Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : শুক্রবার, ৩ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ২ মার্চ, ২০১৭ ২১:৩৫
ঘর সাজাতে ফুলদানি
রচি জামান
ঘর সাজাতে ফুলদানি
মডেল: শ্রাবন্তী রহমান ছবি: ফ্রাইডে

ঘরের সৌন্দর্যে প্রয়োজনীয় আসবাবের গুরুত্ব তো রয়েছেই সঙ্গে সুন্দর সেই ঘরের পরিবেশকে মোহনীয় করে তুলতে চাই সুগন্ধি ফুল। সেই ফুলকে ধারণ করতে দরকার দৃষ্টিনন্দন ফুলদানি।

ফুলের সৌন্দর্য মূলত ফুটে ওঠে নকশাদার ফুলদানিতে। ফুল আর ফুলদানির রঙের সমন্বয় ঘটাতে পারলে তো কথাই নেই। ঘর হয়ে উঠবে একদম ফিট। ঘরের কোণ, শোকেসের ওপরে ফাঁকা জায়গা, টিভির ওপর, ড্রেসিং টেবিলের ওপর বা বেডসাইড টেবিলে রাখতে পারেন মনের মতো ডিজাইনের ফুলদানি। ফুলের ঘ্রাণ বেশি নিতে চাইলে বিছানার কাছেই রাখতে পারেন। মনে রাখবেন, যেখানেই ফুলদানি রাখুন না কেন, ঠিক মানিয়ে যাবে। ফুল নির্বাচনের ক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত পুরোটাই আপনার। ঘ্রাণের কথা চিন্তা করলে সাদা ফুল বেশি প্রাধান্য পাবে। রং আর সৌন্দর্যের কথা চিন্তা করলে বাহারি নানা জাতের ফুল প্রাধান্য পেতে পারে। শুধু ফুল রাখার পাত্র হিসেবেই নয়, শোপিস হিসেবেও ফুলদানির থাকে সমান কদর। ক্রেতাদের বিচিত্র রুচির প্রতি খেয়াল রেখে বিক্রেতারা দোকানে রাখেন রকমারি সব ফুলদানি। দেশি ফুলদানির পাশাপাশি চাইনিজ, জাপানিজ, থাই, ইরানি ও ইন্ডিয়ান ফুলদানিও জায়গা করে নিয়েছে। বাজারে একটু ঘুরলে বাঁশ, কাঠ, বেত, মাটি থেকে শুরু করে সিরামিক, ক্রিস্টাল, কাচ, শক্ত প্লাস্টিক, ফাইবারসহ সব উপাদানের তৈরি ফুলদানি পাওয়া যাবে। ছোট, মাঝারি কিংবা বড় তিন উচ্চতার ফুলদানি বাজারে পাবেন। ত্রিভুজ, চৌকোণা, সিলিন্ডার বা ডিম্বাকৃতির ফুলদানি আছে রুচির ভিন্নতা দেখাতে। তবে অন্দর সজ্জায় মেঝেতে ফুলদানি রাখতে চাইলে সেটা বড় এবং টেবিলে রাখতে চাইলে মাঝারি কিংবা ছোট হওয়াই উচিত। ঘরে দেশীয় আমেজের জন্য মাটির ফুলদানি বেস্ট অপশন। কিছু ফুলদানিতে ঘড়ি কিংবা পেনহোল্ডার লাগানো, কোনোটা দেয়ালে ঝুলানো, আবার কোনোটা টেবিল ল্যাম্প সেট করা আছে। ফুলদানির এমন বৈশিষ্ট্যই ক্রেতাকে আকৃষ্ট করে।

এই পাতার আরো খবর
সর্বাধিক পঠিত
up-arrow