Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ১০ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১০ জুন, ২০১৬ ০০:৩৯
সোনামণিদের ঈদের খুশি
সোনামণিদের ঈদের খুশি
মডেল : অহনা, মৈত্রী, অগ্নিলা, রাফি ও সাফি ছবি : তানভীর আহমেদ পোশাক : গ্রামীণ মেলা

ঈদ উৎসবে শিশুদের প্রথম চাহিদা নতুন পোশাক। রমজান মাসের শুরু থেকেই সেই বায়না শুরু।

ঈদ বলেই হয়তো নতুন পোশাককে ঘিরে শিশুদের থাকে বাড়তি আনন্দ। সেই আনন্দকে ছড়িয়ে দিতে বিভিন্ন ফ্যাশন হাউস সাজিয়েছে তাদের পসরা। রোদ-বৃষ্টিকে ছাপিয়ে শিশুদের পোশাকে আনা হয়েছে ওয়েস্টার্ন স্টাইল।

ঈদ উৎসব মানেই নতুন পোশাক। ঈদ আর নতুন পোশাককে ঘিরে শিশুদের আনন্দ। আর ঈদের নতুন পোশাক আমেজটি শুরু হয় রমজানের শুরু থেকে। রমজান শুরু হলেই শিশুদের রোজকার বায়না হয়ে ওঠে নতুন। নতুন পোশাকের খোঁজে বাবা-মায়ের হাত ধরে ঘুরে বেড়ায় বিভিন্ন শপিং সেন্টার। চোখে-মুখে ফুটে ওঠে আনন্দ। আর সেই আনন্দকে ছড়িয়ে দিতে শিশুদের জন্য বাজারে নানা রকমের পোশাকের সমাহার ঘটিয়ে থাকে বিভিন্ন ফ্যাশন হাউস। এবারও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। রমজান শুরু হয় বেশ গরমের আবহে। বাতাসে উষ্ণ আর্দ্রতা ঘরে-বাইরে সবাইকে গরমের তীব্রতা জানান দেয়। তবুও উৎসবের আমেজে শপিং তো আর থেমে নেই। ছোট্ট সোনামণির বায়না নতুন পোশাক। তাই এখন থেকেই চলছে ঈদ উৎসবের প্রস্তুতি। গরম আবার বৃষ্টি বিষয়টি মাথায় রেখে হাল ফ্যাশনে আনা হয়েছে আরামের ট্রেন্ড। এমনিতেই শিশুদের কোমল ত্বক তার ওপর যে গরম তাতে হালকা পোশাক ছাড়া অন্য কিছু ভাবা বোকামি। তাই তো গরম উপলক্ষে রকমারি ডিজাইন নিয়ে এসেছে বিভিন্ন বুটিকস এবং ফ্যাশন হাউস। দেশি পোশাকে আনা হয়েছে ওয়েস্টার্ন ট্রেন্ড। করা হয়েছে ওয়েস্টার্ন ডিজাইনের বাহারি পোশাক। ডিজাইনে রয়েছে রঙের বৈচিত্র্য। পরিবারের ছোট শিশুটির মুখে হাসি ফোটাতে অনেক বাবা-মা সন্তানকে নিয়ে আগেই ছুটছেন শপিং সেন্টারে। ঈদকে সামনে রেখে এরই মধ্যে জমে উঠেছে রাজধানীর কেনাকাটা। তাই শিশুর পোশাক দিয়ে শুরু করুন ঈদের কেনাকাটা।

শিশুরা এখন বেশ ফ্যাশন সচেতন। হাল আমলে তাদের পোশাকে চাই নতুনত্ব। এরই ধারাবাহিকতায় শিশুর পছন্দকে প্রাধান্য দিয়ে প্রতি বছরের মতো এবারও বিভিন্ন ফ্যাশন হাউস আকর্ষণীয় ও বর্ণিল পোশাকে সাজিয়েছে তাদের আউটলেট। আরামের সঙ্গে পোশাকে মিলবে বিভিন্ন ডিজাইনের ফিউশন। রঙে রয়েছে বৈচিত্র্য। গ্রামীণ চেকের হাফহাতা শার্টের ওপর বিভিন্ন প্রিন্ট, লেখা, কার্টুন আর ছবির ডিজাইন। প্রচলিত চেক ডিজাইনের টি-শার্টের পাশাপাশি বিভিন্ন রং, নকশার টি-শার্ট বিক্রি হচ্ছে।

