Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শনিবার, ১২ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১১ জানুয়ারি, ২০১৯ ২২:৪৭
ব্যাংকের শৃঙ্খলা ফেরাতে যৌথ উদ্যোগ চাই
আলী রিয়াজ
ব্যাংকের শৃঙ্খলা ফেরাতে যৌথ উদ্যোগ চাই
ড. মির্জ্জা আজিজুল ইসলাম

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ড. এ বি মির্জ্জা আজিজুল ইসলাম বলেছেন, ব্যাংক ও আর্থিক খাতের শৃঙ্খলা ফেরাতে তিন প্রতিষ্ঠানকে যৌথভাবে কাজ করতে হবে। অর্থ ও আইন মন্ত্রণালয় এবং কেন্দ্রীয় ব্যাংক মিলে উদ্যোগ নিতে হবে। এ জন্য আমাদের উচ্চ আদালতকে ব্যবহার করতে হবে। তিন প্রতিষ্ঠান প্রধান বিচারপতির সঙ্গে কথা বলে আইনি জটিলতা নিরসন করতে হবে। নতুন অর্থমন্ত্রী দায়িত্ব নেওয়ার পর খেলাপি কমানো, সুশাসন ফেরাতে নানা পদক্ষেপের কথা জানিয়েছেন। আমরা এর ওপর আস্থা রাখতে চাই।

গতকাল বাংলাদেশ প্রতিদিনকে এক সাক্ষাৎকারে মির্জ্জা আজিজ বলেন, ব্যাংক খাত দীর্ঘদিন ধরে অনিয়ম, দুর্নীতিতে নিমজ্জিত। সরকার নানা রকম পদক্ষেপ নেওয়ার কথা বললেও তার প্রতিফলন আমরা দেখতে পাই না। উল্টো নানা ধরনের অনিয়মের ঘটনা ঘটে। এই বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের জন্য পাঁচটি বড় পদক্ষেপ নিতে হবে। এর মধ্যে নিয়োগ ও ঋণ কোনোটাই প্রদান- কোনোটাই রাজনৈতিক বিবেচনায় করা যাবে না। ঋণ আদায়ের ক্ষেত্রে তদবির, নমনীয়তা দেখানো যাবে না, স্বচ্ছতার জন্য সুশাসন নিশ্চিত করতে হবে, ঋণ বিতরণের ক্ষেত্রে সঠিক প্রতিষ্ঠান বাছাই করা ও আইনি প্রক্রিয়া নিরসন করতে হবে। তিনি বলেন, ঋণ নিয়ে যারা ফেরত দেয় না উল্টো ব্যাংকের বিরুদ্ধে রিট করে, এখানে আইনগত সংকট বা জটিলতা আছে। এজন্য উচ্চ আদালতের সঙ্গে কথা বলে কীভাবে বিষয়টি নিয়ন্ত্রণ করা যায় বা দ্রুত সমাধান করা যায় তার জন্য পদক্ষেপ নিতে হবে। এতে শুধু অর্থ মন্ত্রণালয় নয় আইন ও বাংলাদেশ ব্যাংক যৌথভাবে কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, যারা ব্যবসা করছে ঋণ নিয়ে কিন্তু টাকা ফেরত দিচ্ছে না। -এরকম সব প্রতিষ্ঠানকে শক্তভাবে মোকাবিলা করতে হবে। নমনীয়ভাবে নিলে কোনো পদক্ষেপেই কাজ     হবে না।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow