Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২৯ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১২:৪৬ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২৯ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১২:৪৭
ব্যায়াম ছাড়াই স্বাস্থ্য ভাল রাখার উপায়
অনলাইন ডেস্ক
ব্যায়াম ছাড়াই স্বাস্থ্য ভাল রাখার উপায়

স্বাস্থ্য ভাল রাখতে আমরা অনেক কিছুই ভেবে থাকি। এজন্য কেউ যোগব্যায়াম, কেউ বা হাঁটাহাঁটি আবার করার কথা চিন্তা করেন। আবার কেউ কেউ খাদ্য তালিকার শর্করা ও চর্বি জাতীয় খাবার নিয়ন্ত্রণ করে স্বাস্থ্য সুরক্ষার পথে বেছে নেন।

তবে এর বাইরেও খুব সহজে স্বাস্থ্য ভাল রাখা যায়। নিচে এমন কয়েকটি বিষয় তুলে ধরা হলো:

১. মনের ইচ্ছের দিকে নজর দিন

মানুষ সারাক্ষণ দেহের সুস্থতা নিয়ে ভাবে। আর এটি সহজও বটে। কিন্তু ব্রিটেনের এক্সেটার বিশ্ববিদ্যালয়ের স্পোর্টস ও এক্সারসাইজ বিষয়ক শিক্ষক ড. নেডাইন স্যামি বলেছেন, আমাদের নিজেদের মনের ওপরে বিশেষ খেয়াল দেয়া দরকার।

তার মতে, আত্ম-সচেতনতা বাড়িয়ে মনের উপরে আমাদের নিয়ন্ত্রণ বাড়ানো সম্ভব।

ড. স্যামি বলছিলেন, আত্ম-সচেতনতা এমন এক জিনিষ যা মানুষকে তার নিজের আবেগ, অনুভূতি ও ইচ্ছা-অনিচ্ছা অনেক নিবিড়ভাবে চিনতে সহায়তা করে।

 ২. কুকুর পুষতে পারেন

শারীরিকভাবে কর্মক্ষম থাকতে জিমে যাওয়া বা ভোরে দৌড়ানোর চেয়েও আপনাকে আরো বেশি কাজে কায়িক পরিশ্রমে ব্যস্ত করে রাখবে পোষা কুকুর।

এবারিস্টউইথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাইকোলজি বিভাগের শিক্ষক ড. রিস থেচার বলছিলেন, জিম হয়তো কারো কারো জন্য একটা ভালো সমাধান হতে পারে। কিন্তু তা সবার জন্য নয়।

৩. সপ্তাহে ৩০ পদের সবজি-ফল

লন্ডন কিংস কলেজের একজন গবেষণা ফেলো ড. মেগান রসি বলছিলেন, শুধু বেশি করে সবজি ও ফল-ফলাদি খেলেই হবে না। এর মধ্যে বিভিন্ন জাতের ভিন্নতাও থাকা জরুরি দরকার।

ড. রসির মতে, প্রতি সপ্তাহে সব পদ মিলেয়ে যদি ভিন্ন-ভিন্ন ৩০ পদের সবজি ও ফল-ফলাদি খাওয়া যায় তবে তা স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ভালো।

৪. বেশি করে হাসুন

ড. জেমস গিল বলছেন, মানুষের উচিত সুখী হওয়ার চেষ্টা করা। এখন আপনার মনে নিশ্চয়ই প্রশ্ন আসতে পারে যে, সুখী হওয়া কি আর চাট্টিখানি কথা? নাকি চাইলেই সুখী হওয়া যায়?

এক্ষেত্রে ড. গিলের উত্তর হচ্ছে, সহজেই সুখী হওয়া যায়। সুখী থাকার সহজ উপায় হিসেবে বেশি করে হাসার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

৫. পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমান

হ্যাঁ, পর্যাপ্ত ঘুমের কথাই বলা হয়েছে। একজন পরিণত বয়সের মানুষের রাতে গড়ে দৈনিক ৭ থেকে ৯ ঘণ্টা ঘুম দরকার।

কিন্তু একটানা যদি ঘুমের ঘাটতি চলতে থাকে তবে শরীরের উপরে এর খুব নেতিবাচক প্রভাব পড়ে।

সূত্র: বিবিসি বাংলা

বিডি প্রতিদিন/কালাম

আপনার মন্তব্য

up-arrow