এবারের মেয়েদের ফ্যাশনে থাকছে ক্রপটপ, ফ্লোরাল ফ্রক, স্কার্ট, ফতুয়া, পাতুয়া, টপস, টি-শার্ট, ঘাগরা-চোলি, সালোয়ার-কামিজ। নানা ডিজাইনের দেশি-বিদেশি টপস, প্যান্ট এসেছে ফ্যাশন হাউসগুলোতে। পশ্চিমা ধাঁচের নকশায় এসব পোশাক শিশুর জন্য বেশ মানানসই। দেখতেও বেশ আকর্ষণীয়। ছোট মেয়ে শিশুরা অনেক ক্ষেত্রে টি-শার্ট পরতে পছন্দ করে। এর সঙ্গে ফুল, হাফ এবং থ্রি কোয়ার্টার প্যান্ট। শিশুর শরীরের গড়ন আর শরীরের রং বুঝে পোশাক নির্বাচন করুন।

এ ছাড়া ছেলেদের পোশাকে থাকছে পাজামা-পাঞ্জাবি সেট। বাহারি ডিজাইন আর আরামদায়ক কাপড়ে তৈরি করা হয়েছে এসব পাজামা-পাঞ্জাবি। থাকছে চেক ও স্ট্রাইপের শার্ট, হুডেড শার্ট, ডেনিম প্যান্ট, জিন্স প্যান্ট ইত্যাদি। মজার মজার সব থিম নিয়ে শার্ট ও টি-শার্ট, ফতুয়া, হাফ, ফুল এবং থ্রি কোয়ার্টার প্যান্ট। জিন্স এবং গ্যাবাডিনের কাপড়ের প্যান্টই বেশি পছন্দ শিশুদের। কেউ কেউ আবার থ্রি কোয়ার্টার প্যান্টকে গুরুত্ব দিচ্ছে বেশি। এ ক্ষেত্রে এবার সুতি কাপড়ের প্রাধান্য রয়েছে।

শিশুর পোশাক মানেই উজ্জ্বল রঙের সমারোহ। এমনটাই দেখা যাচ্ছে বিভিন্ন ফ্যাশন হাউসগুলোতে। রঙের ক্ষেত্রে এবারের ঈদে ব্লু, মেজেন্টা, হলুদ, অরেঞ্জ, লাল, মেরুন, লেমন প্রাধান্য পাচ্ছে বেশি। যেহেতু গরমে ঈদ হচ্ছে তাই ম্যাটেরিয়েল হিসেবে সুতি কাপড় প্রাধান্য পাচ্ছে। সুতি ছাড়া কিছু হাতে বোনা কাপড়, অ্যান্ডি, শিফন ও সিল্কের ওপর করা হয়েছে এবারের শিশু পোশাক। ফ্রকের রঙের নকশার সঙ্গে রঙ মিলিয়ে করা হয়েছে লেগিংসগুলো। ফুল, ছাপা, লেইস আর হালকা এমব্রয়ডারি মিলিয়ে সেজে উঠেছে মেয়েদের নানা রকমের পোশাক।

কাপড়, ডিজাইন, মোটিভ আর দোকানের অবস্থানের ওপর নির্ভর করে শিশুদের পোশাকের দরদাম। সাধারণত ৬০০ টাকা থেকে শুরু করে ৪-৫ হাজার টাকায় কেনা যাবে শিশুদের রঙিন ঈদের পোশাকগুলো। মেয়েদের সুতির একসেট সালোয়ার-কামিজ পাওয়া যাবে ৬০০ থেকে আড়াই হাজার টাকার মধ্যে। সিল্ক, অ্যান্ডি, শিফন ও সিল্কের মেয়েদের পোশাকের দাম হবে ৩ থেকে ৬ হাজার টাকা। এক বছরের নিচে শিশুদের পোশাকের দাম ৩০০ থেকে ১ হাজার টাকা। আর ছেলেদের শার্ট, ফতুয়া, পাঞ্জাবি পাওয়া যাবে ৪০০ থেকে ২ হাজার টাকায়। আর একটু কম দামে শিশুর পোশাক কিনতে চাইলে ঘুরে আসতে পারেন গুলিস্তান, মোহাম্মদপুর কৃষি মার্কেট, মিরপুরের দোকানগুলোতে। এসব দোকানে ২৫০ টাকা থেকে শুরু করে ৫/৭শ টাকার মধ্যে শিশুদের নানা রকম পোশাক মিলবে।

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত
এই পাতার আরো খবর
up-arrow