Bangladesh Pratidin

ফোকাস

  • খাগড়াছড়িতে পাহাড়ের দুই আঞ্চলিক গ্রুপের মাঝে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। তবে এতে হতাহতের কোন খবর পাওয়া যায়নি।
  • ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী তাজিন আহমেদ আর নেই ( (ইন্না লিল্লাহি... রাজিউন)
  • বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকতে পারে আরও ৩ দিন
  • বিচারবর্হিভূত হত্যার মাধ্যমে অপরাধ দমন সম্ভব নয়: বিএনপি
  • নাজিমের পরিবারকে কেন কোটি টাকা দেয়া হবে না : হাইকোর্ট
  • খালেদের অভ্যুত্থানের ডাক, যুবরাজ সালমানের নীরবতা নিয়ে বাড়ছে সন্দেহ!
  • ইকার্দিকে বাদ দিয়ে আর্জেন্টিনার চূড়ান্ত দল ঘোষণা
  • রাজীবের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার আদেশ স্থগিত, তদন্তের নির্দেশ
  • ৯ জেলায় 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ১১
প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২০:২০ অনলাইন ভার্সন
হোয়াইট হাউসে সাংবাদিক প্রবেশ করতে না দেয়ায় তীব্র সমালোচনা
অনলাইন ডেস্ক
হোয়াইট হাউসে সাংবাদিক প্রবেশ করতে না দেয়ায় তীব্র সমালোচনা

হোয়াইট হাউসের এক সংবাদ সম্মেলনে শীর্ষস্থানীয় কিছু সংবাদপত্র ও টেলিভিশন নেটওয়ার্ককের সাংবাদিকদের ঢুকতে না দেয়ার ঘটনার তীব্র সমালোচনা চলছে।

শুক্রবার হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি শন স্পাইসারের সংবাদ সম্মেলনে যেসব গণমাধ্যমের সাংবাদিকদের ঢুকতে দেয়া হয়নি তাদের মধ্যে আছেন নিউইয়র্ক টাইমস, সিএনএন ও বিবিসির মতো নামকরা প্রতিষ্ঠানের সাংবাদিকরা।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সমালোচকরা নামকরা সব গণমাধ্যমের সাংবাদিকদের এভাবে হোয়াইট হাউসের কোনো সংবাদ সম্মেলনে অংশ নিতে না দেয়াকে ‘নজিরবিহীন’ বলে উল্লেখ করছেন।

নিউইয়র্ক টাইমস এ ঘটনার তীব্র সমালোচনা করে বলেছে, এটি যে যুক্তরাষ্ট্রের গণতান্ত্রিক আদর্শের অবমাননা, তাতে কোনো সন্দেহ নেই।
প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প শুক্রবারই গণমাধ্যমকে আবারও তার ভাষায় ‘ফেক নিউজ’ বা ভুয়া খবরের জন্য তীব্র ভাষায় আক্রমণ করেন। আর এর কয়েক ঘণ্টা পরেই হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি শন স্পাইসার এই পদক্ষেপ নেন।

শুক্রবার হোয়াইট হাউসের এই প্রেস কনফারেন্স হওয়ার কথা ছিল ব্রিফিং রুম ও ‘অন ক্যামেরা’। যেসব সাংবাদিকের হোয়াইট হাউসে কাজ করার অনুমতি আছে, তাদের সবারই সেখানে যাওয়ার অনুমতি ছিল। কিন্তু হঠাৎ করে এই সংবাদ সম্মেলনটি বাতিল করা হয় এবং এরপর প্রেস সেক্রেটারি শন স্পাইসার নির্দিষ্ট কিছু সাংবাদিককে তার কক্ষে একটি পৃথক ব্রিফিংয়ে আমন্ত্রণ জানান।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের প্রশাসনের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ বলে মনে করা হয় এমন সংবাদ মাধ্যমের সাংবাদিকদেরই সেখানে দেখা গেছে। এদের মধ্যে ছিল ফক্স নিউজ, ব্রেইটবার্ট নিউজ এবং ওয়াশিংটন টাইমস।

যাদের সেখানে ঢুকতে দেয়া হয়নি তাদের মধ্যে আছে বিবিসি, সিএনএন, নিউইয়র্ক টাইমস, লস এঞ্জেলেস টাইমস, বাজফিড, ডেইলি মেইল ও পলিটিকো।

হোয়াইট হাউস সংবাদদাতাদের সংগঠন ‘হোয়াইট হাউজ করেসপন্ডেন্টস এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট জেফ মেসন এর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

অন্যদিকে হোয়াইট হাউজের এই পদক্ষেপের প্রতিবাদে কয়েকটি গণমাধ্যমের সাংবাদিকরা সংবাদ সম্মেলন বর্জন করেন। এদের মধ্যে আছে এসোসিয়েটেড প্রেস, ইউএসএ টুডে ও টাইম ম্যাগাজিন।

অন্যদিকে ওয়াশিংটন পোস্ট জানিয়েছে, অনেক সাংবাদিককে যে এই সংবাদ সম্মেলনে ঢুকতে দেয়া হয়নি সেটা তারা জানতেন না। জানলে তাদের সাংবাদিকও এই সংবাদ সম্মেলন বর্জন করতেন।

সংবাদ সম্মেলনে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের প্রেস সেক্রেটারি শন স্পাইসারকে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল, সিএনএন ও নিউইয়র্ক টাইমসের ওপর হোয়াইট হাউস ক্ষুব্ধ বলেই কি তাদের সেখানে ঢুকতে দেয়া হয়নি।

শন স্পাইসার এই অভিযোগ অস্বীকার করেন। তবে তিনি বলেন, ‘মিথ্যে খবর, মিথ্যে তথ্য পরিবেশন করা হবে আর আমরা বসে বসে দেখবো, তা হবে না।’

বিডি প্রতিদিন/২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭/এনায়েত করিম

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow