Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১২ মার্চ, ২০১৭ ০৯:৩৩
আপডেট : ১২ মার্চ, ২০১৭ ১৪:১২

আলোচনায় ট্রাম্পের গাড়ি ‘দ্য বিস্ট’

অনলাইন ডেস্ক

আলোচনায় ট্রাম্পের গাড়ি ‘দ্য বিস্ট’
সংগৃহীত ছবি

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের গাড়িবহরে যুক্ত হতে যাচ্ছে একটি নতুন ধরনের প্রেসিডেন্সিয়াল লিমো যার নাম ‘দ্য বিস্ট’। বুলেটপ্রুফ এই নতুন গাড়িটি ট্রাম্পকে রক্ষা করবে রকেট ও রাসায়নিক হামলা থেকে। খবর ডেইলি মেইলের।

খবরে বলা হয়, ট্রাম্পের গাড়িবহরে থাকছে ১২টি গাড়ি যার কতগুলো ট্রাম্পের বিদেশ সফরের আগেই সেসব দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। সেডান গাড়িটি দুটি বড় এসইউভি মডেলের গাড়ির চেয়েও লম্বা। এটির রং এমনভাবে করা হয়েছে যাতে ভেতরে কি কি আছে তা বোঝা না যায়। চূড়ান্তভাবে এর রং হবে কালো আর রুপালি। জেনারেল মোটর চেয়েছিল গত জানুয়ারিতে ট্রাম্পের অভিষেকের দিন গাড়িটি হস্তান্তর করতে, পরে সিদ্ধান্ত হয় এ মাসের শেষের দিকে গাড়িটি হস্তান্তর করা হবে। 

১৫ লাখ ডলারে নির্মিত গাড়িটিকে পৃথিবীর সবচেয়ে নিরাপদ গাড়ি বলে বিবেচনা করা হচ্ছে। ‘দ্য বিস্টের’ ওজন ৮ টন। স্টিলের দরজাগুলো ৮ ইঞ্চি পুরু। অন্যান্য অংশ ৪ ইঞ্চি পুরু। এমন নিশ্ছিদ্রভাবে গাড়িটি তৈরি করা হয়েছে যাতে রাসায়নিক কিংবা জীবাণু অস্ত্র প্রতিহত করতে পারে। সামনের কাচটি ট্যাংক বিধ্বংসী গোলা প্রতিহত করতে পারবে।  

জ্বালানি ট্যাংকটি বিস্ফোরণ প্রতিরোধী। শুধু চালকের পাশের জানালাটি খোলা যাবে। গাড়ির একপাশে  আগ্নেয়াস্ত্র ও ট্রাম্পের জন্য সংরক্ষিত রক্তের ব্যাগ বসানো আছে। অক্সিজেন ট্যাংক বসানো হয়েছে যাতে রাসায়নিক হামলা হলে তা ব্যবহার করা যায়। এমন টায়ার ব্যবহার করা হয়েছে যাতে তা পাংচার না হয়। টায়ারের ওপর স্টিলের পাত বসানো আছে যাতে টায়ার ধ্বংস হয়ে গেলেও গাড়ি চালিয়ে নেওয়া যায়। সামনের গ্রিলের সাথেও আগ্নেয়াস্ত্র বসানো আছে।

ট্রাম্পের এই দামি গাড়ি এখন আলোচনায় রয়েছে। এর আগে সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার গাড়িও এমনটিই ছিল। তবে সেটির থেকে এটি আরো বেশি শক্তিশালি বলে জানা গেছে।

 

বিডি প্রতিদিন/১২ মার্চ ২০১৭/হিমেল


আপনার মন্তব্য