Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : ১৩ মার্চ, ২০১৭ ০২:২০ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৩ মার্চ, ২০১৭ ১০:৩৫
সামরিক ক্ষেত্রে যৌথভাবে কাজ করার উদ্যোগ ভারত ও ব্রিটেনের
অনলাইন ডেস্ক
সামরিক ক্ষেত্রে যৌথভাবে কাজ করার উদ্যোগ ভারত ও ব্রিটেনের
ফাইল ছবি

ভারতের সঙ্গে সামরিক সহযোগিতার কথা জানাল ব্রিটেন। একইসঙ্গে এয়ারক্রাফট কেরিয়ার তৈরি করছে দুই দেশ।

এই বিষয়ে ভারতকে সব রকম সাহায্য করা হবে বলে জানালেন ব্রিটেনের অ্যাডমিরাল স্যার ফিলিপ জোনস।

সম্প্রতি আইএনএস বিরাট ধ্বংস হওয়ার সময় নিয়ে ভারতে এসেছিলেন ব্রিটিশ এই নেভি অফিসার। এখানে এসে তিনি জানান, ভারত ও ব্রিটেন সামরিক ক্ষেত্রে যৌথভাবে কাজ করার উদ্যোগ নিয়েছে। ২০১৮ সালের ফের তিনি ভারতে আসবেন বলে জানিয়েছেন। এই মুহূর্তে একসঙ্গে এয়ারক্রাফট কেরিয়ার তৈরি করছে ভারত ও ব্রিটেন। দুই দেশ একসঙ্গে কাজ করলে উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ তৈরি হবে বলেও আশা তাঁর। ভারতে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য খুশি তিনি। আইএনএস বিরাট যখন রয়্যাল নেভিতে ছিল তখন তার সদস্য হিসেবে ছিলেন এই নেভি অফিসার। তিনি ওই এয়ারক্রাফট কেরিয়ারের নেভিগেটর ছিলেন। ওই ভেসেলেই একটি যুদ্ধেও অংশগ্রহণ করেন তিনি। যখন এটি ভারতে আসে, সেইসময়টাও মনে আছে তার।

ভারতীয় নৌবাহিনীর সবচেয়ে পুরনো, দ্রুতগামী বিমানবাহী রণতরী আইএনএস বিরাট এবার অবসরের পথে। ব্রিটিশদের তৈরি এই রণতরী গত ২৯ বছর ধরে ভারতীয় নৌবাহিনীর সঙ্গে রয়েছে। তার আগে আড়াই দশকেরও বেশি সময় ধরে (১৯৫৯ সালের নভেম্বরে থেকে ১৯৮৪ সাল পর্যন্ত) ব্রিটিশ ‘রয়াল নেভি’-র অন্তর্ভুক্ত ছিল এই রণতরী। তখন নাম ছিল এইচএমএস হার্মেস। ১৯৮৭-র ১২ মে প্রথম ভারতীয় নৌবাহিনীর হাতে আসে বিমানবাহী এই রণতরী। নাম দেওয়া হয় আইএনএস বিরাট। তারপর থেকে একটানা ২৯ বছর এটি ভারতীয় নৌবাহিনীর সঙ্গে। গত বছর জুলাইতে মুম্বই থেকে কোচিতে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল এই রণতরী। অক্টোবরে ফের মুম্বইয়ে ফিরিয়ে আনা হয়। সূত্র: কলকাতা টুয়েন্টিফোর সেভেন।

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার

আপনার মন্তব্য

up-arrow