Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ৭ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৬ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:৪৭
কাঁধে রঙিন ব্যাগ
উম্মে হানি
কাঁধে রঙিন ব্যাগ
পোশাকের সঙ্গে মানানসই ব্যাগ পাল্টে দিতে পারে আপনার ফ্যাশন আউটলুক। ছবি : ফ্রাইডে

ফ্যাশনে মেলে রুচিবোধের পরিচয়। ব্যাগ তেমনি একটি আভিজাত্যের অনুষঙ্গ। পোশাক আর সাজের সঙ্গে মানানসই ব্যাগ আনে ফ্যাশনে ভিন্নমাত্রা। তরুণ-তরুণীরা অনেক ফ্যাশন সচেতন। ফ্যাশনে নতুনত্ব আনতে রকমারি বাহারি ব্যাগ প্রয়োজন তো পূরণ করবেই সঙ্গে ফ্যাশনেও আনবে আধুনিকতা।

 

ফ্যাশনে আধুনিকতা সবারই কাম্য। পোশাকের সঙ্গে ম্যাচ করে এক্সেসরিজ ফ্যাশনকে বাড়িয়ে দেয় কয়েকগুণ। মেয়েদের ক্ষেত্রে ফ্যাশনেবল ব্যাগের ব্যবহার এখন অনেক বেড়ে গেছে। একসময় মেয়েদের ফ্যাশনে কালো ব্যাগের একক আধিপত্য ছিল। কিন্তু সময়ের সঙ্গে সঙ্গে পাল্টে গেছে রীতি। এখন নির্দিষ্ট কোনো রং বা পরিসরে থেমে নেই ব্যাগের ব্যবহার। বর্ণিল ডিজাইন বাহারি রঙে বৈচিত্র্য এসেছে ব্যাগের ফ্যাশনে। বড়, ছোট বা মাঝারি সব ধরনের ব্যাগের চাহিদা রয়েছে ফ্যাশন সচেতন তরুণীদের মাঝে। শপিং মলগুলো ঘুরে দেখা যায়, ব্যাগের ধরনটা যেমনই হোক না কেন নকশা, আর কালার প্যাটার্নে রয়েছে বেশ নতুনত্ব। কোনো ব্যাগ চৌকোনা আকৃতির কোনোটা ত্রিভুজ আকারের আবার কোনোটা গোলাকার। মেসেঞ্জার টোটি, ন্যাপস্যাক নামে পরিচিত ব্যাগগুলোতে করেছে উজ্জ্বল রঙের ব্যবহার। ছোট ক্লাচ ব্যাগগুলোতেও পাথর আর পুঁতির ব্যবহারে আনা হচ্ছে বৈচিত্র্যতার ছোঁয়া। ইদানীং অনেক ব্যাগে আবার অ্যানিম্যাল প্রিন্টের ব্যবহারও লক্ষ্য করা যাচ্ছে। খ্যাতনামা আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ড যেমন : কোচ, মাইকেল করস, শ্যানেল ইত্যাদির রেপ্লিকা ব্যাগগুলোও বেশ জনপ্রিয় এখন। এ ছাড়া রঙের ক্ষেত্রে ম্যাজেন্ডা, হলুদ, গোলাপি, নীল, কালো, সবুজ, কমলা সব রংই চলছে বেশ। কালার ব্লক করানো ব্যাগগুলোও এখন বেশ জনপ্রিয়। লম্বা বেল্টের ক্রস ব্যাগগুলোই বেশি আরামদায়ক বলে মনে করেন অনেকে। চামড়ার তৈরি একটু বড় আকারের ব্যাগও ব্যবহারের দিক দিয়ে যথেষ্ট এগিয়ে। এ ধরনের ব্যাগগুলোতে চামড়ার ওপর পাথরের কাজ করা ডিজাইনের প্রচলনই বেশি। তবে এখনকার ট্রেন্ড অনুযায়ী বড় ও মাঝারি আকৃতির টোটি ব্যাগগুলোই বেশি ব্যবহূত হচ্ছে। এ ধরনের ব্যাগের আকার ও নকশার বৈচিত্র্যের কারণে কাজের জায়গার পাশাপশি বিভিন্ন উৎসব আমন্ত্রণে অনায়াসেই ব্যবহার করা যায়। ইদানীং ব্যাগের হাতল ছোট, বড় নানা আকারের হচ্ছে ফ্যাশনে বৈচিত্র্য আনার লক্ষ্যে।

 

নিউমার্কেট বা বসুন্ধরা শপিং মল ইত্যাদি জায়গা থেকেও কিনতে পারেন ব্যাগ। এ ছাড়া চাঁদনী চক মার্কেট ও গাউছিয়া সুপার মার্কেটে পাবেন নানা ডিজাইনের চামড়া, জামদানি, কাতান, সিল্ক, মখমলের তৈরি ব্যাগ।

আবার রাপা প্লাজা, মেট্রো শপিং মল, অরচার্ড পয়েন্ট, সীমান্ত স্কোয়ারও পেয়ে যেতে পারেন আপনার পছন্দের পার্টি ব্যাগ। এসব জায়গায় বটুয়ার দাম এক হাজার থেকে এক হাজার ৫০০ টাকা পর্যন্ত পড়বে। আড়ংয়ে পাবেন বিভিন্ন আকৃতির হলুদ, সবুজ, গোলাপি, লালের মতো বাহারি রঙের চামড়ার ব্যাগ। বাংলার মেলা, নগরদোলা, বিবিয়ানা, রঙ ও অঞ্জনস তৈরি করছে নান্দনিক নকশার পার্টি ব্যাগ। দেশিদশে পাবেন এসব হাল ফ্যাশনের পার্টি ব্যাগ। দাম পড়বে ৩২০-৬৫০ টাকা। ৩৮০-৫৫০ টাকায় কাঠের কারুকাজময় হাতলবিশিষ্ট ব্যাগও পাবেন এখানে। এ ছাড়া আজকাল বিভিন্ন অনলাইন শপেও পাওয়া যাচ্ছে পছন্দের কাঁধ ব্যাগ। অনলাইনে ব্যাগ পাওয়া যায় এমন ফেসবুক পেজও আছে অনেক যেখান থেকে অর্ডার দিতে পারেন ব্যাগের। ১২০০ থেকে ২০০০ টাকার মধ্যেই মিলবে অন্যান্য নকশার ব্যাগগুলো। পাশাপাশি এনভেলপ ক্লাচ ব্যাগগুলো পাবেন ১৩৯০ টাকায়।

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত
এই পাতার আরো খবর
up-arrow