Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:৫৪
প্রেসক্রিপশন
শিশুর আচরণের সমস্যা কি শুধুই দুষ্টুমী

প্রত্যেক পিতামাতা চান সন্তান যেন মানুষের মতো মানুষ হয়। সন্তানের কারণে পিতামাতা সুখী আবার সন্তানের কারণেও পিতামাতা দুঃখী।

এমন কিছু সন্তান আছে যাদের কর্মকাণ্ড, ব্যবহার, আচার আচরণে বাবা-মা শুধু কষ্টই পান না? রীতিমতো বিরক্ত হন। অভিযোগ আসে স্কুল থেকে, পাড়া প্রতিবেশী থেকে। আবার অনেকে বলে অবাধ্য সন্তান। পরিসংখ্যান মতে ৪% শিশু-কিশোরের মধ্যে সমস্যা থাকতে পারে। প্রায়ই মেয়েদের তুলনায় ছেলেদের মধ্যে ৪ গুণ বেশি। এ আচরণ ও ব্যবহারের সমস্যা সম্পর্কে আত্মীয়স্বজনদের ধারণা থাকে যে বয়স হলে এমনিতেই ঠিক হয়ে যাবে। আর চিকিৎসকদের পরিভাষায় এটি একটি রোগ। যা সঠিক সময়ে সঠিক জায়গায় চিকিৎসা করা প্রয়োজন। উল্লেখযোগ্য লক্ষণসমূহ—

বাবা-মাকে বিভিন্ন জিনিসের জন্য চাপ সৃষ্টি করা।

না দিলে শুরু হয় জিনিসপত্র ভাঙচুর ও বিভিন্নভাবে অত্যাচার। অন্যদিকে অনেক মায়েরও অভিযোগ থাকে ছেলেটা একদম কথা শোনে না, পড়তে বসে না, বই ছিঁড়ে ফেলে এমনকি শিক্ষকের কথাও শুনতে চায় না। এছাড়া এসব বাচ্চার বিরুদ্ধে বিভিন্ন জায়গা থেকে অভিযোগ আসে। কাউকে ভয় পায় না। ডা. মো. দেলোয়ার হোসেন

সহকারী অধ্যাপক, আনোয়ার খান মডার্ন হাসপাতাল, ঢাকা।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow