Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১১:২৬
নিউইয়র্কের বিস্ফোরণ প্রেশার কুকার বোমায়
অনলাইন ডেস্ক
নিউইয়র্কের বিস্ফোরণ প্রেশার কুকার বোমায়

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক সিটির ম্যানহাটনের চেলসি শহরে যে বিস্ফোরণের ঘটনাটি ঘটেছে তা একটি স্প্লিন্টার ভর্তি প্রেশার কুকার বোমার বিস্ফোরণ ছিল বলে ধারণ করছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। কারণ শনিবার রাতে এই বিস্ফোরণের কিছুক্ষণ পর কয়েক ব্লক দূরে সন্দেহজনক যে বস্তুটি পাওয়া গেছে তাও একই ধরনের আরেকটি বোমা।

বিবিসি বলছে, তিন বছর আগে ২০১৩ সালে বোস্টন ম্যারাথনে এই ধরনের বোমা ব্যবহার করে হামলা চালিয়েছিল দুর্বৃত্তরা।

আইন প্রয়োগকারী সংস্থার শীর্ষ কর্মকর্তাদের উদ্ধৃতি দিয়ে নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, দুটি বোমাতেই ফ্লিপ মোবাইল ফোন ও ক্রিসমাস লাইট ব্যবহার করে বিস্ফোরণ ঘটানোর নকশা করা হয়েছিল। শনিবার রাতে চেলসির ওই বিস্ফোরণে কেউ নিহত না হলেও ২৯ জন আহত হন। কর্মকর্তারা এটিকে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড হিসেবে চিহ্নিত করলেও ঘটনার মোটিভ এবং এর সঙ্গে জড়িত কোনো সন্দেহভাজনকে সনাক্ত করতে পারেননি।

চেলসির যে স্থানটিতে বিস্ফোরণটি ঘটেছে তার চার ব্লক দূরে একই ধরণের দ্বিতীয় বোমাটি পাওয়া যায়। পরে নিরাপত্তা বাহিনী তা নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া নেয়।

নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের গভর্নর এন্ড্রু কুমো বলেছেন, উদ্ধার করা বোমাটির নকশা বিস্ফোরিত বোমাটির মতোই মনে হচ্ছে।

ম্যানহাটনের চেলসি শহরে এই স্থানটিতে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

রবিবার রাতে অবিস্ফোরিত দ্বিতীয় বোমাটির নিয়ন্ত্রিত বিস্ফোরণ ঘটিয়ে পুলিশ তা ধ্বংস করে দেয়। নিউইয়র্কের এসব ঘটনার কয়েক ঘন্টা আগে পার্শ্ববর্তী অঙ্গরাজ্য নিউ জার্সিতে একটি চ্যারিটি রেসের পথিমধ্য ডাস্টবিনে একটি পাইপ বোমার বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছিল। এই পাইপ বোমা থেকে প্রেসার কুকার বোমা দুটি অন্য ধরনের বলে জানিয়েছেন কুমো। নিউ জার্সির ওই বিস্ফোরণের ঘটনার কেউ হতাহত হননি।

এখন পর্যন্ত কোনো সন্ত্রাসী গ্রুপ এই হামলার দায় স্বীকার করেনি।

রাজনৈতিক নাকি ব্যক্তিগত উদ্দেশ্যে ওই হামলা চালানো হয়েছিল তা এখনও নিশ্চিত নয় বলে জানিয়েছেন নিউইয়র্কের মেয়র বিল ডি ব্লাসিও। তিনি বলেন, ''আমার জানি এটা একটি ভয়াবহ ঘটনা। কিন্তু এ ঘটনার পেছনের উদ্দেশ্য বের করার জন্য অনেক কাজ করতে হবে। ''

সূত্র: বিবিসি

বিডি-প্রতিদিন/১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬/মাহবুব

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow