Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ২৪ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপডেট : ২৩ জুন, ২০১৬ ২২:০০
ঈদ মানেই পাঞ্জাবি
ঈদ মানেই পাঞ্জাবি
মডেল : নিরব, ইমরান ও সোহেল সিরাজ পোশাক : ডিমান্ড ছবি : রুদ্র ইউসুফ

ঈদ মানেই উৎসব। আনন্দের মেলবন্ধন ঘটে সবার মাঝে। ঈদ উৎসবে পাঞ্জাবির আবেদন কখনই বুঝি ফুরাবে না। তাই ঈদ এলে ছোট ছেলে থেকে শুরু করে তরুণ কিংবা বয়স্ক সবারই পছন্দের পোশাক— পাঞ্জাবি। এ ছাড়া পাঞ্জাবি ছাড়া ঈদ উৎসবের অনেকটাই বুঝি বাকি রয়ে যায়। ঈদ ঘনিয়ে এলেই তরুণ প্রজন্মের মধ্যে আলাপচারিতার ধুম পড়ে যায় ঈদে কেমন পাঞ্জাবি কিনবে। প্রতি বছরই পোশাকে আসে নতুনত্ব। এবার কেমন পাঞ্জাবি ট্রেন্ড বাজারে থাকছে সেটাই জানাচ্ছেন—  ফেরদৌস আরা

 

ঈদ উৎসবে শামিল হতে সবাই উদগ্রীব হয়ে থাকে। তার প্রমাণ মেলে শপিংমলগুলোর দিকে তাকালে। ক্রেতারা এখনই ভিড় করতে শুরু করেছেন তার পছন্দের পোশাকটি বেছে নিতে। এ প্রস্তুতিতে পিছিয়ে নেই ছেলেরাও। প্রতিবারের মতো এবারও পাঞ্জাবি কেনার ঝোঁক রয়েছে। রমজানের এ সময়টাতে প্রতিটি শপিংমলে ক্রেতাদের ঢল নেমেছে। ঈদ এলে আর কিছু হোক না হোক নতুন পোশাক কিনতেই হবে। ঈদ বাজারের বড় অংশজুড়েই থাকে ছেলেদের ফ্যাশনেবল পোশাক পাঞ্জাবি। বর্তমান সময়ের ফ্যাশন হাউসগুলোতে এসেছে তরুণদের পছন্দের নানা রকম পাঞ্জাবির কালেকশন। বৈচিত্র্য যাই হোক না কেন আধুনিকতা থাকতেই হবে। আর দেশীয় ঐতিহ্যের পাঞ্জাবির সঙ্গে সঙ্গে বিদেশি হরেক রকমের পাঞ্জাবিতে বাজার সয়লাব। পাঞ্জাবি পুরুষের কাছে ঐতিহ্য আর পছন্দের পোশাক। এবার পাঞ্জাবির মূল বৈচিত্র্য ফুটে উঠেছে রঙে। এ ছাড়াও পাঞ্জাবিতে এবার থাকছে বিভিন্ন ধরনের নান্দনিক ডিজাইন।

 

তরুণদের জন্য এবার রংবেরঙের পাঞ্জাবি বাজারে এনেছে দেশীয় ফ্যাশন হাউসগুলো। এই বাহারি রঙের পাঞ্জাবিগুলো সবাইকে অনায়াসে মানিয়ে যায়। ঈদের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে পাঞ্জাবির ব্যবহারে রয়েছে ভিন্নতা। সেদিকে নজর রেখে পাঞ্জাবি কেনা বুদ্ধিমানের কাজ হবে। অনেকে আবার একটু বাড়িয়ে হিসেব কষে নেয়। কারণ তরুণরা বিয়ে বাড়ি, পার্টি, বেড়ানোসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানেও এই পাঞ্জাবি পরে। এই আকর্ষণীয় পোশাকটির ফ্যাশনে পিছিয়ে নেই শিশু ও বয়স্করাও। বয়স, রুচি ও ঐতিহ্য অনুসারে বেছে নিচ্ছেন নিজের পছন্দের পাঞ্জাবিটি।

 

ঈদকে কেন্দ্র করে ফ্যাশন হাউসগুলো কারুকার্যখচিত সুতি কাপড়ের বিভিন্ন পাঞ্জাবি ক্রেতাদের জন্য নিয়ে এসেছে। সুতির এসব পাঞ্জাবি বিভিন্ন রঙের ও ডিজাইনের হয়ে থাকে। এবারও সবচেয়ে বেশি চাহিদা থাকে হাতের কাজ করা পাঞ্জাবির। এ ছাড়াও এমব্রয়ডারি, কারচুপি, এপ্লিক ও কাঁথার নকশার ডিজাইনের বিভিন্ন সুতির পাঞ্জাবি ক্রেতাদের কাছে বেশ জনপ্রিয়। দেশি ফ্যাশন হাউসগুলোর পাশাপাশি পাঞ্জাবির বাজারে বিদেশি পাঞ্জাবিরও কদর রয়েছে। বিদেশি বিভিন্ন ধরনের বাহারি ডিজাইনের পাঞ্জাবিও থাকছে বড় বড় শপিং মলগুলোতে।

 

একটু ব্যতিক্রম লক্ষ্য করা যায় গ্রামীণ ঘরানার কিছু ডিজাইনে। ফ্যাশন হাউসগুলো পাঞ্জাবিতে নিয়ে এসেছে বৈচিত্র্য ও নতুনত্ব। শিল্পীর তুলির ছোঁয়ায়ও রাঙা হয়ে উঠছে কিছু পাঞ্জাবি। এর মধ্যে ব্লক ও স্ক্রিন প্রিন্টের মাধ্যমে প্রাকৃতিক দৃশ্যসহ বিভিন্ন রকম শৈল্পিক নকশার পাঞ্জাবি পাওয়া যাচ্ছে।

বর্তমান বাজারে লং পাঞ্জাবির সঙ্গে সঙ্গে ক্রেতাদের চাহিদা, রুচি ও ব্যবহারের সুবিধার জন্য শর্ট পাঞ্জাবিও পাওয়া যাচ্ছে। অনেকে ঈদ-পূর্ববর্তী দাম বাড়ার আশঙ্কায় এখনই ফ্যাশন হাউস ও বস্ত্রবিতানগুলোতে ছুটছেন পছন্দের পাঞ্জাবি কিনতে। এ প্রসঙ্গে ডিমান্ড এর কর্ণধার রাসেল মাহমুদ বলেন, ‘এবার হালকা কাজের আরামদায়ক, অর্থাৎ সুতির কাপড় বেশি চলছে। এ ছাড়াও ঋতুর সঙ্গে মিলিয়ে হালকা রঙের পাশাপাশি সবুজ, নীল, মেরুন রঙের বিভিন্ন শেড পরা যেতে পারে এই ঈদে। তবে গর্জিয়াস কাজ যাদের পছন্দ, তাদের ক্ষেত্রে ট্রেন্ডটা একটু আলাদা।’

 

প্রতিবারের মতো এবারও নতুন সব ডিজাইনের পাঞ্জাবি দেখা যাচ্ছে বিভিন্ন ফ্যাশনহাউসে। লাল, খয়েরি, কমলা, নীল, বেগুনি, সাদা, কালো, ছাই, হালকা সবুজ নানান রঙের পাঞ্জাবি পাওয়া যাচ্ছে। নতুন ডিজাইনের পাঞ্জাবির দাম নির্ভর করছে কাপড়ের ধরন ও কারুকাজের ওপর।

 

এবারের ঈদে পাঞ্জাবির কাপড়ের মধ্যে রয়েছে খাদি, মটকা, সুতি, রাজশাহী সিল্ক, আদি, মহিশুর সিল্ক, অ্যান্ডি সিল্ক, প্রিন্স সামসী, কুশান, কাসিস, খানশা, শাহাজাদা আদি, জয়শ্রী সিল্ক, অ্যান্ডি কটন, ইন্ডিয়ান সিল্ক, জাপানি ইউনিটিকা, তসর, সামু সিল্ক, ধুতিয়ান, ইন্ডিয়ান চিকেনসহ নানা ধরনের কাপড়।




সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত
এই পাতার আরো খবর
up-arrow