Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ১০ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৯ জুন, ২০১৬ ২১:৫৯
মনোবিদের মুখোমুখি
অধ্যাপক ডা. মোহিত কামাল মনোরোগ বিশেষজ্ঞ
মনোবিদের মুখোমুখি

যেহেতু, আপনার বাবা-মা বিচলিত নন, তাই বিষয়টি গুরুত্ব না দেওয়াটাই ভালো। আপনার বোনকে দলে ভিড়িয়ে নিন। বন্ধুদের সঙ্গে মিশলে হিংসুটে ভাব চলে যাবে।

 

সমস্যা

আমার বয়স ২১ বছর। গ্র্যাজুয়েশন কমপ্লিট করেছি। ছোটবেলা থেকেই কম্বাইন্ড স্কুলে পড়েছি। ছেলেদের সঙ্গে খুব ফ্রি। এমনকি আমার মেয়ে বন্ধুর চেয়ে ছেলে বন্ধুই বেশি। ওরা যখন-তখন আমার বাড়িতে আসে। আমার বাবা-মাও অনেক ফ্রি মাইন্ডেড। কখনো কিছু বলে না। সম্প্রতি আমার এক মামাতো বোন আমার বাড়িতে এসেছে। এখন থেকে আমাদের সঙ্গে থাকবে। এখানে থেকেই ও পড়াশোনা করবে। আর হ্যাঁ, বলে রাখি আমার চেয়ে ও দুবছরের ছোট। কিন্তু ও আমাকে একদমই সহ্য করতে পারে না। মামিকে ফোন করে আমার নামে উল্টাপাল্টা বলে। এমনকি এলাকাতেও আমার নামে কুৎসা রটাচ্ছে। বলছে আমার ক্যারেক্টার নাকি ভালো নয়! আত্মীয় বলে কিছু বলতে পারছি না। কী করব?

— মাবিয়া সুলতানা রাইসা, ধানমন্ডি।

সমাধান

কিছু করার সত্যি দরকার আছে কি? চিঠি পড়ে যতটুকু বুঝতে পারলাম আপনার মামাতো বোন আপনাকে হিংসে করে। ছোটবেলা থেকে আপনার মতো ফ্রি মাইন্ডেড ফ্যামিলিতে বড় হয়নি। তাই হয়তো তার কোনো ছেলে বন্ধু নেই কিংবা কখনো কোনো ছেলে পাত্তা দেয়নি। আর সেখানে আপনার ছেলে বন্ধুর সংখ্যা বেশ ভালোই। যা আপনার চিঠি দেখে বোঝা যাচ্ছে। তাই বলব ‘ইটস এ সিম্পল কেস অব জেলাসি’। আপনাকে এলাকায় সবাই ছোটবেলা থেকেই চেনে জানে, দুদিনের মেয়ে এসে একটা কিছু বলল আর তাতে কি কিছু আসে যায়। আর নিজের রেপুটেশন নিয়ে কেন ভাবছেন। আপনি তো আর এমন কিছু করেননি যে লোকে আপনাকে খারাপ বলবে। আর যেখানে আপনার বাবা-মা বিচলিত নন, সেখানে আপনার বিষয়টিকে গুরুত্ব না দেওয়াটাই ভালো। আপনার বোনটির কোনো বন্ধু না থাকায় সে আপনাকে হিংসে করছে। বোনকে হাতে আনতে চান, তবে আপনার বন্ধুদের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিন। দেখবেন কয়েকদিন বাদে আপনার গুণগান শুরু করে দেবে।




সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত
এই পাতার আরো খবর
up-arrow