Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, শনিবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৩ অক্টোবর, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১২ অক্টোবর, ২০১৭ ২৩:৫৭
সাম্প্রদায়িক উসকানি দিচ্ছে একটি সরকারি মহল
নিজস্ব প্রতিবেদক
সাম্প্রদায়িক উসকানি দিচ্ছে একটি সরকারি মহল

সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার ধর্মপরিচয় নিয়ে সরকারের ভিতরে এবং ক্ষমতাসীন দলের  নেতৃত্বাধীন জোটের একটি অংশ সাম্প্রদায়িক উসকানি সৃষ্টি করতে তত্পর বলে অভিযোগ করেছেন বাংলাদেশ হিন্দু  বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রাণা দাশগুপ্ত।  এখন সংখ্যালঘুরা রাষ্ট্রীয় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদ প্রাপ্তি এবং পদায়নে বঞ্চনার শিকার হচ্ছে।

গতকাল ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) মিলনায়তনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন তিনি। সংগঠনের পক্ষে লিখিত বক্তব্যে রাণা দাশগুপ্ত বলেন, সরকারি দল ও জোটের একাংশের বিভিন্ন সাম্প্রদায়িক বক্তব্য, মন্তব্য ও উক্তি সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠী এবং সচেতন নাগরিকদের মধ্যে নেতিবাচক বার্তা পৌঁছে দিয়েছে। যা  কোনোভাবে কাম্য না। তিনি বলেন, প্রধান বিচারপতি সংক্রান্ত বিষয়টি সামনে এনে সরকারের ভিতরে ঘাপটি মেরে থাকা প্রতিক্রিয়াশীল মহলবিশেষ বিভেদ, বৈষম্য ও সাম্প্রদায়িক উসকানি সৃষ্টি করছে। আগের মতো আবারও সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের লোকদের বঞ্চিত করা হচ্ছে। এর ফলে পদোন্নতি ও উচ্চপদে পদায়নে ধর্মীয় পরিচয় মুখ্য বিষয় হিসেবে এখন কাজ করছে। এতে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের লোকেরা শঙ্কা বোধ করছে। এ ছাড়া প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একজন জ্যেষ্ঠ সচিব সংখ্যালঘু সমপ্রদায়ের বিষয়ে অপতত্পরতা চালাচ্ছেন বলে অভিযোগ করেন তিনি। সংবাদ সম্মেলনে ঐক্য ন্যাপের সভাপতি পঙ্কজ ভট্টাচার্য এখানে যেসব অভিযোগ করা হয়েছে, তার ভিত্তি আছে বলে তিনি দাবি করেন। হিন্দু বৌদ্ধ ঐক্য পরিষদের সভাপতি হিউবার্ট গোমেজ, সংসদ সদস্য উষাতন তালুকদার, সংস্কৃতিকর্মী সঞ্জীব দ্রং প্রমুখ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow