Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০১:৫৭ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১০:২৬
খেলার ছলে হত্যা করা হয়েছিল কিমের ভাইকে!
অনলাইন ডেস্ক
খেলার ছলে হত্যা করা হয়েছিল কিমের ভাইকে!

ভূত সেজে ভয় দেখানো থেকে, অন্ধ সেজে বেকুব বানানো। টিভি পর্দায় হাজারটা ‘প্র্যাঙ্ক শো’ চলছে দিনরাত।

নির্ভেজাল হাসি ফুটিয়ে তোলাই এদের লক্ষ্য। কিন্তু এরকমই একটি অনুষ্ঠানের আড়ালে চরম আঘাত হেনেছিল ঘাতক। হত্যা করা হয়েছিল উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উনের সৎ ভাই কিম জং ন্যামকে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে এমনটাই জানিয়েছে ওই হত্যাকাণ্ডে গ্রেফতার এক অভিযুক্ত।

দি গার্ডিয়ানের খবর, ন্যামের হত্যায় জড়িত থাকার সন্দেহে ২৫ বছরের এক নারীকে গ্রেফতার করে ইন্দোনেশিয়ার পুলিশ। দেশটির পুলিশ জানিয়েছে, পেশায় ‘প্র্যাঙ্ক স্টার’ ওই নারী স্বীকার করেছে, ন্যামের মুখে মজা করে সেই ৩ থেকে ৪ বার পানি ছিটিযেছিল৷ তবে তা যে বিষাক্ত তা তার জানা ছিল না৷ ওই নারী আরও বলেন, তাকে বলা হয়েছিল এটা একটা প্র্যাঙ্ক শো। এজন্য তাকে কয়েক ডলার দেওয়া হয়।

গত সোমবার মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর বিমানবন্দরে গুপ্তঘাতকের হাতে খুন হন কিম জং ন্যাম। ভাই কিম জং উনের পরিবারতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থার প্রকাশ্যেই সমালোচনা করতেন তিনি। পুলিশের ধারণা, বিমানবন্দরেই দুই নারী তার উপর বিষপ্রয়োগ করে। আর তাতেই মৃত্যু হয়। বিমানবন্দরের সিসিটিভি ফুটেজ থেকেই ধারণা করা হচ্ছে, বিষপ্রয়োগ করেন নারীরাই। অনেক আগেই সৎ ভাইকে খুন করার গোপন নির্দেশ দিয়েছিলেন কিম জং উন। ২০১২ সালে কিম জং ন্যামকে হত্যা করার চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছিল।

কিম জং ন্যাম এবং কিম জং উন দুজনই প্সাবেক উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং ইলের সন্তান। তবে তাদের মায়ের পরিচয় আলাদা। দেশের বাইরেই বেশিরভাগ সময় কাটাতেন ন্যাম। জানা গেছে, দ্বিতীয় স্ত্রীর সঙ্গে ম্যাকাওয়ে বর্তমানে থাকতেন কিম জং ন্যাম।

বিডি-প্রতিদিন/১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭/মাহবুব

আপনার মন্তব্য

up-arrow