Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৬:৩৯
ভারতে মৃত গরু সরাতে অস্বীকার করায় গর্ভবতী নারীকে মারধর
দীপক দেবনাথ, কলকাতা
ভারতে মৃত গরু সরাতে অস্বীকার করায় গর্ভবতী নারীকে মারধর

মৃত গরু সরাতে অস্বীকার করায় এক গর্ভবতী দলিত নারীকে বেধড়ক পেটানোর অভিযোগ উঠল গ্রামেরই উচ্চবর্ণের লোকজনের বিরুদ্ধে। শুক্রবার এরকম একটি ঘটনা ঘটেছে গুজরাটের বনসকান্থা জেলার কাজরা গ্রামে।

 

জানা যায়, এদিন সকালে গ্রামের দরবার সম্প্রদায়ের বটভরনিশ চৌহান নামে এক ব্যক্তি তার একটি মৃত গরুকে সরানোর জন্য গ্রামেরই দলিত যুবক নীলেশ রনবশিয়া’র কাছে যান। কিন্তু সেই গরু সরাতে অস্বীকার করায় ওই রাতে নীলেশের পরিবারের উপর চড়াও হয় ১০ ব্যক্তি। মারধর করা হয় নীলেশের গর্ভবর্তী স্ত্রী সঙ্গীতাসহ আরও দুই নারীকে। সঙ্গীতাকে ভর্তি করানো হয় পালানপুর সিভিল হাসপাতালে। নীলেশ ও অন্যান্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা করেই ছেড়ে দেওয়া হয়।  

ঘটনায় ১০ অভিযুক্তের বিরুদ্ধে এফআইআর করেছেন আক্রান্ত নীলেশ রনবশিয়া। তাঁর অভিযোগ, অভিযুক্তরা আমাকে গালিগালাজ করে এবং আমাকে ঠেলে ফেলে দেয়। আমার গর্ভবতী স্ত্রীর পেটে লাথি মারে এবং লাঠি দিয়ে মারধর করে।

বনসকান্থ জেলার পুলিশ সুপার নীরজ বাদগুজর জানিয়েছেন, ঘটনা জানাজানি হওয়ার পরই কাজরা গ্রামে পৌঁছায় পুলিশ। ঘটনায় ৬ জনকে আটক করা হয়েছে। । এদের বিরুদ্ধে তফসিলি জাতী ও উপজাতি প্রিভেনশন আইনে মামলা করা হয়েছে’। তিনি আরও জানান, গ্রামের দলিত পরিবারকে সুরক্ষা দিতে পুলিশের তরফে পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে এবং বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মধ্যে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখতে আমরা আমাদের সেরাটা দিচ্ছি।

সম্প্রতি রাজ্যের দলিতদের উপর অত্যাচারের প্রতিবাদে গুজরাটের বিভিন্ন জেলায় জেলা শাসকের দফতরের সামনে মৃত পশু ফেলে প্রতিবাদ জানানো হয়। রাজ্যের একাধিক দলিত সংগঠন ঘোষণা করে তারা আর মৃত পশু ফেলার কাজ করবে না।

 


বিডি-প্রতিদিন/ ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬/ আফরোজ

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত
up-arrow