Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ১৮ অক্টোবর, ২০১৬ ০৮:২৭
মসুল পুনরুদ্ধারে
আইএসের বিরুদ্ধে আক্রমণে 'অগ্রগতি' ইরাকি সেনাবাহিনীর
অনলাইন ডেস্ক
আইএসের বিরুদ্ধে আক্রমণে 'অগ্রগতি' ইরাকি সেনাবাহিনীর

ইরাকের মসুলে তথাকথিত আইএস (ইসলামিক স্টেট) যোদ্ধাদের বিরুদ্ধে পরিকল্পিত আক্রমণের প্রথম দিনে ইরাকি বাহিনী এবং কুর্দি অনিয়মিত যোদ্ধাদের উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হয়েছে। সোমবার ভোর থেকে শুরু হওয়া এই আক্রমণে যোগ দিয়েছে মার্কিন যুদ্ধবিমান। পেন্টাগন বলছে, প্রথম দিনের লক্ষ্য নির্ধারিত সময়ের আগেই অর্জিত হয়েছে। খবর বিবিসি বাংলার।  

মসুল পুনরুদ্ধারে প্রথম দিনে ভাল অগ্রগতি হলেও জিহাদিদের সাথে সরাসরি সংঘর্ষ হয়েছে খুবই কম এবং বিশ্লেষকরা বলছে, এখনো পর্যন্ত অর্জন অনেকটাই প্রতীকী। পেন্টাগনের মুখপাত্র পিটার কুক বলেছেন, মসুলের লড়াই শেষ হতে বেশ সময় লাগতে পারে কারণ তথাকথিত ইসলামিক স্টেট রুখে দাড়িয়ে লড়াই করবে কিনা তা এখনো বোঝা যাচ্ছে না। উল্লেখ্য, ইরাকের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর মসুল আইএসের দখলে যায় ২০১৪ সালে।  

এদিকে মসুল অভিযানে কুর্দি পেশমেরগা যোদ্ধা এবং ইরাকি বাহিনীর যৌথ অংশগ্রহণকে স্বাগত জানিয়েছেন ইরাকি কুর্দিস্তানের আঞ্চলিক প্রেসিডেন্ট মাসুদ বার্জানি। ইরবিলের কাছে খাজির শহরে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, এরই মধ্যে আইএসের হাত থেকে অনেক এলাকা পুনরুদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। তিনি বলেন, এখনো পর্যন্ত ২০০ বর্গকিলোমিটার এলাকা স্বাধীন হয়েছে। এটি মসুল অভিযানের প্রথম ধাপ। এখানে প্রথমবারের মত সন্ত্রাসী সংগঠন, দায়েশের বিরুদ্ধে যুদ্ধে ইরাকি সেনাবাহিনী এবং পেশমের্গা যোদ্ধাদের রক্ত মিশ্রিত হচ্ছে। আমি আশা করি উভয়পক্ষের মধ্যে ভবিষ্যৎ সম্পর্কের এটি একটি ভাল সূচনা।  

 

বিডি-প্রতিদিন/ ১৮ অক্টোবর, ২০১৬/ আফরোজ

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow