Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বুধবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:২১
কষ্টদায়ক ব্যথা ফ্রোজেন সোল্ডার
কষ্টদায়ক ব্যথা ফ্রোজেন সোল্ডার
bd-pratidin

যতগুলো ব্যথা আমাদের বেশি পীড়া দেয় তার মধ্যে কাঁধের ব্যথা বা ফ্রোজেন শোল্ডার সবচেয়ে যন্ত্রণাদায়ক। এ রোগে স্বাভাবিক সময় যেমন হাত বিশ্রামে রাখলে বা আক্রান্ত হাত দিয়ে কোনো কাজ না করলে সাধারণত কোনো ব্যথা অনুভূত হয় না। কিন্তু ব্যথাতুর হাত দিয়ে কিছু ধরতে গেলে কাঁধে বিদ্যুৎ চমকের মতো তীব্র ব্যথা অনুভূত হয়। অনেক রোগী রাতে ঘুমাতে পারেন না। আক্রান্ত পাশে পাশ ফিরলে হঠাৎ ঘুম ভেঙে যায় এবং গভীর রাতে তীব্র ব্যথা শুরু হয়। একবার ব্যথা শুরু হলে এ ব্যথা আর থামতে চায় না। এমনকি ব্যথার ওষুধও কাজ করে না। রোগীরা গরম পানি শেক, মালিশ ইত্যাদি দিতে থাকেন। কোনো সন্দেহ নেই ডায়াবেটিস রোগীদের এ ব্যথা সবচেয়ে বেশি হয়। ভারী কাজ করলে বা অন্য কোনো কারণে কাঁধে সামান্য আঘাত পেলে ধীরে ধীরে কাঁধ জমে যেতে থাকে। অনেক রোগী প্রাথমিক অবস্থায় ব্যথার ধরন বুঝতে পারেন না। ভাবেন সামান্য ব্যথা এমনিতেই সেরে যাবে। যা ভুল। ধীরে ধীরে এই ব্যথা তীব্র থেকে তীব্রতর আকার ধারণ করে এবং এক সময় রোগী পেছনের দিকে হাত নিতে পারেন না এমনকি জামা পরতে বা টয়লেট করতেও ভীষণ ব্যথা অনুভব করেন। এমনকি ডায়াবেটিস ছাড়াও সারভাইক্যাল স্পন্ডাইলোসিস রোগীরা এই রোগের জটিলতা হিসেবে ফ্রোজেন শোল্ডারে আক্রান্ত হতে পারেন।

চিকিৎসা : ডায়াবেটিস থাকলে ইন্ট্রাআর্টিকুলার ইঞ্জেকশন না দেওয়াই ভালো। এতে ডায়াবেটিস বেড়ে যায় এবং অনেক ক্ষেত্রেই ব্যথা ভালো হয় না। দীর্ঘমেয়াদি ইলেকট্রোথেরাপি থেরাপিউটিক এক্সারসাইজ ও ম্যানিপুলেশনের সমন্বয় অর্থাৎ আইপিএম এ ক্ষেত্রে খুব কার্যকর। তবে এক্ষেত্রে রোগীকে ধৈর্য ধারণ করতে হবে, ফ্রোজেন শোল্ডারের ব্যথা নিমিষেই দূর করা সম্ভব নয়। পুরোপুরি ব্যথা ভালো হতে ২/৩ মাস পর্যন্ত সময় লেগে যেতে পারে।

ডা. মোহাম্মদ আলী, চিফ কনসালট্যান্ট, এইচপিআরসি।  মেইল: hprc2005@live.com

এই পাতার আরো খবর
up-arrow