Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : ৩০ জুন, ২০১৬ ১৫:০৩
আপডেট :
ধর্ষণের শিকার নারীর সঙ্গে সেলফি, বিতর্কে নারী কমিশনের সদস্য
দীপক দেবনাথ, কলকাতা

ধর্ষণের শিকার নারীর সঙ্গে সেলফি, বিতর্কে নারী কমিশনের সদস্য

ধর্ষণের শিকার নারীর সঙ্গে সেলফি তুলে বিপাকে পড়লেন ভারতের রাজস্থান রাজ্য নারী কমিশনের এক সদস্য। তাঁর নাম সোমিয়া গুর্জার। মজার ব্যাপার হল, সেলফি তোলার সময় উপস্থিত ছিলেন রাজস্থান রাজ্য নারী কমিশনের চেয়ারপার্সন সুমন শর্মাও। এই কাজের জন্য রাজ্য নারী কমিশনের কাছে লিখিত জবাবদিহিও চাওয়া হয়েছে।  

পুলিশ সূত্রে খবর, ২০১৫ সালে রাজস্থানের আলওয়ার জেলার রেনি গ্রামের জগন্নাথের সঙ্গে বিয়ে হয় ৩০ বছরের এক নারীর। কিন্তু বিয়ের পর থেকেই পণের রুপির জন্য তাঁর স্বামী-দেবররা তাঁর ওপর নির্যাতন করতো। মারধরের পাশাপাশি ওই  নারীকে ধর্ষণ করার অভিযেগ ওঠে তাঁর স্বামী ও দুই দেবরের বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয়, বিয়ের সময় পণের ৫১ হাজার রুপি দিতে না পারায় তাঁর কপালে ও হাতে অপবাদ দিয়ে টাট্টু করে দেওয়া হয়। ওই ঘটনার পরই শ্বশুরবাড়ি ছেড়ে নিজের বাবার কাছে চলে আসেন ওই নির্যাতিতা। নারী নির্যাতনের অভিযোগে ভারতীয দণ্ডবিধির ৪৯৬-এ, ৩৬৭, ৪০৬ ধারায় মামলাও করা হয়েছে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে। তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

বুধবার উত্তর জয়পুরে ধর্ষণের শিকার ওই নারীর সঙ্গে দেখা করতে যায় রাজ্য মহিলা কমিশন। সেখানেই নির্যাতিতাকে পাশে বসিয়ে তার সঙ্গে সেলফি তোলেন সোমিয়া গুর্জার। আর ঠিক উল্টোদিকে বসেছিলেন মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন সুমন শর্মাও। পরে তিনিও ট্যাবের ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে হাসিমুখে পোজ দেন। ছবিটি প্রকাশ্যে আসতেই বিতর্ক শুরু হয়। সমালোচনার মুখে পড়ে সুমন জানিয়েছেন তিনি কোনোভাবেই এই বিষয়ের সঙ্গে জড়িত নন। তিনি বলেন, আমি যখন নির্যাতিতার সঙ্গে কথা বলছিলাম তখনই কমিশনের এক সদস্য সেলফি তুলছিলেন। সোমিয়া গুর্জার যখন সেলফি তুলছিলেন আমি সেদিকে নজর দেইনি। আমি এই ধরনের কাজকে সমর্থন করি না। তাঁর কাছ থেকে লিখিত জবাবদিহি চাওয়া হয়েছে।  


বিডি-প্রতিদিন/ ৩০ জুন, ২০১৬/ আফরোজ

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow