Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:৫৮
অপারেশন-পরবর্তী এডহিসন

এডহিসন বা জোড়া লেগে যাওয়া এমন একটি জটিলতা যা পেটের অপারেশন চলাকালীন সার্জারিজনিত প্রদাহ থেকে অপারেশন পরবর্তী ১-৭ দিনের মধ্যে ঘটে থাকে। এক্ষেত্রে শরীরের অপারেশনের স্থান এবং পার্শ্ববর্তী টিস্যুর মধ্যে ফাইব্রাস বেন্ড তৈরি হয়, যা থেকে ওই দুই স্থানে জোড়া লেগে যায় বা এডহিসন ঘটে।

জেনে রাখা উচিত, বিশ্বে শতকরা ৬৭-৯৩ ভাগ রোগী, যারা পেটের সার্জারিজনিত অপারেশনে গেছেন, তাদের এডহিসন সম্পর্কিত জটিলতার মুখোমুখি হতে হয়েছে।

এডহিসনের কারণ—

রোগ সংক্রান্ত কারণ : ১. রোগ সংক্রমণ ২. প্রদাহ ৩. অপারেশন চলাকালীন রক্তের উপস্থিতি ৪. দেহের অংশ বিশেষে রক্ত স্বল্পতা।

সার্জারি সম্পর্কিত কারণ : টিস্যু প্রদাহ, ইলেক্ট্রোসার্জারি, ফরেন বডি।

থেরাপি সংক্রান্ত কারণ : ১. ইন্ট্রাপেরোটনিয়াল কেমো-থেরাপি  ২. রেডিয়েশন থেরাপি।

এডহিসন সংক্রান্ত জটিলতা : ১. ক্ষুদ্রান্ত্রে প্রতিবন্ধকতা ২. বন্ধ্যত্ব ৩. দীর্ঘমেয়াদি তলপেটে ব্যথা ৪. পুনরায় অপারেশনের ক্ষেত্রে জটিলতা ৫. রেডিয়েশন

থেরাপির ক্ষেত্রে জটিলতা।

এডহিসন প্রতিরোধ : এডহিসন ব্যারিয়ার যখন অপারেশন চলার সময়ে পেটের বিভিন্ন অঙ্গ এবং পেটের অভ্যন্তরীণ পেরাইটাল পর্দার মাঝে স্থাপন করা হয়, তখন তা কিছুদিন অবস্থান করে তাদের মধ্যে ব্যারিয়ার বা প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে। যার কারণে পেটের অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন অঙ্গ ও পেটের পর্দার সঙ্গে এডহিসন হয় না। এতে করে পরবর্তীতে পুনরায় অপারেশনে অপারেটিভ এরিয়া পর্যন্ত যেতে সময় কম লাগে এবং এডহিসনের জন্য অপারেশন চলাকালীন ক্ষেত্রে যে দীর্ঘ সময় লাগে, সে সময় কমে আসে।   রোগীর ঝুঁকিপূর্ণ অপারেশনের সম্ভাবনা কমে।

এছাড়া অপারেশন পরবর্তী যে বিভিন্ন জটিলতা আগে আলোচনা করা হয়েছে, যেমন বন্ধ্যত্ব, ক্ষুদ্রান্ত্রে প্রতিবন্ধকতা তাও বহুলাংশে কমে যায়।

ডা. এমএস মলি, এইচএমও,

ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, ঢাকা।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow