Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : ৫ মার্চ, ২০১৭ ১২:৩৫ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ৫ মার্চ, ২০১৭ ১৪:৩৯
৯ দেশের হাতে ১৪ হাজার ৯০০ পরমাণু অস্ত্র
অনলাইন ডেস্ক
৯ দেশের হাতে ১৪ হাজার ৯০০ পরমাণু অস্ত্র

বর্তমানে বিশ্বের ৯টি দেশের হাতে ১৪ হাজার ৯০০ পারমাণবিক অস্ত্র আছে বলে জানিয়েছে ফেডারেশন অব আমেরিকান সায়েন্টিস্ট (এফএএস)। দেশগুলো হলো- চীন, রাশিয়া, ভারত, যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স, ব্রিটেন, উত্তর কোরিয়া, পাকিস্তান ও ইসরায়েল।

তবে দেশগুলোর হাতে থাকা পারমাণবিক অস্ত্রের প্রকৃত সংখ্যা আরও বেশি হতে পরে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।  

এর মধ্যে রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের কাছেই আছে ৯৩ শতাংশ পারমাণবিক অস্ত্র। যেখানে ৭ হাজার পারমাণবিক ওয়ারহেড নিয়ে শীর্ষে আছে রাশিয়া। অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্র ৬ হাজার ৮০০ পারমাণবিক ওয়ারহেডের মালিক। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্নায়ুযুদ্ধ পরবর্তী সময়ে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার পারমাণবিক কার্যক্রম অনেক কমে গেছে। তবুও দেশ দুটি এক্ষেত্রে নিজেদের শীর্ষ অবস্থান ধরে রেখেছে।

এদিকে, পারমাণবিক অস্ত্রের প্রতিযোগিতায় তৃতীয় অবস্থানে আছে ফ্রান্স। দেশটির হাতে ৩০০টি পারমাণবিক ওয়ারহেড আছে। এর পরের অবস্থানগুলোতে আছে যথাক্রমে চীন (২৬০টি), ব্রিটেন (২১৫টি), পাকিস্তান (১২০টি), ভারত (১১০টি), ইসরায়েল (৮০টি) এবং উত্তর কোরিয়া (১০টি)। রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র বাদে সবগুলো দেশ মিলিয়ে এ সংখ্যা এক হাজার ৯৫টি।

এছাড়া ইসরায়েল এখনও তাদের পারমাণবিক কার্যক্রমের বিষয়টি স্বীকার করেনি। উত্তর কোরিয়া আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে এ ক্ষেত্রে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। অন্যদিকে জাপান জানিয়েছে, পারমাণবিক অস্ত্র অর্জনের প্রযুক্তিগত জ্ঞান অর্জন করেছে দেশটি। কিন্তু তাদের এ অস্ত্র বানানোর কোনো পরিকল্পনা নেই।  

প্রসঙ্গত, ১৯৪৫ সালে যুক্তরাষ্ট্র প্রথম পারমাণবিক অস্ত্র উদ্ভাবন করে। একই বছরের আগস্টে জাপানের হিরোশিমা ও নাগাসাকিতে এ অস্ত্রের প্রথম প্রয়োগ হয়। মানুষ পরিচিত হয় গণবিধ্বংসী অস্ত্রের ভয়াবহতার সঙ্গে। ১৯৪৯ সালে রাশিয়া প্রথম পারমাণবিক অস্ত্র অর্জন করে। সবশেষ ২০০৬ সালে উত্তর কোরিয়া নবীন সদস্য হিসেবে নিউক্লিয়ার ক্লাবে যুক্ত হয়।

আপনার মন্তব্য

up-arrow