Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : শনিবার, ২৩ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৩ জুলাই, ২০১৬ ০০:১৫
হঠাৎ রক্তচাপ বৃদ্ধি পেলে...
হঠাৎ রক্তচাপ বৃদ্ধি পেলে...

মস্তিষ্কের সিদ্ধান্ত গ্রহণের ফলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে নার্ভ সিগন্যাল সারা শরীরে মুহূর্তের মধ্যে পৌঁছে গিয়ে সর্বাঙ্গের শক্তি বৃদ্ধির নির্দেশ প্রদান করে। ফলশ্রুতিতে এক ধরনের হরমোন শরীরের বিভিন্ন স্থান থেকে প্রয়োজনীয় পরিমাণে নির্গত হয়ে থাকে।

এই হরমোনের নাম এড্রিনালিন। এই এড্রিনালিন হার্টের ওপর কাজ করে হার্টের শক্তি বৃদ্ধি ও গতি বৃদ্ধি করে। অধিক পরিমাণে বা অন্যভাবে বলতে গেলে রক্ত সরবরাহ বহুগুণে বৃদ্ধি করে, ফলশ্রুতিতে রক্তচাপও বৃদ্ধি পায়। রক্তচাপ বৃদ্ধির ফলে প্রয়োজনীয় অঙ্গসমূহ অধিক পরিমাণে রক্ত সরবরাহ করে শারীরিক কর্মকাণ্ড সাধনে প্রয়োজনীয় অক্সিজেন ও রসদ সরবরাহ করে থাকে। সুতরাং দেখা যাচ্ছে যে, মানব হৃৎপিণ্ড এড্রিনালিনের প্রভাবে রক্তচাপ ও রক্তপ্রবাহ বৃদ্ধি করে থাকে। কোনো কারণে উত্তেজিত হলে, অত্যধিক পরিশ্রমের কাজ করলে, দুশ্চিন্তাগ্রস্ত হলে, হঠাৎ কোনো ভয়াবহ পরিবেশে পতিত হলে মুহূর্তের মধ্যে এড্রিনালিন ও তার সহযোগী অন্যান্য হরমোনের প্রভাবে রক্তচাপ বৃদ্ধি পেয়ে থাকে। বিশ্রামকালীন হার্ট বিশ্রামের জন্য প্রয়োজনীয় পরিমাণ (সর্বনিম্ন পরিমাণ) রক্ত সরবরাহ করে থাকে এবং রক্তচাপও সর্বনিম্ন পর্যায়ে বিদ্যমান থাকে। এক্ষেত্রে সুস্থ ব্যক্তিদের গড়পড়তায় রক্তচাপ ১২০/৭০ মিঃমিঃ হয়ে থাকে, এই ব্যক্তির শারীরিক প্রয়োজনে রক্ত সরবরাহ বৃদ্ধির জন্য রক্তচাপ সর্বোচ্চ দ্বিগুণ পরিমাণ বৃদ্ধির প্রয়োজন হতে পারে। মানে অতি পরিশ্রমকালীন রক্তচাপ দ্বিগুণের মতো হতে পারে মানে ২৪০/১৪০ মিঃমিঃ। তবে যদি ওই ব্যক্তির বিশ্রামকালীন ১৬০/১০০ হয়ে থাকে তবে শারীরিক প্রয়োজনে রক্ত সরবরাহ বৃদ্ধির নিমিত্তে তার রক্তচাপও দ্বিগুণ হওয়ার প্রয়োজন হয়ে থাকে মানে তার রক্তচাপ বৃদ্ধি পেয়ে ৩২০/২০০ মিঃমিঃ হতে হয়, তা অবশ্যই বিপজ্জনক। রক্তচাপ অত্যধিক বৃদ্ধির ফলে ছোট এবং দুর্বল রক্তনালি ফেটে-ছিঁড়ে যেতে পারে। ফলশ্রুতিতে স্ট্রোক, হার্ট অ্যাটাক, কিডনির সমস্যা ও অঙ্গে রক্ত সরবরাহজনিত অসুস্থতা দেখা দিতে পারে এবং মানুষ অন্ধ বা বাকরোধের মতো দুর্ঘটনায় পতিত হতে পারে। যে কোনো ধরনের অস্বস্তি, উত্তেজনা, মাথা ও ঘাড় ব্যথা হলে বা অজ্ঞানের মতো হওয়া বা শারীরিক ভারসাম্য নষ্ট হয়ে গেলে বা মাথা ঘোরাতে থাকলে,  বমি ভাব বা বমি করলে, শরীর অত্যধিক ঘামতে থাকলে রক্তচাপ পরিমাপ করা দরকার। অত্যধিক রক্তচাপ বৃদ্ধির কারণে এ ধরনের শারীরিক অবস্থার সৃষ্টি হতে পারে। এ সময়ে রক্তচাপের পরিমাপ করে যদি ২০০/১০০ অথবা তার চেয়েও অধিক মাত্রায় পাওয়া যায় তবে তাত্ক্ষণিক কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে দুর্ঘটনা থেকে পরিত্রাণ পাওয়া যেতে পারে। আক্রান্ত ব্যক্তিকে সঙ্গে সঙ্গে বিশ্রাম গ্রহণের ব্যবস্থা করতে হবে, তার জন্য বিশ্রামের অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে। নিরাপদ মেডিসিন যেমন Lasix tab অথবা Injection ব্যবহার করা যেতে পারে, তাতে রক্তচাপ সাময়িকভাবে কমতে থাকে। তাতেও কাজ না হলে প্রয়োজনে দ্রুত কোনো অভিজ্ঞ চিকিৎসকের অথবা হাসপাতালের শরণাপণ্য হতে হবে। যারা উচ্চরক্তচাপের জন্য যেসব মেডিসিন গ্রহণ করছেন, তাদের মেডিসিনের মাত্রা বৃদ্ধি করা যেতে পারে। তবে অবশ্যই তা চিকিৎসকের পরামর্শক্রমে।

ডা. এম শমশের আলী, সিনিয়র কনসালট্যান্ট (কার্ডিওলজি) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং মুন ডায়াগনস্টিক সেন্টার, শ্যামলী, ঢাকা।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow