Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ২১ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, সোমবার, ২১ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : ৪ মার্চ, ২০১৭ ১১:২৯ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ৪ মার্চ, ২০১৭ ১১:৪৯
যৌন হয়রানির অভিযোগ থেকে জামিন পেলেন ভারতীয় অ্যাথলেট
এনআরবি নিউজ, নিউইয়র্ক থেকে :
যৌন হয়রানির অভিযোগ থেকে জামিন পেলেন ভারতীয় অ্যাথলেট

১২ বছর বয়সী এক মার্কিন শিশুকে যৌন হয়রানির অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া ভারতীয় অ্যাথলেট তানভীর হুসেন (২৪) দুদিন পর জামিনে মুক্তিলাভ করেছেন। শুক্রবার অপরাহ্নে তাকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে।

নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের এসেক্স কাউন্টি কারাগার কর্তৃপক্ষ জানান, ‘তবে তার পাসপোর্ট আটক রাখা হয়েছে। মঙ্গলবার তাকে সারানেক লেইক সিটি আদালতে হাজিরা দিতে হবে।  

এর আগে গত বুধবার (১ মার্চ) রাতে কাস্মিরের স্নোশো এ্যাথলেট তানভীরকে পুলিশ গ্রেফতার করে জেলে পাঠিয়েছিল। গত শনিবার সারানেক লেইক সিটিতে অনুষ্ঠিত ‘বিশ্ব স্নোশো চ্যাম্পিয়নশীপে’ অংশ নেন তানভীর। এ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্যে তানভীরসহ দুই ভারথীয় অ্যাথলেট ঐ সিটিতে অবতরণ করেন ২৩ ফেব্রুয়ারি। সে সময় তাদেরকে সিটি মেয়রসহ সর্বস্তরের নাগরিকেরা উষ্ণ অভিনন্দন জানান।  

তাদের হোটেলের ভাড়াও নেননি মালিক। তিন বেলা খাবার সরবরাহ করেছে আশপাশের রেস্টুরেন্টগুলো বিনা মূল্যে। এমন আতিথেয়তা পাবার কারণ হিসেবে জানা যায়, গত জানুয়ারিতে নয়াদিল্লীতে মার্কিন কন্স্যুলেট তাদের ভিসার আবেদন নাকচ করেছিল। কারণ, সে সময় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কর্তৃক ৭ মুসলিম দেশের নাগরিকদের ভিসা সাময়িকভাবে স্থগিতাদেশ জারি করা হয়েছিল। ঐ তালিকায় ভারত না থাকলেও তানভীর ও তার সার্থী আবিদ খান-উভয়েই মুসলমান থাকায় তাদের আবেদন নাকচ করা হয়।  

পরে আন্তর্জাতিকভাবে খ্যাতিসম্পন্ন অ্যাথলেটদের ভিসার আবেদন নাকচের সংবাদটি সর্বত্র ব্যাপক হৈ চৈ ফেললে নিউইয়র্ক থেকে নির্বাচিত দুই সিনেটর চাক শ্যুমার ও ক্রিস্টিন জিলিব্র্যান্ড হস্তক্ষেপ করেন নয়াদিল্লী কন্স্যুলেটে। সারানেক লেইক সিটির মেয়র ক্লাইড রাবিয়াডোও চিঠি লেখেন কন্স্যুলেটে। এরপর তাদের ভিসা দেয়া হয়।

এসেক্স কাউন্টির ডিস্ট্রিক্ট এটর্নী  ক্রিস্টি স্প্রগ তানভীরের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলার উদ্ধৃতি দিয়ে জানান, ১২ বছরের শিশুর অভিযোগ অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে খতিয়ে দেখার পরই তানভীরকে গ্রেফতার করা হয়। কারণ, তানভীর তাকে চুমু দেন এবং জড়িয়ে ধরেছিলেন। শুধু তাই নয়, শিশুটির শরীরে হাত দেয় তানভীর। এটি মার্কিন আইনে দণ্ডনীয় অপরাধ।  

এদিকে তানভীরের গ্রেফতারের পর আশপাশের সকলেই বিস্ময়ে হতবাক হয়েছেন। কারণ, তারা সকলেই তানভীর ও আবিদকে অত্যন্ত আপন হিসেবে গ্রহণ করেছেন। শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত তানভীরের জামিনের ব্যাপরটি অনিশ্চিত ছিল। কারণ, জজ জামিনের শর্ত হিসেবে নগদ ৫ হাজার ডলার অথবা ১০ হাজার ডলারের বন্ড চেয়েছিলেন। সে সামর্থ্য ছিল না তানভীর কিংবা তার সাথী আবিদ খানের। এর কয়েক ঘন্টা পর এলাকার এক দম্পতির বিশেষ অনুরোধে ডিস্ট্রিক্ট এটর্নীর সুপারিশে তানভীরের পাসপোর্ট আটক রেখে জামিনে সম্মত হয় আদালত।  

জামিন প্রদানের সময় মামলার পূর্ব নির্দ্ধারিত তারিখও একদিন পিছিয়ে মঙ্গলবার করা হয়েছে। এ সময় সেন্ট আরমান্ড টাউন ক্রিমিনাল কোর্টের জজ শেরিডান সুইনিয়ার  তারভীরকে এই সিটির লিন্ডি এলিস এবং রিচ শাপিরোর বাসায় থাকার অনুমতি দিয়েছেন। এই দম্পতিই তানভীরের পক্ষে আইনজীবী নিয়োগ করেছিলেন। এছাড়া জামিনের শর্ত হিসেবে নগদ ৫ হাজার ডলারও প্রদান করেছেন এই শ্বেতাঙ্গ আমেরিকান দম্পতি।  


বিডি প্রতিদিন/৪ মার্চ ২০১৭/হিমেল

আপনার মন্তব্য

up-arrow