Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৮:২৯
সম্পর্কের শুরু ফেসবুকে, শেষ ঠিকানা এখন শ্রীঘর
অনলাইন ডেস্ক
সম্পর্কের শুরু ফেসবুকে, শেষ ঠিকানা এখন শ্রীঘর

দিয়েছিলেন বিয়ের প্রতিশ্রুতি। সেই প্রতিশ্রুতি দিয়ে করেছেন একাধিকবার সহবাস। লিলুয়ার এক যুবতী উবের এক চালকের বিরুদ্ধে এমনই এক অভিযোগ করেছেন। শুধু কি তাই, ওই যুবতীর অভিযোগ করেছেন, তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয় গত বুধবার ইএম বাইপাসে রুবির কাছে উবের ক্যাবের মধ্যেই তাকে ধর্ষণ করারও চেষ্টা হয় বলে তিনি জানান।

অবশেষে ওই যুবতীর অভিযোগের উপর ভিত্তি করে হাওড়ার মহিলা থানা অভিযুক্ত উবের চালক গৌরব সাহাকে গ্রেফতারও করেছে। অভিযুক্তর বিরুদ্ধে ৩৭৬ এবং ৪১৭ নম্বর ধারায় মামলা করা হয়েছে।
 
হাওড়া পুলিশ সূত্রের খবর থেকে জানা যায়, ফেসবুকে বছর চব্বিশের ওই যুবতীর সঙ্গে যোগাযোগ হয় কসবার গৌরব সাহার। নিজের একটি গাড়ি উবেরে দিয়ে রেখেছিলেন গৌরব। তিনি ওই গাড়িটি চালাতেন।
 
লিলুয়ার যুবতীর অভিযোগ, 'গৌরব বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তাঁর সঙ্গে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্কও স্থাপন করেছিল। গৌরব যে বিবাহিত, তা নাকি সম্প্রতি জানতে পারেন ওই যুবতী। এই নিয়ে দু’জনের মধ্যে ঝামেলাও হয়'।
 
গত মঙ্গলবার রাতে শিয়ালদহ এলাকার এক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আত্মীয়ের কাছে ছিলেন ওই যুবতী। ভোরবেলায় তিনি গৌরবকে ডেকে পাঠান। কিন্তু গৌরব ওই যুবতীকে লিলুয়ায় ছাড়ার বদলে ই এম বাইপাসের ধারে নিয়ে যায়। সেখানেই গাড়ির মধ্যে গৌরব ও অভিযোগকারিনী যুবতীর মধ্যে হাতাহাতি হয় বলেও অভিযোগ পাওয়া যায়। যুবতীর অভিযোগ, গৌরব তাকে সেখানে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে।
 
যুবতীর চিৎকারে লোকজন ছুটে আসছে দেখে গৌরব গাড়ি নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে যুবতী বাড়ি ফিরে বাবাকে সমস্ত ঘটনা খুলে বলে। লিলুয়া থানা যুবতীর অভিযোগ নিতে প্রথমে অস্বীকার করে। এমনকী, বেলুড় থানাও অভিযোগ নেয়নি। তবে, হাওড়া মহিলা থানায় অভিযোগ দায়ের করতে সেখান থেকে পরামর্শ দেওয়া হয়। এর পরেই হাওড়া মহিলা পুলিশ থানা ওই যুবতীর অভিযোগে গৌরবকে কসবা থেকে গ্রেফতার করে।  


বিডি-প্রতিদিন/২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬/তাফসীর

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow