Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ১ অক্টোবর, ২০১৬ ১২:৩৬
ভারতের সংবাদ মাধ্যমকে পাক জামায়াত নেতার হুমকি
অনলাইন ডেস্ক
ভারতের সংবাদ মাধ্যমকে পাক জামায়াত নেতার হুমকি

জামায়াত নেতা হাফিজ সৈয়দের নিশানায় এবার ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম। শুক্রবার এক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে জামায়াত নেতা হাফিজ সৈয়দ বলেছেন, 'ভারতের এক সংবাদ মাধ্যম ভুয়া ছবি দেখিয়ে সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের গল্প বানাচ্ছে।

যা আদৌ সত্য নয়। '  এছাড়া খুব অল্পদিনের মধ্যেই প্রত্যেক ভারতীয়কে ‘আসল সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’ বুঝিয়ে দেওয়া হবে বলেও তিনি হুমকি দিয়েছেন। খবর কলকাতা ২৪x৭ নিউজের।

খবরে বলা হয়, গত বুধবার গভীর রাতে অধিকৃত কাশ্মীরে ঢুকে হামলা চালায় ভারতীয় সেনাবাহিনীর বিশেষ সেনারা। সেখানে গুড়িয়ে দেয় একের পর এক জঙ্গি ঘাঁটি। এরপরেই ভারতের একাধিক সংবাদ মাধ্যমে এই সংক্রান্ত খবর সম্প্রচারিত হতে থাকে। পাশাপাশি জি নিউজও এই সংবাদ দেখায়। কোন পথে ভারতীয় সেনারা অধিকৃত কাশ্মীরে পৌঁছায় এবং কি করে হামলা চালিয়ে প্রায় সাতটি জঙ্গি ঘাঁটি গুড়িয়ে দেয় তার ব্যাখ্যা দেওয়া হয়।  

আর এতেই ‘আঁতে ঘা লাগে’ পাকিস্তানসহ জামায়াত নেতা হাফিজ সৈয়দের। তার দাবি মিথ্যা তথ্য প্রকাশ করেছে জি নিউজ। এর মূল্য সকল ভারতীয়কে দিতে হবে। তবে এখানেই থেমে থাকেনি ২৬/১১ মুম্বাই হামলার মূল চক্রী। এক ধাপ এগিয়ে তার হুশিয়ারি, খুব শীঘ্রই নাকি ‘আসল সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’ কাকে বলে তা তিনি ভারতকে বুঝিয়ে দেবেন।  

তবে সূত্রের খবর, হাফিজ সৈয়দের এই হুঁশিয়ারিকে মোটেই আমল দিচ্ছেনা নয়া দিল্লি। উল্টো ফের কি করে আরও একবার পাকিস্তানকে ‘সবক শেখানো’ যায় সেই ছক আঁকা হচ্ছে।

২৬/১১ মুম্বাই হামলার পর হাফিজ সৈয়দকে ভারতের হাতে তুলে দেওয়ার জন্য বারবার পাকিস্তানের কাছে দাবি জানিয়ে এসেছে ভারত। তবে সেই দাবিকে খুব একটা আমলে নেয়নি নওয়াজ শরিফ সরকার। উল্টো তার দলের একাধিক নেতা থেকে মন্ত্রীরা জামাত ওই নেতার পাশেই দাঁড়িয়েছে। যা নিয়ে রীতিমতো অসন্তুষ্ট ভারত। জাতিসংঘে সেই অসন্তোষের কথাও ভারতের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।


বিডি প্রতিদিন/১ অক্টোবর ২০১৬/হিমেল

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow