Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ৪ অক্টোবর, ২০১৬ ০৯:১৬
পরমাণু যুদ্ধ হলে ক্ষতিগ্রস্ত হবে কলকাতাও
অনলাইন ডেস্ক
পরমাণু যুদ্ধ হলে ক্ষতিগ্রস্ত হবে কলকাতাও

ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে পরমাণু যুদ্ধ হলে তার আওতায় আসতে পারে কলকাতাও। পরমাণু বোমা নিক্ষেপের জন্য পাকিস্তানের হাতে একাধিক মিসাইল আছে।

যেমন 'নসর', 'হাতফ', 'গজনভি' এবং 'আবদালি' ক্ষেপণাস্ত্র পরমাণু অস্ত্র বহনে সক্ষম। এই ক্ষেপণাস্ত্রগুলির রেঞ্জ ৬০ থেকে ৩২০ কিলোমিটারের মধ্যে।

এছাড়াও পাকিস্তানের হাতে রয়েছে ‘ঘুরি’ এবং ‘শাহিন’ ক্ষেপণাস্ত্র। এই ক্ষেপণাস্ত্রগুলির রেঞ্জ ৯০০ থেকে ২৭০০ কিলোমিটার। অর্থাৎ এই ক্ষেপণাস্ত্রগুলি ব্যবহার করলে দিল্লি, কলকাতা, মুম্বই, জয়পুর, আহমদাবাদ, পুণে, নাগপুর, ভোপাল, লখনউয়ের মতো শহর পাকিস্তানের পরমাণু বোমার টার্গেট হতে পারে।

ভারতের আছে ‘পৃথ্বী’ ক্ষেপণাস্ত্র। এর রেঞ্জ ১৫০ থেকে ৬০০ কিলোমিটার। এছাড়াও আছে বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র ‘অগ্নি’। অগ্নির রেঞ্জ ৭০০ কিলোমিটার থেকে আট হাজার কিলোমিটার পর্যন্ত।

অর্থাৎ পাকিস্তানের এমন কোনও শহর নেই যাকে ভারত চাইলে টার্গেট করতে পারবে না। ইসলামাবাদ, রাওয়ালপিণ্ডি, করাচি, লাহৌর, নওশেরার মতো বড় শহর মুহূর্তের মধ্যে ভারতের ছোঁড়া পরমাণু বোমায় ধ্বংস হয়ে যেতে পারে।

বর্তমানে ভারতের কাছে ১১০ থেকে ১২০টি পরমাণু বোমা আছে। পাকিস্তানের কাছে আছে ১২০ থেকে ১৩০টি। ভারত পাকিস্তানের মধ্যে পরমাণু যুদ্ধ হলে শুধুমাত্র এই দু’ই দেশই যে বিধ্বস্ত হবে, তা নয়, সেইসঙ্গে গোটা বিশ্বেরও চরম ক্ষতি হবে।

বিডি-প্রতিদিন/ ০৪ অক্টোবর, ২০১৬/ সালাহ উদ্দীন

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow