Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বুধবার, ১২ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১১ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:০৩
আজকের ভাগ্যচক্র
ড. কে. সি. পাল
আজকের ভাগ্যচক্র

আজকের এইদিনে জন্মগ্রহণ করায় পাশ্চাত্যমতে আপনি তুলা রাশির জাতব্যক্তি। আপনার ওপর আজ দৈত্যকুল গুরু শুক্রাচার্য দেবগুরু বৃহস্পতি ও সর্বগ্রাসীগ্রহ রাহুর প্রভাব বিদ্যমান।

আপনার সঙ্গে মীন রাশির বন্ধুত্ব শুভফল প্রদান করবে। বিদ্যাশিক্ষায় ব্রতীদের জন্য সুবর্ণ সুযোগ অপেক্ষা করবে সেই সঙ্গে নিত্যনতুন প্ল্যান-প্রোগ্রাম বাস্তবায়নের জন্য দিনটি রেকর্ড হয়ে থাকবে।

মেষ  [২১ মার্চ-২০ এপ্রিল]

আয় উপার্জনের পথে আকস্মিক কোনো না কোনো বাধা এসে হাজির হবে। দূর থেকে আসা কোনো অপ্রিয় সংবাদে গোটা পরিবারের মন বিষণ্ন হয়ে পড়বে। রাগ জেদ অহংকার আবেগ ক্ষতির কারণ হবে। সন্তানদের ক্যারিয়ার অধ্যয়ন স্বাস্থ্য ও বিবাহসংক্রান্ত দুশ্চিন্তার অবসান ঘটবে। বেগবান যান বর্জন করুন।

বৃষ [২১ এপ্রিল-২০ মে]

কর্ম ও ব্যবসা-বাণিজ্যে বড় কোনো অর্ডার হাতে আসায় বস আপনার প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে থাকবে। বিদেশ গমন ও স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দুটোই সমানতালে শুভ তথা সুদূরপ্রসারী হবে। অপরিচিত কাউকে আশ্রয় দেওয়া ও আশ্রয় নেওয়া নির্বুদ্ধিতার পরিচয় হবে। প্রেমীযুগলের প্রেম সমাজে স্বীকৃতি পাবে।

মিথুন [২১ মে-২০ জুন]

দুর্যোগের মেঘ সরে গিয়ে সুদিনের সূর্য উদিত হবে। নিত্যনতুন ব্যবসা-বাণিজ্য আর স্বপ্ন পূরণের জন্য দিনটি রেকর্ড হয়ে থাকবে। সন্তানদের ক্যারিয়ার অধ্যয়ন স্বাস্থ্য ও বিবাহসংক্রান্ত দুশ্চিন্তার অবসান ঘটবে। দীর্ঘদিনের আটকে থাকা বিল পাস ও পাওনা টাকা আদায় হওয়ায় ঋণ মুক্তির পথ প্রশস্ত হবে।

কর্কট  [২১ জুন-২০ জুলাই]

টাকা-পয়সা হাতে আসতে আসতে মাঝপথে আটকে যওয়ায় দিনের শেষে অর্থনৈতিক দুর্ভাবনায় পড়তে হবে। বাড়ির ইলেক্টনিক্স সামগ্রী ও যানবাহন মেরামতে শ্রম অর্থ দুটোই সমানতালে ব্যয় হবে। সপরিবারে কাছেপীঠে ভ্রমণ এমনকি কোনো মাঙ্গলিক অনুষ্ঠানে যোগদান করতে পারেন। প্রেম ভ্রমণ বাণিজ্যিক চুক্তি শুভ।

সিংহ  [২১ জুলাই-২১ আগস্ট]

বিবাহযোগ্যদের বিবাহ প্রেমীযুগলের মিলন তথা সম্ভাব্য ক্ষেত্রে পরিবারে ছোট্ট নতুন মুখের আগমন ঘটতে পারে। শিক্ষার্থীদের জন্য সুবর্ণ সুযোগ অপেক্ষা করবে। গৃহবাড়িতে নতুন আসবাবপত্র বস্ত্রালঙ্কার ও খেলনা সামগ্রীর পসরা সাজবে। লৌকিকতায় যেমন ব্যয় হবে তেমনি উপহার সামগ্রীও প্রাপ্ত হবেন।

কন্যা  [২২ আগস্ট-২২ সেপ্টেম্বর]

সিজনাল রোগ ব্যাধির সঙ্গে নিত্যনতুন ব্যাধিপীড়ার প্রকাপ বৃদ্ধি পাওয়ায় শল্য চিকিৎসার প্রয়োজন পড়তে পারে। অবশ্য হারানো পিতৃমাতৃ ধন সম্পদ সম্পত্তি ব্যবসা ফিরে পাওয়ার পথ প্রশস্ত হবে। শত্রু ও বিরোধীপক্ষের সব পরিকল্পনা নস্যাৎ করে আপনি দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলবেন। প্রেম রোমান্স শুভ।

তুলা  [২৩ সেপ্টেম্বর-২২ অক্টোবর]

বিদ্যাশিক্ষায় ব্রতীদের জন্য সুবর্ণ সুযোগ অপেক্ষা করবে। সন্তানদের ক্যারিয়ার অধ্যয়ন স্বাস্থ্য ও বিবাহসংক্রান্ত দুশ্চিন্তার অবসান ঘটবে। পিতামাতার কাছ থেকে ভরপুর সাহায্য সহযোগিতা ও আশীর্বাদপ্রাপ্ত হবেন। সপরিবারে কাছেপীঠে তথা কোনো মাঙ্গলিক অনুষ্ঠানে যোগদান করার সম্ভাবনা রয়েছে।

বৃশ্চিক [২৩ অক্টোবর-২১ নভেম্বর]

কর্মক্ষেত্রে সহকর্মী ও ব্যবসা-বাণিজ্যে অংশীদারদের সঙ্গের কলহ বিবাদের মীমাংসা হবে তথা তাদের কাছ থেকে ভরপুর সহযোগিতা প্রাপ্ত হবেন। শিক্ষার্থীদের মন ফেসবুক টুইটার প্রেম প্রসঙ্গসহ অনুচিত কাজবাজের প্রতি আকৃষ্ট হওয়ায় উচ্চশিক্ষা তথা বিদেশ গমনের স্বপ্ন ভেঙে পড়বে। প্রেম ভ্রমণ শুভ।

ধনু [২২ নভেম্বর-২০ ডিসেম্বর]

ভ্রাতা-ভগ্নিদের কাছ থেকে প্রাপ্ত সহযোগিতায় সম্পত্তি লাভের পথ প্রশস্ত হবে। গৃহবাড়িতে নতুন আসবাবপত্র বস্ত্রালঙ্কার ও খেলনা সামগ্রীর পসরা সাজবে। সন্তানরা আজ্ঞাবহ হয়ে থাকবে তথা তারা কোনো না কোনো পুরস্কারে ভূষিত হতে পারে। আশ্রিত ব্যক্তি দ্বারা যত্পরনাস্তি ক্ষতির সম্ভাবনা।

মকর [২১ ডিসেম্বর-১৯ জানুয়ারি]    

মামলা-মোকদ্দমা ও কোর্টকেসের রায় পক্ষে আসায় হারানো বুকের ধন বুকে ফিরে আসবে। দীর্ঘদিনের আটকে থাকা বিল পাস ও পাওনা টাকা আদায় হওয়ায় ঋণমুক্তি শুধু নয় সঞ্চয়ের পাহাড় গড়তে সক্ষম হবেন। গৃহবাড়ি অতিথি সমাগমে মুখর হয়ে থাকবে যার ফলে আপনাকে সর্বদাই ব্যস্ত থাকতে হবে।

কুম্ভ  [২০ জানুয়ারি-১৮ ফেব্রুয়ারি]

গুপ্ত ও প্রকাশ্য শত্রুরা স্বজনদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে আপনার গোপন প্রেম ও দুনম্বরী কাজবাজ ফাঁস করে দিতে পারে। একদিকে আয় উপার্জন কম অপরদিকে খরচের লাগামহীন চাপ আপনাকে অতিশয় জীর্ণ করে তুলবে। বাণিজ্যিক সফর লাভদায়ক তথা ভ্রমণকালীন বন্ধুত্ব সারাজীবনের পাথেয় হতে পারে।

মীন  [১৯ ফেব্রুয়ারি-২০ মার্চ]

দুর্যোগের কালো মেঘ আপনাকে ঢেকে ফেলবে। টাকা-পয়সা হাতে আসতে আসতে মাঝপথে আটকে যাওয়ায় দিনের শেষে অর্থনৈতিক দুর্ভাবনায় পড়তে হবে। না বুঝে চুক্তি সম্পাদন ও বিনিয়োগ ঘাতক বলে প্রমাণিত হবে। এতদসত্ত্বেও মন সুর সংগীত ধর্ম আধ্যাত্মিকতা ও পরোপকারের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে থাকবে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow