Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২২:১৮
এখন আরামের পোশাক
গরমে কৃত্রিম তন্তুর তৈরি পোশাকগুলো একেবারেই বেমানান। তাই তো মেয়েদের এ সময়ের প্রথম পছন্দ সুতি পোশাক। গরমের অস্বস্তি থেকে বাঁচতে সুতির বিকল্প নেই। সাদা এই সময়ের আদর্শ হলেও হালকা রঙিন পোশাকগুলোও বেছে নিচ্ছে অনেকেই...
এখন আরামের পোশাক
মডেল : মুমতাহিনা চৌধুরী (টয়া)

এই গরমে কেমন পোশাকে আরাম হবে তা নিয়ে একটু আধটু মাথাব্যথা থাকতেই পারে ফ্যাশনেবল তারুণ্যের। উদ্দেশ্য এক- গরমের আরামে চাই সঠিক পোশাক।

 

শরতের কড়া রোদে যেখানেই যান বা যার সঙ্গেই কথা বলুন, সবার মুখে একই বচন, উফ! কী গরম! কিন্তু তাই বলে তো কাজকর্ম থেমে নেই। কিন্তু এই গরমে কেমন পোশাকে আরাম হবে তা নিয়ে একটু আধটু মাথাব্যথা থাকতেই পারে ফ্যাশনেবল তারুণ্যের। উদ্দেশ্য এক- এই গরমে আরামের জন্য চাই সঠিক পোশাক, যা হতে হবে একদিকে ট্রেন্ডি এবং আরামদায়ক।

 

কেমন হবে গরমের পোশাক

ফ্যাশনে গরমের আরাম আর আভিজাত্য বজায় রেখে তরুণীদের পছন্দের তালিকায় বরাবরই শীর্ষে আছে সুতি পোশাক। সুতি পোশাক সহজে ঘাম শুষে নেয়। প্রাকৃতিক তন্তুর তৈরি বলে মসৃণও হয়। তাই এখন সুতি পোশাক পরিধানের পরামর্শ দিচ্ছেন ফ্যাশন বোদ্ধারা। তবে খুব বেশি চাকচিক্যময় পোশাক নয়, সাদামাটা সুতি পোশাক বেছে নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন ডিজাইনাররা। এ সময় কৃত্রিম তন্তুর পোশাক এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিচ্ছেন আবার কেউ কেউ। কেননা, এ ধরনের কাপড়গুলো ঘাম শুষে নিতে পারে না। ফলে পোশাকটা শরীরে লেগে থাকে এবং যা অস্বস্তি তো বটেই, দৃষ্টিকটুও।

 

কুর্তি-কামিজে গরমের আরাম

এ সময় মেয়েদের পছন্দ সুতি কাপড়ের পোশাক। সেটা সালোয়ার-কামিজ, কুর্তি বা ফতুয়া যা-ই হোক না কেন। তবে পোশাকটা যদি কামিজ হয় তাহলে সঙ্গে মানানসই রং ও ডিজাইনের সালোয়ার ও ওড়না। প্রচণ্ড গরমের কারণে আরামদায়ক কুর্তা ও ফতুয়ার প্রতিও ঝুঁকছে অনেক তরুণী। জিন্সের সঙ্গে মানানসই পোশাকগুলো হতে পারে বিকালের আদর্শ। এ সময় পালাজো, লং কুর্তি, কিংবা ঢিলেঢালা কাটের পোশাকও জড়িয়ে নিচ্ছে তরুণীরা। দিনের বেলা তো বটেই, রাতের আয়োজনে নিজের পোশাকে ভিন্নতা আনতে এমন পোশাক দারুণ। এ ছাড়াও শাড়ি পরতে চাইলে সুতি শাড়িও হতে পারে এই গরমের আদর্শ পোশাক।

 

ট্রেন্ডি কাটছাঁটে সুতি পোশাক

গরমের পোশাকে এসেছে নানা বৈচিত্র্য। তরুণীরা পছন্দ মতো বেছে নিচ্ছে হাতা কাটা, ছোট হাতা এমনকি ম্যাগি হাতার কুর্তি-কামিজ। উঁচু গলার কাজকে পেছনে ফেলে এখন বেশি চলছে চারকোণা, পানপাতা ও ভি-আকৃতির গলা। আর পোশাকগুলোয় করা হয়েছে ব্লক, কারচুপি, অ্যাপ্লিক, ভরাট অ্যাপ্লিক ও অ্যামব্রয়ডারির কাজ। লম্বা কাটিংয়ের কুর্তি-কামিজের পরিবর্তে এখন বেশি চলছে  মাঝারি কাটিংয়ের কুর্তি-কামিজ।

 

কেমন হবে গরমের রং

গরমে পোশাক নির্বাচনের ক্ষেত্রে মেয়েরা সাদা, হালকা গোলাপি, হালকা বেগুনি, হালকা নীল, বাদামি, আকাশি, হালকা হলুদ, ধূসরসহ হালকা রঙের পোশাকগুলো বেছে নেন। ফ্যাশন ডিজাইনাররাও এ সময় হালকা রঙের পোশাক পরিধানের ওপর প্রাধান্য দেন বেশি। আসলে গরমে সাদা ও অন্যান্য হালকা রঙের পোশাক শুধু তাপ শোষণই করে না, সেই সঙ্গে চোখকে দেয় প্রশান্তি। গরমে গাঢ় রং এড়িয়ে চলাই শ্রেয়।

এই পাতার আরো খবর
সর্বাধিক পঠিত
up-arrow