Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ২৩ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১২:১৭
আপডেট :
যুদ্ধের দামামার মধ্যে শপিংয়ে ব্যস্ত নওয়াজ!
অনলাইন ডেস্ক
যুদ্ধের দামামার মধ্যে শপিংয়ে ব্যস্ত নওয়াজ!

উরি হামলার পর থেকেই ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে বিরাজ করছে অশান্ত পরিস্থিতি। দুই দেশই যুদ্ধের মহড়া দিচ্ছে, হাকাচ্ছে হুমকি-ধমকি। বুধবার সন্ধ্যায় কাশ্মীরের পুঞ্চ এলাকার লাইন অব কন্ট্রোল বা নিয়ন্ত্রণ রেখায় দু'পক্ষ মর্টারের গোলা ও গুলিবিনিময়ের ঘটনাও ঘটে। তবে এমন পরিস্থিতির মধ্যেও লন্ডনে পরিবার নিয়ে শপিংয়ের ব্যস্ত পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। এ খবর দিয়েছে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম 'সংবাদ প্রতিদিন'।

খবরে জানানো হয়েছে, পাকিস্তান যখন যুদ্ধ প্রস্তুতিতে ব্যস্ত তখন দেশের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ ব্যস্ত শপিংয়ে! বুধবার লন্ডনের হ্যারোড ডিপার্টমেন্টাল স্টোরে নওয়াজ শরিফ মনের সুখে দেদার শপিং করছিলেন। সঙ্গে ছিলেন পরিবারের সদস্য এবং নিরাপত্তারক্ষীরা।

শপিং করার সেই ছবি মোবাইলে ক্যামেরাবন্দি হওয়ার পরই সোশ্যাল সাইটে ভাইরাল হয়ে যায়। এর জেরে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয় পাকিস্তানে। প্রধানমন্ত্রী হিসাবে শরিফের কাণ্ডজ্ঞান ও বিবেকবোধ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিরোধীরা। প্রতিবেশী ভারতের কাছ থেকে যখন প্রবল রাজনৈতিক চাপ ও যুদ্ধের হুমকি আসছে সেই সময় তিনি লন্ডনে ফূর্তির মুডে রয়েছেন কীভাবে? টিভি চ্যানেলে এমনই প্রশ্ন তুলেছেন এক তরুণ ছাত্র। লন্ডনের বাসিন্দা শোয়েব তৈমুর একজন ডেটা অ্যানালিস্ট। তিনি বলেছেন, আমার কাছে হোয়াটসঅ্যাপে ছবিটা এসেছে। অভিজাত শপিং মলে গুচি-র শো রুম থেকে জুতো কিনছিলেন নওয়াজ। সেই সময় এক পাক যুবতী মোবাইল ক্যামেরা বের করে নওয়াজের ছবি তুলতে গেলে তাকে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তারক্ষীরা ধাক্কা মারে, চোখ রাঙিয়ে গালাগাল দেয় ও ঠেলে ফেলে দেয়। তার আগে ওই তরুণীর মোবাইল ফোনটি কেড়েও নেওয়া হয়।

নিজেদের কাণ্ড ঢাকতে ওই তরুণীকেই উল্টো নিরাপত্তারক্ষীরা ঝাঁঝিয়ে প্রশ্ন করে, সে কেন হিজাব পরেনি? সে কেন পুরুষ সঙ্গী ছাড়া বেরিয়েছে? তারপর তাকে জোর করে লন্ডনে পাকিস্তান হাইকমিশনে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু তাতেও নওয়াজের শপিং করার ছবি ছড়িয়ে যাওয়া আটকানো যায়নি। কোন ফাঁকে যে অন্য মোবাইলে তা বন্দি হয়ে গেছে তা হয়ত নিরাপত্তারক্ষীরাও টের পাননি।

বিডি-প্রতিদিন/এস আহমেদ

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow