Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শনিবার, ১১ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপডেট : ১০ জুন, ২০১৬ ২৩:১৩
জেনে রাখা ভালো
জেনে রাখা ভালো

একটানা ভুল অবস্থাগত কম্পিউটিংয়ের ফলে ঘাড়ের মাংসপেশি ও লিগামেন্টে প্রচণ্ড চাপ পড়ে। পাশাপাশি কী বোর্ডে হাতের অবস্থান ঠিকমতো না বসলেও বসার চেয়ারের বেক সাপোর্ট, চোখ ও মনিটরের অসামঞ্জস্য অবস্থানের ফলে নানা সমস্যা দেখা দেয়। অনেক ক্ষেত্রে ব্যথা তীব্র থেকে তীব্রতরও হতে পারে। যাদের এ জাতীয় সমস্যা ইদানীং দেখা দিয়েছে তারা একজন ফিজিক্যাল থেরাপি বিশেষজ্ঞের চিকিৎসা ও পরামর্শ গ্রহণ করতে পারেন। আর যাদের এখনো সমস্যা দেখা দেয়নি তারা নিচের টিপস পালন করুন : ১. আপনার চোখ কম্পিউটারের মনিটরের মধ্যবিন্দু একই রেখায় আছে কিনা, না থাকলে টেবিলে মনিটর উঁচু-নিচু করে অবস্থান ঠিক করে নিতে পারেন। ২. কী-বোর্ড ব্যবহারের সময় হাতের কনুই ৯০ ডিগ্রি আছে কিনা এবং কী-বোর্ডের সামনের অংশ একটু উঁচু কিনা যা হাতের কব্জিকে ১৫ ডিগ্রি এক্সটেনশন করতে সাহায্য করে।  ৩. কম্পিউটিং করার সময় চেয়ারে পেছনে ঠেস দিয়ে বসুন ও যথাসম্ভব টেবিলের কাছে চেয়ারটাকে টেনে কাজ করেন। ৪. চেয়ার রিভলভিং হলে ভালো হয়। এতে কাজের ফাঁকে আপনি একটু এদিক-ওদিক করে নিজেকে রিল্যাক্স বা স্ট্রেসিং করার সুযোগ পাবেন। ৫. এক ঘণ্টার ওপর কম্পিউটিং থেকে বিরত থাকুন। কাজের ফাঁকে অফিসে একটু হেঁটে বেড়িয়ে আসুন। ৬. কাজের ফাঁকে ফাঁকে ব্যায়াম করতে পারেন। তবে অবশ্যই একজন ফিজিও থেরাপি বিশেষজ্ঞের নির্দেশ মতে হতে হবে।

ডা. সফিউল্যাহ্ প্রধান, চেয়ারম্যান ডিপিআরসি হাসপাতাল, ঢাকা।

ফোন: ০১৯৮৯০০০২২২




up-arrow