Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, শনিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : ৪ মার্চ, ২০১৭ ০৯:২৬ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ৪ মার্চ, ২০১৭ ১০:২৮
ভারতের তাওয়াংয়ে দালাই লামার সফর নিয়ে চীনের আপত্তি
অনলাইন ডেস্ক
ভারতের তাওয়াংয়ে দালাই লামার সফর নিয়ে চীনের আপত্তি
ফাইল ছবি

তাওয়াংয়ে দালাই লামার সফর ঘিরে ফের অশান্তির মেঘ ঘনাচ্ছে ভারত-চীনের মধ্যে। আগামী মাসে অরুণাচল প্রদেশের তাওয়াংয়ে ধর্মীয় অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার কথা তিব্বতি এই ধর্মগুরুর।

অরুণাচল সরকারের আমন্ত্রণেই সেখানে যাচ্ছেন তিনি। কিন্তু বিষয়টি নিয়ে ফের আপত্তি তুলেছে চীন।

আসলে তাওয়াংকে নিজেদের অংশ বলে দীর্ঘ দিন ধরে দাবি করে আসছে বেইজিং। দালাই লামার সঙ্গেও তাদের দ্বন্দ্ব বহু দিনের। চীনে নানা সরকার বিরোধী কাজে দালাই যুক্ত বলে অভিযোগ করে আসছে বেইজিং। তাই তাওয়াংয়ের মতো স্পর্শকাতর এলাকায় দালাইকে ঢুকতে দিতে নারাজ তারা। এর আগেও দালাইয়ের তাওয়াং সফর ঘিরে চীনের আপত্তিতে নানা জটিলতা তৈরি হয়েছে। শুধু দালাই লামা নন, গত বছর অক্টোবরে ভারতে নিযুক্ত তৎকালীন মার্কিন রাষ্ট্রদূত রিচার্ড বর্মার তাওয়াং সফর নিয়েও ক্ষুদ্ধ হয়েছিল বেজিং।

এ বার দালাইয়ের আসন্ন সফরের খবর বেজিংয়ের কানে পৌঁছানো মাত্র বিষয়টি নিয়ে নড়েচড়ে বসেছে সে দেশের সরকার।

চীনের বিদেশ মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জেং সুয়াং একটি বিবৃতিতে জানিয়েছেন, বেজিংয়ের আপত্তি সত্ত্বেও ভারত যদি দালাইকে তাওয়াংয়ে ঢুকতে দেয়, তা হলে সীমান্তের বিতর্কিত এলাকায় শান্তি বিঘ্নিত হতে পারে। দু’দেশের সম্পর্কেও যার প্রভাব পড়বে। এই বিবৃতির মাধ্যমে নয়াদিল্লিকে কার্যত হুঁশিয়ারি দিয়ে রেখেছেন সুয়াং।

তবে সুয়াংয়ের এই হুঁশিয়ারিতে পিছু হঠতে নারাজ নয়াদিল্লি। চীনা বিদেশ মন্ত্রণালয়ের বিবৃতি নিয়ে সরকারি ভাবে মুখ খুলতে রাজি হননি সাউথ ব্লকের কেউই। কিন্তু বিদেশ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বার্তা দেওয়া হয়েছে, দলাইয়ের তাওয়াং সফরে বাধা দেওয়ার প্রশ্নই ওঠে না। বিদেশ মন্ত্রণালয়ের সূত্রের খবর, অরুণাচলকে ভারতের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ হিসেবেই মনে করে নয়াদিল্লি। ফলে সেখানকার যে কোনো জায়গায় যে কেউ যেতে পারেন। যত ক্ষণ না পর্যন্ত দেশের রাজনৈতিক প্রশ্নে দালাই নাক গলাচ্ছেন, তত ক্ষণ তিব্বতি ধর্মগুরুকে বাধা দেওয়ার  প্রশ্নই নেই।  

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা


বিডি প্রতিদিন/৪ মার্চ ২০১৭/হিমেল

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow