Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:৪৮
কফের সঙ্গে রক্ত মানেই যক্ষ্মা নয়
অধ্যাপক ডা. একেএম মোস্তফা হোসেন
কফের সঙ্গে রক্ত মানেই যক্ষ্মা নয়

আমাদের দেশের অধিকাংশ লোকের মনে একটি ভ্রান্ত ধারণা রয়েছে যে, কফ বা কাশির সঙ্গে রক্ত গেলেই বুঝি তা যক্ষ্মা বা টিবি। ব্যাপারটি আসলে সঠিক নয়।

কারণ যক্ষ্মা ছাড়াও মানুষের দেহের অন্যান্য ব্যাধির কারণেও কফের সঙ্গে রক্ত  যেতে পারে। যেসব রোগের কারণে কাশি বা কফের সঙ্গে রক্ত  যেতে পারে তা হলো ফুসফুসে যক্ষ্মা, ফুসফুসের ক্যান্সার, ফুসফুসের দীর্ঘস্থায়ী ফোঁড়া, ব্রঙ্কাইটিস, নিউমোনিয়া পালমোনারি ইনফার্কশন, হার্টের বাল্বজনিত রোগ ইত্যাদি। এসব ব্যাধির ধ্যে ফুসফুসের যক্ষ্মা বা টিবিজনিত রোগের কারণে রোগীর কফের সঙ্গে রক্ত নির্গত হওয়ার সম্ভাবনা  বেশি। আমাদের দেশসহ সারা বিশ্বে ফুসফুসের ক্যান্সার একটি জটিল ব্যাধি। এ রোগের একটি উল্লেখযোগ্য লক্ষণ হচ্ছে কফ এবং কাশির সঙ্গে রক্ত যাওয়া। যক্ষ্মা এবং ফুসফুসের ক্যান্সার উভয় রোগের ক্ষেত্রেই কফের সঙ্গে রক্ত নির্গত হলেও এদের মধ্যে কিছু বৈশিষ্ট্য রয়েছে। যেমন- একজন যক্ষ্মা রোগীর কাশির সঙ্গে একসঙ্গে অনেক রক্তপাত হয়। কিন্তু ফুসফুসে ক্যান্সার রোগীর কফ বা কাশির সঙ্গে একসঙ্গে অনেক রক্ত বের হয় না। এসব রোগীর কাশির সঙ্গে থেকে থেকে অর্থাৎ কিছু কিছু পরিমাণ রক্তপাত হয়। ধূমপায়ী ব্যক্তিরা প্রধানত এ রোগে আক্রান্ত হন বেশি। অন্যদিকে যক্ষ্মা হচ্ছে একটি জীবাণুনির্ভর ব্যাধি। যক্ষ্মা এবং ফুসফুসের ক্যান্সার ছাড়াও কফ বা কাশির সঙ্গে রক্তপাত হতে পারে এমন একটি ব্যাধি হচ্ছে ব্রঙ্কাইটিস। এ রোগের ফলে ফুসফুসের কোনো স্থানের গঠনাকৃতি পরিবর্তিত হওয়ায়, শ্বাসনালির আকারও পরিবর্তিত হয়ে অস্বাভাবিকভাবে ফুলে যায় এবং অকার্যকর হয়ে পড়ে। ব্রঙ্কাইটিস এবং যক্ষ্মার উপসর্গের মধ্যে অনেক মিল রয়েছে। ব্রঙ্কাইটিসের উপসর্গগুলো হচ্ছে-  রোগীর কফ বা কাশির সঙ্গে প্রচুর রক্ত নির্গত হওয়া, গায়ে জ্বর থাকা ও কফ পেকে হলুদ হওয়া এবং কফে প্রচণ্ড দুর্গন্ধ হওয়া। এ ব্যাধির কারণগুলো হচ্ছে- অত্যাধিক ধূমপান করা, সিস্টিক ফাইব্রোসিস ও সাইনুসাইটিস। কোনো কোনো রোগ যেমন- নিউমোনিয়া, হাম, যক্ষ্মা, হুপিংকপ ইত্যাদি ব্যাধির অপর্যাপ্ত চিকিৎসার কারণেও ধীরে ধীরে তা ব্রঙ্কাইটিসে রূপ নেয়। ফুসফুসে দীর্ঘস্থায়ী ফোঁড়ার কারণেও যক্ষ্মা রোগীর মতো কফের সঙ্গে রক্তপাত হয়, কফ পেকে যায় এবং জ্বর জ্বর ভাব থাকে। হার্টের ভাল্বের সমস্যা হলেও কফের সঙ্গে রক্ত যেতে পারে। তাই কাশির সঙ্গে রক্ত গেলেই যক্ষ্মা বা টিবি ভেবে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। যদি কোনো ব্যক্তির কফের সঙ্গে রক্ত নিঃসৃত হয় তবে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হয়ে কফ পরীক্ষা করাতে হবে। কাশির সঙ্গে রক্ত যাওয়া রোগীদের রোগ নির্ণয়ের জন্য তিনবার কফ পরীক্ষা করতে হয়। কফ পরীক্ষার পরে যদি জীবাণু পাওয়া যায় তবেই চিকিৎসকরা নিশ্চিত হন যে, রোগী যক্ষ্মায় আক্রান্ত। আর যদি ক্যান্সারের কোষ পাওয়া যায়, তবে তা ক্যান্সার হিসেবে চিহ্নিত হয়। তাই কফের সঙ্গে রক্ত যাওয়া মানেই যক্ষ্মা নয়।  

লেখক : অ্যাজমা ও বক্ষব্যাধি বিশেষজ্ঞ, ইউনাইটেড হাসপাতাল, গুলশান, ঢাকা।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow