Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ১৪ অক্টোবর, ২০১৬ ১৬:৩৩
ভারতীয় পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে পাকিস্তানে তথ্য পাচারের অভিযোগ
অনলাইন ডেস্ক
ভারতীয় পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে পাকিস্তানে তথ্য পাচারের অভিযোগ

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরের এক উচ্চপদস্থ পুলিশ কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে তিনি পাকিস্তানি গোয়েন্দা সংস্থার কাছে স্পর্শকাতর তথ্য পাচার করেছেন।

 অভিযোগ ওঠার পর বৃহস্পতিবার তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। খবর ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ার।  

ভারত-পাকিস্তানের চলমান উত্তেজনার মধ্যে পাকিস্তানি গোয়েন্দাদের কাছে নিরাপত্তা সংক্রান্ত স্পর্শকাতর তথ্য পাচার হওয়ার খবর প্রকাশ পাওয়ার পর সমস্ত ভারত জুড়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। ডেপুটি সুপারিটেন্ডেন্ট (ডিএসপি) পদমর্যাদার ওই ভারতীয় পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে তদন্ত শুরু হয়েছে। অভিযুক্ত ডিএসপি'র নাম তানভীর আহমেদ। সম্প্রতি অভিযোগ উঠেছে যে, আর্মড পুলিশ কন্ট্রোল রুমে কর্মরত এই পুলিশ কর্মকর্তা টেলিফোনে গোয়েন্দাদের খবর পাঠাতেন। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় থেকে এ ব্যাপারে জম্মু কাশ্মির পুলিশ বরাবর তথ্য পাঠানোর পর সেখানকার ডিজিপি কে. রাজেন্দ্র কুমার বৃহস্পতিবার অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত করেন।

তানভীর অবশ্য দাবি করেছেন, মাসখানেক আগে সেনা কমান্ডার পরিচয় দিয়ে এক ব্যক্তি তাকে ফোন করেছিল। তখন তার কাছে উপত্যকায় কোথায় কোথায় কত সংখ্যক পুলিশ ও আধা সামরিক বাহিনীর সেনারা মোতায়েন রয়েছে তার বিস্তারিত তথ্য চাওয়া হয়। পুলিশ সুপারের অনুমতি নিয়েই এ ব্যাপারে তথ্য দিয়েছিলেন বলেও দাবি করেন তানভীর।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হোয়াট’স অ্যাপ ব্যবহার করে নিরাপত্তা সংক্রান্ত তথ্য জানিয়েছিলেন বরখাস্তকৃত ডিএসপি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের নজরে সেই নাম্বরটি আসায় তদন্ত শুরু করে তারা। তারপরেই সামনে আসে তথ্য পাচারের বিষয়টি।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, কাশ্মিরের পুলিশ কর্মকর্তারা গত কয়েক বছর ধরে নিয়মিত পাকিস্তান থেকে ফোন পাচ্ছেন। যারা ফোন করে তার কাছে তারা সাধারণত নিজেদেরকে ভারতের অন্যান্য নিরাপত্তা সংস্থার কর্মকর্তা বলে পরিচয় দেয় তারপর জানতে চায় নিরাপত্তা বাহিনীর গোপন তথ্য।
 

বিডি-প্রতিদিন/১৪ অক্টোবর, ২০১৬/তাফসীর

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow