Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২২:১১
বসন্তের সাজকাহন
ফেরদৌস আরা
বসন্তের সাজকাহন
► মডেল : দোয়েল ও সাবস্তি ► পোশাক : রঙ বাংলাদেশ

বসন্ত কড়া নাড়ছে দরজায়। প্রকৃতি সাজতে শুরু করেছে নতুন রূপে। বসন্তকে বরণ করে নিতে ফ্যাশনপ্রেমীরাও উন্মুখ। সাজ-পোশাকে বসন্তকে বরণ করে নিতে তাদের যেন আগ্রহের শেষ নেই। আপনিই বা সেই তালিকা থেকে বাদ যাবেন কেন। চলুন জেনে আসি বসন্তের সাজ পোশাক কেমন হবে...

 

বসন্ত মানেই রঙের ছড়াছড়ি। রং মানেই উৎসব। প্রকৃতিতে শীতের জীর্ণতা সরিয়ে এ সময় রঙের মেলা বসে। আর সেই মেলার পয়লা ফাল্গুনে বসন্তের হলদে ছোঁয়ার মতো বাঙালিও সাজে নতুন সাজে। প্রতি বছর বসন্ত আসে প্রকৃতিকে রঙের ভেলায় ভাসিয়ে দিতে। নারী মনে তখন ছুঁয়ে যায় বসন্তের হলদে ছোঁয়া। প্রকৃতির এই উৎসবে শামিল হতে কে না চায়! কোকিল পাখির মতো বাঙালিরাও সারা বছর ধরে নানা আশা-আকাঙ্ক্ষা, স্বপ্ন, আনন্দ বুনতে থাকে এই উৎসবকে ঘিরে। তাই তো ঋতুরাজ বসন্তকে নিয়ে বাঙালিদের এত সব আয়োজন। আয়োজন আর যাই হোক না কেন, পয়লা ফাল্গুনের দিনটিকে আলাদা দেখানো চাই চাই! শুধু নতুন জামাকাপড়ে কি সেটা সম্ভব? তার সঙ্গে সর্বাঙ্গ সাজিয়ে তোলাও তো জরুরি। বাঙালি নারী চায় ফুলেল সাজের এ সময়টায় নিজেকে প্রকৃতির সঙ্গে মিশিয়ে দিতে। এজন্য চাই সময়োপযোগী মেকআপ।

 

ওমেন্স ওয়ার্ল্ডের পরিচালক ও বিশিষ্ট রূপ বিশেষজ্ঞ ফারনাজ আলম জানান, বাসন্তী মেকআপের আদ্যোপান্ত। বাসন্তী সাজটি হওয়া চাই ন্যাচারাল। গর্জিয়াস লুক এ সময়টায় বেমানান। কিন্তু হালকা মেকআপ না থাকলেই নয়। রোদের তাপ থেকে বাঁচতে প্রথমেই মুখে সানস্ক্রিন লাগান। এবার বেইজ মেকআপ শুরু করুন। দিনে ফাউন্ডেশন এড়িয়ে চলুন। বেইজ মেকআপের জন্য বিবি ক্রিম বা টিন্টেড ময়েশ্চারাইজার লাগান। কনসিলার দিয়ে মুখের হালকা দাগগুলো ঢেকে দিতে পারেন। এপর ফেইস পাউডার দিয়ে ফিনিশিং টাচ দিয়ে মেকআপ শেষ করুন। চাইলে ব্লাশন লাগাতে পারেন। চোখের সাজের ব্রাউন, গোল্ডেন, কপার সোনালি বাদামি, লালচে সোনালি আইশ্যাডো ট্রাই করতে পারেন। চাইলে চোখে কাজল এবং মাশকারা লাগাতে পারেন।

পয়লা ফাল্গুনে যেহেতু সবাই ফুলের গয়নায় সাজে, তাই মেকআপটাও ন্যাচারাল হওয়া ভালো। চোখে কাজল, কপালে লাল টিপ। আইশ্যাডোতে হলুদ-বাদামি আর ঠোঁটে কমলা, লাল গোলাপি রঙের লিপস্টিক বেশ ভালো মানাবে। শাড়ির সঙ্গে মাথায় কিংবা কানে ফুলের গয়না গুঁজে দিলেও সাজের ষোলোআনা পূর্ণতা পাবে। চুল খোলা রাখতে চাইলে ব্লো ডাই, আয়রন বা স্পাইরাল রোল করে চুল ছেড়ে রাখতে পারেন। সঙ্গে চুলের এক পাশে তাজা ফুল গুঁজে দিতে পারেন। সামনে দুই পাশ থেকে চুল টুইস্ট করে টেনে পেছনে নিয়ে ক্লিপ দিয়ে আটকে নিতে পারেন। তবে বাসন্তী সাজে খোঁপা কিংবা বেণি করতে পারলে আরও ভালো। শাড়ি পরলে সঙ্গে চুলে খোঁপা বা বেণি করলে বেশি ভালো লাগে। গাঁদা বা বেলি ফুলের মালা দিয়ে জড়িয়ে নিন আপনার বেণিটি। আবার ছোট ছোট ফুল বসিয়ে দিতে পারেন পুরো বেণিতে। খোঁপা করলে একপাশে দিতে পারেন বড় একটি ফুল যেমন জারবেরা বা গোলাপ ইত্যাদি। আবার ফুলের মালা দিয়েও জড়িয়ে নিতে পারেন আপনার খোঁপাটি। সালোয়ার কামিজ পরলে পনিটেল অথবা চুল খুলে রাখতে পারেন। হাতে জড়াতে পারেন গাঁদা ফুলের মালা।

যেহেতু বসন্তের সাজ, ফুলের সৌরভের সঙ্গে হালকা গয়না না হলেই নয়। সালোয়ার-কামিজ, ফতুয়া, পাঞ্জাবির সঙ্গে মাটি, কাঠ কিংবা মেটালের দুল ট্রাই করুন। গলায় কিছু না পরাটাই ভালো। হাত ভরিয়ে দিন কাঠ, মাটি, মেটাল কিংবা কাচের রেশমি চুড়িতে। শাড়ি পরলে গলায় পরতে পারেন লম্বা পুঁতির মালা।

 

সব শেষে কপালে একটি লাল টিপ বা কুমকুম দিয়ে ডিজাইন করে টিপ এঁকে নিতে পারেন। ঠোঁটে দিন হালকা রঙের লিপস্টিক। সাজের সজীবতায় ব্যবহার করুন হালকা সুগন্ধি।

 

টিপস

 

► দীর্ঘক্ষণ মেকআপ ধরে রাখতে মেকআপের আগে মুখে একটু বরফ ঘষে নিন।

► আইশ্যাডো লাগানোর আগে চোখের নিচে পাউডার লাগান।

► হ্যান্ড ব্যাগে কমপ্যাক্ট পাউডার, টিস্যু পেপার, কাজল, চিরুনি এবং ছোট একটি আয়না রাখুন।

► চুল খোলা রাখলে ব্যাগে একটা পাঞ্চ ক্লিপ রাখুন।

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত
এই পাতার আরো খবর
up-arrow