Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : শুক্রবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২১:৪৬
রিবন্ডিং চুলের যত্ন
হেনা আজিম
রিবন্ডিং চুলের যত্ন
মডেল: সাফা ছবি: ফ্রাইডে

ভালো কোনো পারলার থেকে হয়তো রিবন্ডিং করিয়ে নিলেন। কিন্তু পরবর্তীতে প্রয়োজনীয় যত্নের অভাবে চুল হতে পারে রুক্ষ শুষ্ক।

শখের চুলগুলোর আগা ফেটে হতে পারে নিষ্প্রাণ। সৌন্দর্য হারাতে পারে অল্প দিনে। অথচ রিবন্ডিং চুল সঠিক নিয়মে যত্ন করলে দীর্ঘদিন পর্যন্ত চুল সোজা রাখা সম্ভব।

 

রেশম কোমল সিল্কি চুল যে কারও স্মার্ট লুক এনে দেয় অনায়াসে। দ্রুত যে কোনো স্টাইল করতেও সোজা চুল এগিয়ে। তাইতো স্টাইলটি তরুণীদের কাছে হয়ে উঠেছে খুব প্রিয়। কোঁকড়া বা হালকা ঢেউ খেলানো চুলের মেয়েরাও বঞ্চিত হতে চায় না এই লুক থেকে। কোঁকড়া চুলের একঘেয়ে স্টাইল থেকে বেরিয়ে ঝোঁক থাকে সোজা চুলের প্রতি। আর তখন রিবন্ডিং ছাড়া উপায় কি?

 

চুল রিবন্ডিং করানোর ফ্যাশনটি অনেক দিনের হলেও তরুণীদের কাছে এখনো এটি বেশ প্রিয়।

ভালো কোনো পার্লার থেকে হয়তো রিবন্ডিং করিয়ে নিলেন। কিন্তু পরবর্তীতে প্রয়োজনীয় যত্নের অভাবে চুল হতে পারে রুক্ষ শুষ্ক। শখের চুলগুলোর আগা ফেটে হতে পারে নিষ্প্রাণ। সৌন্দর্য হারাতে পারে অল্পদিনে। তাই আপনার সৌন্দর্যের অন্যতম অংশ চুলকে দীর্ঘদিন সোজা রাখতে মেনে চলুন কিছু নিয়ম।

 

— রিবন্ডিং করার ৩ দিন পর্যন্ত চুল শ্যাম্পু অথবা পানিতে ভেজানো যাবে না। এমনকি এ সময় কোনো প্যাক ব্যবহার করাও চুলের জন্য ক্ষতিকর।

— পারলার থেকে রিবন্ডিং করালেও ব্যবহূত পণ্যগুলো কোন ব্র্যান্ডের তা ভালো করে দেখে নিতে হবে। সম্ভব হলে পণ্যে ব্যবহূত উপাদানগুলো একবার দেখে নিন। আপনার অ্যালার্জি হবে এমন উপাদানের উপস্থিতি আছে জানলে তা এড়িয়ে যাওয়া ভালো।

— রোদ, বৃষ্টি, ঠাণ্ডা বাতাস থেকে চুলকে সুরক্ষিত করতে হবে। বাইরে বের হওয়ার সময় ছাতা, স্কার্ফ অথবা হ্যাট ব্যবহার করতে পারেন।

— রিবন্ডিং চুলে হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন। প্রাকৃতিকভাবে শুকিয়ে নিলে সৌন্দর্য বজায় থাকবে।

— চুলে যে কোনো প্রকার রাসায়নিক পদার্থ যেমন হেয়ার কালার, হাইলাইটিং অথবা অন্য কোনো রাসায়নিক পদার্থ দুই মাসের আগে ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকতে হবে। নইলে চুলের স্বাস্থ্যের ক্ষতি হতে পারে।

— চুল রিবন্ডিং করার পর কমপক্ষে দুই সপ্তাহ সুইমিং পুলে গোসল করা থেকে বিরত থাকুন। সুইমিং পুলের পানিতে থাকা ক্লোরিন চুলকে রুক্ষ করে তুলতে পারে।

— এ সময় চুল শ্যাম্পু করার পর অবশ্যই চুলে কন্ডিশনার লাগাতে হবে।

— সপ্তাহে অন্তত তিন দিন নিয়ম করে চুলে তেল লাগাবেন। এতে রিবন্ডিংয়ের হিটের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত চুল ঠিক হবে।

— চওড়া দাঁতের চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়ালে কম ছেঁড়ে। চুলের ওপর চাপও কম হয়।

— রিবন্ডিং চুলের উপযোগী শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে। নিয়মিত হেয়ার সিরাম ব্যবহার করলে চুল ভেঙে যাওয়া রোধ করবে।

এ ছাড়াও একটি হেয়ার প্যাক আপনার রিবন্ডিং চুলকে আরও প্রাণবন্ত করতে সহায়ক হবে। সেজন্য এক কাপ মুলতানি মাটির সঙ্গে একটি ডিমের সাদা অংশ, দুই চামচ চালের গুঁড়ো আর পানি মেশান। মিশ্রণটি পাতলা করে সব চুলে লাগিয়ে নিন। মোটা দাঁতের চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়ালে সব চুলে ভালোভাবে লাগবে। এভাবে আধাঘণ্টা রেখে উপযুক্ত শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। চুলের সৌন্দর্য ধরে রাখতে সপ্তাহে ২ থেকে ৩ বার প্যাকটি ব্যবহার করতে পারেন। রিবন্ডিং চুলকে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল করতে মুলতানি এই প্যাকের জুড়ি নেই।

এই পাতার আরো খবর
সর্বাধিক পঠিত
up-arrow