Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২২:৫৪
উড়োজাহাজ আকাশবীণা উদ্বোধনে প্রধানমন্ত্রী
সেবা দিন, বদনাম যেন না হয়
নিজস্ব প্রতিবেদক
সেবা দিন, বদনাম যেন না হয়
bd-pratidin

নতুন বোয়িং ৭৮৭ ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজ ‘আকাশবীণা’ উদ্বোধন করে যাত্রীসেবা ও শতভাগ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বিমানকর্মীদের আন্তরিক হতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল দুপুরে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনারা এমনভাবে সেবা দিন যেন কোনো বদনাম না হয়। আমাদের দেশের যেন সুনাম হয়। কারণ, যখন কোনো বিদেশি আসেন বা যান বা দেশে যারা আসেন প্রবাস থেকে, তাদের যেন দ্রুত মাল খালাস হয়, দ্রুত তারা যেন চলে যেতে পারেন। ভিভিআইপি লাউঞ্জে এ অনুষ্ঠানে ড্রিমলাইনারের ‘আকাশবীণা’ নামকরণ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘যখনই নতুন বিমান এসেছে, চেষ্টা করেছি তারই একটা নতুন নাম দিতে। আগামী নভেম্বরে আরেকটি ড্রিমলাইনার আসছে। সেটিরও নাম ঠিক করে রেখেছি। আমরা নতুন বিমান সংযোজন করছি, বিমান যেন ভালোভাবে চলতে পারে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, যোগাযোগ একটি দেশের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সেদিকে লক্ষ্য রেখেই আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি। আমাদের আকাশপথ, রেলপথ, সড়কপথ সবগুলোর যোগাযোগব্যবস্থা যেন উন্নত হয় সেজন্য কাজ করে যাচ্ছি। অভ্যন্তরীণ যোগাযোগব্যবস্থা আমরা আরও উন্নত করছি। ইতিমধ্যে দেশের বিমানবন্দরগুলো উন্নত করা হয়েছে। কক্সবাজার বিমানবন্দরকে বিশ্বমানের করা হবে। থার্ড টার্মিনালের ভিত্তিপ্রস্তর শিগগিরই হবে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) এ এম মোসাদ্দিক আহমেদ বলেন, প্রতিটি উড়োজাহাজ কেনার জন্য প্রধানমন্ত্রী অর্থায়নের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। আমরা অত্যন্ত গর্বিত, তিনি মাঝেমধ্যে বিমানে ভ্রমণ করেন। বিমান সম্পর্কে তার আগ্রহ ব্যাপক। তিনি নানাবিধ পরামর্শ দেন। অনুষ্ঠানে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামাল ও মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মহীবুল হক, বিমান বোর্ডের চেয়ারম্যান ইনামুল বারী বক্তব্য দেন। অন্যান্যের মধ্যে বিমানের পরিচালক (প্রশাসন) মোমিনুল ইসলাম, মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) শাকিল মেরাজ, সিবিএ সভাপতি মশিকুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান শেষে প্রধানমন্ত্রী কেক কাটেন। এ সময় বিমান চেয়ারম্যান প্রধানমন্ত্রীকে ড্রিমলাইনারের একটি রিপ্লেকা উপহার দেন। ‘আকাশবীণা’র ভিতর ঘুরে দেখেন প্রধানমন্ত্রী। গতকাল সন্ধ্যা সোয়া ৭টায় কুয়ালালামপুরের উদ্দেশে ২৪৩ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকা ছাড়ে উড়োজাহাজটি। এটিই এ উড়োজাহাজের উদ্বোধনী বাণিজ্যিক ফ্লাইট।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow