Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:৩৩ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:৩৫
মোদি অন্যের বাথরুমে উঁকি মারতে ভালবাসেন: রাহুল
দীপক দেবনাথ, কলকাতা
মোদি অন্যের বাথরুমে উঁকি মারতে ভালবাসেন: রাহুল

‘রেনকোট’ ইস্যুতে এবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে নিশানা করলেন কংগ্রেস সহ-সভাপতি রাহুল গান্ধী। শনিবার লখনউয়ে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদবের সঙ্গে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলন থেকে অন্যের বাথরুমে উঁকি না মেরে এবং ঠিকুজি-কুষ্ঠী না দেখে সাধারণ মানুষের সমস্যা সমাধানের দিকে মন দেওয়ার জন্য মোদিকে পরামর্শ দিয়েছেন রাহুল।

মোদিকে নিশানা করে রাহুল এদিন বলেন, ‘মোদিজি হরস্কোপ (ঠিকুজি-কুষ্ঠী) দেখতে ভালবাসেন, গুগল সার্চ করতে ভালবাসেন এবং অন্যের বাথরুমে উঁকি মারতে ভালবাসেন। অবসর সময়ে, সন্ধ্যাবেলায় মোদি এই কাজ করে থাকেন। একজন প্রধানমন্ত্রী হিসাবে তাঁর উচিত দেশের নিরাপত্তা, কৃষক ও যুবকদের সমস্যা সমাধান করা’।

গত বুধবার দেশটির রাজ্যসভায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও কংগ্রেস নেতা মনমোহন সিং’কে নিশানা করে মোদি বলেছিলেন, ‘ডক্টর সাহেব (ড. মনমোহন সিং) এর কাছ থেকে অনেক কিছু শেখার আছে। তাঁর আমলে এত কেলেঙ্কারির পরও একটি দাগও তাঁর গায়ে লাগেনি। রেনকোট পরে গোসল করার অভ্যাস রয়েছে মনমোহনের। তাই তার গায়ে গোসলের পানি স্পর্শ করে না’। অর্থাৎ কংগ্রেস শাসনকালে এত আর্থিক দুর্নীতির মধ্যেও তিনি তাঁর সৎভাবমূর্তি ধরে রেখেছেন। মোদির সেই মন্তব্যের পরই এবার পাল্টা আক্রমণ করলেন রাহুল।

এর আগে উত্তরপ্রদেশের হরিদ্বারে একটি জনসভায় রাহুলকে ব্যঙ্গ করে মোদি বলেন, গুগলে একজনের নামে বেশ রঙ্গ-তামাশা হয়। তিনি গুগলে ঠাট্টার পাত্র’। তিনি আরও বলেন, কংগ্রেসের লোকেরা মুখ সামলে কথা বলুন। আপনাদের ঠিকুজি আমার হাতে রয়েছে। এরই প্রেক্ষিতে কংগ্রেস সহ-সভাপতি রাহুল গান্ধী আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী সবদিক থেকে ব্যর্থ। তিনি বুঝতে পেরেছেন যে কংগ্রেস-এসপি জোট এবার উত্তরপ্রদেশে ক্ষমতায় আসতে চলেছে। এই জয় প্রধানমন্ত্রীর বিশ্বাসযোগ্যতায় বড় ধাক্কা দেবে। গত আড়াই বছর ধরে আপনি প্রধানমন্ত্রী। উনি চাইলেই যে কোন ব্যক্তিরই ঠিকুজি বের করতে পারেন’।

মোদি-রাহুলের এই বাকযুদ্ধে দেশটির জাতীয় রাজনীতিতে উত্তাপ ছড়িয়েছে। এদিন সংবাদ সম্মেলনে অখিলেশ সিং যাদবও মোদিকে আক্রমণ করে বলেন, প্রধানমন্ত্রীর দেশের মানুষের আবেগ নিয়ে খেলা উচিত নয়, তাঁর এখন মাথা ঠাণ্ডা রাখা উচিত। তাঁর বোঝা উচিত রাজ্যে কংগ্রেস-এসপি জোট ক্ষমতায় আসছে। ঠিকুজি প্রসঙ্গে অখিলেশ বলেন, এটা ইন্টারনেটের যুগ। মাউস ক্লিক করলেই মুহূর্তের মধ্যেই ঠিকুজি হাতের কাছে চলে আসবে’।

বিডি-প্রতিদিন/১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭/মাহবুব

আপনার মন্তব্য

up-arrow