Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:২২
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা কোচিং করাতে পারবেন না : হাই কোর্ট
রাজধানীতে ৮ কোচিং সেন্টার সিলগালা করেছে র‌্যাব
নিজস্ব প্রতিবেদক

কোচিং বাণিজ্য বন্ধে ২০১২ সালের নীতিমালা অনুসারে দেশের সরকারি কিংবা বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কর্মরত শিক্ষকরা কোচিং করাতে পারবেন না। তবে যেসব ব্যক্তি কোনো প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক হিসেবে নিযুক্ত নন, শুধু তারাই ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কোচিং করাতে পারবেন বলে মন্তব্য করেছে হাই কোর্ট। গতকাল বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত হাই কোর্ট বেঞ্চ এ মন্তব্য করে। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান এ সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন। পরে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি একটি মামলার শুনানির জন্য আদালতে উপস্থিত ছিলাম। আদালত আমাকে ডেকে বলেছে, কোচিং নিয়ে টেলিভিশনে প্রচারিত আমার দুটি টক শো আদালত দেখেছে। তাই কোচিংয়ের সংজ্ঞা নিয়ে তারা (বিচারপতিরা) বক্তব্য স্পষ্ট করে আমাকে জানান, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের বাইরে যারা ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কোচিংয়ের সঙ্গে যুক্ত, তারা তাদের কার্যক্রম চালু রাখতে পারবেন। তবে যারা কোনো প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক হিসেবে কর্মরত, তাদের ক্ষেত্রে সরকারের করা কোচিং বাণিজ্য বন্ধের ২০১২ সালের নীতিমালা প্রযোজ্য হবে।

রাজধানীতে ৮ কোচিং সেন্টার সিলগালা করেছে র‌্যাব : এসএসসি পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে চালু রাখার অভিযোগে রাজধানীর ৮ কোচিং সেন্টারকে জরিমানা ও সিলগালা করে দিয়েছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল যাত্রাবাড়ী দনিয়া এলাকায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গাউছুল আজমের নেতৃত্বে অভিযান চালায় র‌্যাব-১০। এ সময় প্রিভেইল, সমীকরণ ও ফরম্যাট কমার্স কোচিং সেন্টারকে ৫ হাজার টাকা করে; চ্যালেঞ্জার, জেনুইন ও বেস্ট কোচিং সেন্টারকে ১ হাজার টাকা করে এবং ফরম্যাট একাডেমিকে ৫০০, এমআর কোচিং সেন্টারকে ১ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা ও সেন্টারগুলো সিলগালা করে দেওয়া হয়। র‌্যাব-১০ এর পাঠানো প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, যাত্রাবাড়ী আইডিয়াল স্কুল ও কলেজের গণিত এবং পদার্থ বিদ্যার শিক্ষক মোশারফ হোসেন ও গোলাম মাওলা নিজ বাসভবনে কোচিং সেন্টার পরিচালনা করার অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ঢাকা জেলা শিক্ষা অফিসারকে অবহিত করা হয়েছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow