাদের যারা আছেন, সমাজের সব মানুষের প্রতি আমি আবেদন জানাচ্ছি।

সবাই এ বিষয়ে একটা সচেতনতা সৃষ্টি করতে পারলে নিশ্চয়ই আমরা আমাদের দেশকে এ ধরনের জঙ্গি-সন্ত্রাস থেকে মুক্ত রাখতে পারব।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, উন্নত ও সমৃদ্ধ দেশ যদি আমরা গড়তে চাই, তাহলে আমাদের সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন শিক্ষার পাশাপাশি প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়ানো, গবেষণা বাড়ানো এবং বিজ্ঞানের চর্চা বৃদ্ধি করা। ইতিমধ্যে আমরা বায়ো-টেকনোলজিক্যাল সায়েন্স, মেডিকেল সায়েন্স, এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স, ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড অ্যাপলায়েড সায়েন্স এবং খাদ্যদ্রব্য উৎপাদনে গুরুত্ব প্রদান করেছি।    প্রধানমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু ফেলোশিপ ট্রাস্ট গঠন করা হয়েছে। এটা করেছি আমরা এ কারণে যে, এর আগেও আমরা বঙ্গবন্ধুর নামে গবেষণার জন্য অনুদান দিয়েছিলাম। অনেকেই চলে গিয়েছিলেন বিদেশে, পড়াশোনা শুরুও করেছিলেন। ক্ষমতার পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে ২০০১ সালে যখন জামায়াত-বিএনপি ক্ষমতায় এলো, তারা এসে বন্ধ করে দিল। যারা ফেলোশিপ নিয়ে বিদেশে গিয়েছিলেন অর্ধেক দেশে ফিরে এলেন। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়-সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আ ফ ম রুহুল হক, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সচিব সিরাজুল হক খান প্রমুখ।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টুঙ্গিপাড়া যাচ্ছেন আজ : গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, আজ ১৭ মার্চ স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৮তম জন্মদিনে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টুঙ্গিপাড়া আসছেন। এদিন সকালে প্রধানমন্ত্রী টুঙ্গিপাড়া পৌঁছে তার পিতা বঙ্গবন্ধুর সমাধিসৌধ বেদিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, ফাতিহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাত করে তার স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদনের মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসূচি শুরু করবেন। এ সময় তিন বাহিনীর একটি চৌকস দল তাকে গার্ড অব অনার প্রদান করবে। বাজানো হবে করুণ সুরে বিউগল।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow