Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শুক্রবার, ১৫ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৪ জুলাই, ২০১৬ ২২:১৩
স্টাইলিশ তারুণ্য
স্টাইলিশ তারুণ্য
মডেল : কারার মাহমুদ - পোশাক : ইজি ছবি : মেহেদী.

নিজেকে পরিপাটি করে উপস্থাপন করতে চেষ্টার ত্রুটি থাকে না কারোই। আজকাল ফ্যাশন ট্রেন্ড দ্রুত পাল্টে যাচ্ছে। তার সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলছে ছেলেরাও। তাই বলে শার্ট-প্যান্ট, জুতা, ঘড়ি বা সানগ্লাসের যে রেগুলার কম্বিনেশন রয়েছে তাতে নতুনত্ব যোগ হলেও আবেদন কিন্তু মোটেই কমেনি। ক্যাজুয়াল আউটলুকের জয়জয়কার তরুণদের মাঝে। চলতি ফ্যাশন ট্রেন্ড ধরতে এই স্টাইলিশ তারুণ্যের ছোঁয়া সর্বত্র। জানাচ্ছেন— আবদুল কাদের

 

শার্ট : বিভিন্ন পরিবেশ ও উপলক্ষে শার্ট পরে যাওয়া যায় বলে শার্ট ছেলেদের কাছে বেশ পছন্দের একটি পোশাক। ক্যাজুয়াল আউটলুকের জন্য বিভিন্ন ডিজাইনের শার্ট রয়েছে বাজারে। এসব শার্টের রং ও চেকে যেমন বৈচিত্র্য রয়েছে তেমনি পরিবেশ বুঝে কাপড়েও পাবেন আরাম ও স্বাচ্ছন্দ্য। নিজ নিজ গায়ের রং অনুযায়ী পছন্দ মতো ফুল শার্ট পছন্দ করতে পারেন। হাফ শার্ট থেকে ছেলেদের ফুল শার্টে বেশি ভালো দেখা যায়। যারা নিয়মিত স্যুট পরেন তারা স্যুটের রঙের ওপর নির্ভর করে শার্ট পরবেন। স্যুট গাঢ় রঙের হলে শার্ট পরবেন হাল্কা রঙের। গরমের সময় স্যুট পরতে না চাইলে শর্ট শার্ট, ফতুয়া এবং জিন্স পরতে পারেন। তবে উজ্জ্বল রং পরার সময় পরিবেশটা মাথায় রাখা চাই।

টি-শার্ট : ছেলেদের ফ্যাশনের মধ্যে টি-শার্ট একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। তারুণ্যের উচ্ছ্বাস অনেকটাই ফুটে ওঠে বিভিন্ন টি-শার্টের ক্যানভাসে। রংয়ের পরিধিও বেশ টি-শার্টে। যখন কোথাও ঘুরতে যাবেন বা বিশেষ কারও সঙ্গে কিছু সময় কাটাতে পছন্দ করবেন তখন একটু দ্বিধায় পরে যান কী পরবেন। তখন ছেলেরা হুট করেই গায়ে তুলে নিতে পারেন টি-শার্ট।

জুতা : এখন স্যান্ডেলের ট্রেন্ড হিসেবে স্যান্ডেলের চলই বেশি। শার্টের সঙ্গে মিলিয়ে পরতে পারেন সামনের দিকে গোলাকার সু বা একটু চৌকানো সু। রং কালো বা হালকা মেরুন হতে পারে। পরতে পারেন বাহারি ডিজাইনের স্নিকার্সও।

বেল্ট : ছেলেদের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ হলো বেল্ট। বিশেষ করে যারা একটু ওয়েস্টার্ন লুকে নিজেদের ফুটিয়ে তুলতে চান তাদের ক্ষেত্রে বেল্ট কিংবা কোমরবন্ধনীটি স্মার্ট কিংবা স্টাইলিশ হওয়া বাঞ্ছনীয়। আর এ জাতীয় স্টাইলিশ বেল্টের জন্য ঢুঁ মারতে পারেন বিভিন্ন ফ্যাশন আউটলেটগুলোতে।   তাছাড়া বিভিন্ন শপিং মলেও মিলবে দেশি-বিদেশি বেল্ট।

 

টিপস

একই স্টাইল বেশি দিন ধারণ করবেন না। মাঝে মাঝে স্টাইল পরিবর্তন করুন। পোশাকের ধরনে, চুলের কাটে এবং দাড়ি গোঁফের কাটে পরিবর্তন আনুন মাঝে মাঝেই। এতে করে আপনাকে অনেকটাই ফ্যাশনেবল লাগবে।

 

হাতঘড়িতে ফুটিয়ে তুলুন ব্যক্তিত্ব

♦  আপনার ব্যক্তিত্ব ফুটে উঠবে এমন ঘড়ি বাছাই করুন। সে ক্ষেত্রে ব্র্যান্ড সচেতন ছেলেরা সব সময়ই ভালো ব্র্যান্ডের ঘড়ি কিনে থাকেন।

♦  বর্তমানে তরুণদের পছন্দের তুঙ্গে রয়েছে মোটা চেইন আর বড় ডায়ালের ঘড়ি। টিনএজাররা বরাবরই স্পোর্টস ঘড়ি পরতে বেশি পছন্দ করে।

♦  হাতের সঙ্গে মানানসই ঘড়িই সব সময় পরতে হবে, তাদের কাছে ব্যাপারটা ঠিক তেমন নয়। সেখানে চিকোন হাতে খুব ভারি ঘড়ি বা বেল্টের ঘড়ি স্থান করে নিতে পারে।

♦ চাকরিজীবী তরুণরা অবশ্যই নিজের চেহারা, সাজ, দৈহিক গঠনকে প্রাধান্য দেওয়া চাই।   সবকিছুর মধ্যে আবার বাছাই করা ব্র্যান্ড নিয়েও চলে সহকর্মীদের ভিতর নীরব প্রতিযোগিতা।

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত
এই পাতার আরো খবর
up-arrow